সত্য বলা, চলা ও প্রচারই হোক বিসর্গের ভাষা...

একটা গল্প শোনাও

ঘুম আসছে না যোহরা,
একটা গল্প শোনাবে?
আমি কী করে বলব কী গল্প!
হলেই হল একটা।
জীবনের গল্প, শৈশবের গল্প!
রাক্ষসী রানীর গল্প, আটকুড়ে রাজার গল্প;
আরব্য রজনীর গল্প কিম্বা কৈশোরের কিছু,
গ্রাম্য মেয়ের সরলতার গল্প!
আরও শোনাতে পারো লাপাত্তা
স্বামীর অপেক্ষায় গর্ব করা মরু নারীর গল্প।

রাতদুপুরে কফি করে চাইনি
শুধু একটা গল্পের আবদার করেছি।
ঐ যে সন্তানহারা এক বৃদ্ধার গল্প করেছিলে মনে আছে?
সেটাই না হয় কর আবার।
কিম্বা মৃত্যুঞ্জয়ী পূর্বপুরুষদের গল্প,
অল্প-স্বল্প মনে পড়ে বারবার।

কী ভাবছো যোহরা?
আমাদের না পাওয়ার গল্প থাক!
আমাদের স্বপ্ন পোয়াতি নারীর মত।
বরং তুমি একটা নির্জলা প্রেমের গল্প বলো।
যেদিন থেকে তুমি তারা হলে,
আমি হলেম নিশাচর।
একটা গল্প শোনাও যোহরা,
ঘুম আসবো অত:পর।

আপনার রেটিং: None

আজ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস - রফিকুল ইসলাম জসিম

আজ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস

৩ মে বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস উপলক্ষে 

বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমের সার্বিক পরিস্থিতি মূল্যায়নের উদ্দেশ্যে ১৯৯৩ সাল থেকে ‘৩ মে’ পালিত হযছে আসছে ‘বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস’। ১৯৯১ সালে নামিবিয়্ার উইন্ডহকে অনুষ্ঠিত ‘ডিকারেশন অন প্রমোটিং ইন্ডিপেন্ডেন্ট অ্যান্ড প্লুরালিস্টিক মিডিয়া’ শীর্ষক সেমিনারের উপর ভিত্তি করে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ কর্তৃক ১৯৯৩ সালের ডিসেম্বরে এ দিবসটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এর মূল লক্ষ্য ছিল, বিশ্বব্যাপী স্বাধীন, অবাধ ও বহুমাত্রিক শক্তিশালী গণমাধ্যম ও তথ্য ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে গণতন্ত্রের অগ্রগতি ও সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়ন সুনিশ্চিত করা।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

এবার মাফিয়া ডনের স্ত্রী হচ্ছেন রাধিকা!

এবার মাফিয়া ডনের স্ত্রী হচ্ছেন রাধিকা!

ব্যতিক্রমী সিনেমায় অভিনয় করে বরাবরই প্রশংসিত হয়েছেন ভারতীয় অভিনেত্রী রাধিকা আপ্তে। ঘরে তুলেছেন ঢের ঢের পুরস্কার। আবার আন্তর্জাতিক পর্যায়ে স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবিতে নগ্ন হয়ে প্রশংসা-সমালোচনা দু'টোই কুড়িয়েছেন। সেই রাধিকাকে এবার দেখা যাবে মাফিয়া ডনের স্ত্রীর চরিত্রে। ডনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তামিল সুপারস্টার রজনীকান্ত।

আগামী ২৭ মে মুক্তি পাচ্ছে রজনীকান্ত-রাধিকা অভিনীত 'কাবালি' সিনেমাটি। অপরাধ জগতের নানা নাটকীয়তা নিয়ে এই সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন পি এ রঞ্জিত। শেষ হয়েছে ছবিটির শুটিং এবং ডাবিং।

৬৬ বছর বয়স্ক রজনীর স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে ৩১ বছরের রাধিকা বলেন, ''রজনীকান্ত প্রতিটি শিল্পীর অনুপ্রেরণা। তার মত অভিনেতা আর কেউ নেই। এমন কেউ নেই যে তার সঙ্গে কাজ উপভোগ করবে না। আমি নিজেই অভিভূত। তার সঙ্গে অভিনয় আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ অভিজ্ঞতা। তিনি মানুষ হিসেবে অসাধারণ।''

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

রিকশাওয়ালার ছেলে জেলা প্রশাসক!

রিকশাওয়ালার ছেলে জেলা প্রশাসক!

অধ্যাবসায় আর প্রবল ইচ্ছা থাকলে সবই সম্ভব। গোবরেও জন্মাতে পারে পদ্মফুল। রিকশাওয়ালার ঘরে জন্ম নিয়েও দেখা যেতে পারে বড় স্বপ্ন। হতে পারেন জেলার কর্ণধার। হ্যাঁ পাঠক এমনি অসাধ্য সাধন করেছেন গোবিন্দ জিসওয়াল। রিকশাওয়ালার ঘরে জন্ম নিয়েও এখন তিনি হয়েছেন জেলা প্রশাসক।

জানা গেছে, ভারতে এমনটি ঘটেছে। গরীবের ঘরে জন্ম নিয়েও রিকশাওয়ালা হয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি তিনি এক সাক্ষাতকারে তার সফলতার গল্প শুনিয়েছেন। জানিয়েছেন কিভাবে তিনি আইএএস অফিসার হয়েছেন।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

মুস্তাফিজের গালে চুমু খাওয়া কে সেই সুন্দরী?

মুস্তাফিজের গালে চুমু খাওয়া কে সেই সুন্দরী?

চলমান আইপিএলে রয়্যাল  চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে বিশ্ব ক্রিকেটের বিস্ময় বাংলাদেশের বালক মুস্তাফিজের অভিষেক হয়েছিল। প্রথম ম্যাচ থেকে প্রতিটি ম্যাচেই নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন মুস্তাফিজ। আইপিলে পেয়েছেন এবি ডি ভিলিয়ার্স, শেন ওয়াটসন, আন্দ্রে রাসেল, বিরাট কোহলির মতো ব্যাটসম্যানের উইকেট।  তার বোলিংয়ে খেই হারিয়েছেন বেন্ডন ম্যাককালাম, শন মার্শের মতো ব্যাটসম্যানরাও।

এই মুস্তাফিজকে পেয়ে গালে চুমু খেয়ে মনের আশার পূরণ করে নিয়েছেন এক রাশিয়ান সুন্দরী ভ্রাদিনা। সেলফি তুলতে গিয়ে মুস্তাফিজের গালে চুমু দিয়ে বসেন ভ্রাদিনা। স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে লজ্জায় যেন মাথা কাটা যাওয়ার অবস্থা হয় মুস্তাফিজের। বিষয়টিকে নিয়ে বেশ মজাই করেছেন সানরাইজার্সের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারও।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

“সে ব্যক্তি মুমিন নয় যে নিজে তৃপ্তি সহকারে আহার করে, অথচ তার প্রতিবেশী অনাহারে থাকে”

মানুষ হিসাবে
আমাদেরকে সমাজবদ্ধ জীবন যাপন করতে হয়। আর সমাজে বসবাস করলে অবশ্যই সেখানে প্রতিবেশী
থাকে। প্রতিবেশী ভালো হলে সামাজিক জীবন সুন্দর ও মধুময় হয়। এর বিপরীতে প্রতিবেশী মন্দ
হলে সমস্যার কোনো শেষ থাকে না। তাই ইসলামে প্রতিবেশী নির্বাচনের প্রতি অত্যাধিক গুরুত্বারোপ
করা হয়েছে। প্রতিবেশী ভালো হোক বা খারাপ হোক- প্রতিবেশীর অনেক অধিকার রয়েছে। নবী করিম

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

কর্মমুখী শিক্ষাব্যবস্থাই দেশের জনগোষ্ঠীকে কর্মোপযোগী ও দক্ষ করে তুলবে

জনশক্তির বোনাসকালে যুক্ত হয়ে জনসংখ্যাতাত্ত্বিক সুযোগ কাজে লাগাতে
পারেনি এমন দেশের সংখ্যা খুব কম। বাংলাদেশও এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে ভবিষ্যৎ গড়ে
তুলতে পারবে। যেকোনো দেশের বড় সম্পদ দক্ষ জনশক্তি। মানবসম্পদের সঠিক ব্যবহার একটি
দেশের চিত্রই বদলে দিতে পারে। বাংলাদেশের মোট জনশক্তির ৬৬ শতাংশ কর্মক্ষম। আগামী
১৫ বছরের মধ্যে এই সংখ্যা হবে মোট জনশক্তির ৭০ শতাংশ। কর্মক্ষম মানুষের এই সংখ্যা
বাংলাদেশকে নিয়ে যেতে পারে অমিত সম্ভাবনার দ্বারপ্রান্তে। দেশের কর্মক্ষম
জনগোষ্ঠীকে দক্ষ করে গড়ে তুলে দেশেই কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারলে সংকট
কাটিয়ে উঠে অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে মাথা তুলে দাঁড়াবে বাংলাদেশ। এ দেশের কর্মরত

আপনার রেটিং: None

প্রধানমন্ত্রীকে ফের 'কটাক্ষ' করে নাস্তিক তাসলিমা নাসরিন ফেসবুকে স্ট্যাটাস

প্রধানমন্ত্রীকে ফের 'কটাক্ষ' করে নাস্তিক তাসলিমা নাসরিন ফেসবুকে স্ট্যাটাস

প্রধানমন্ত্রী নাস্তিক খুনীদের শাস্তি দেওয়ার পক্ষে নয়, কারণ খুনের পেছনে নিশ্চয়ই কোনও কারণ আছে। কারণ না থাকলে ওরা খুন করবে কেন!’ নাস্তিকরা খুন হওয়ার মতো অপরাধ করে বলেই ধারণা জন্মেছে।

ফেসবুকে স্ট্যাটাস : 

পুরো বিশ্ব জানে বাংলাদেশে নাস্তিকদের কুপিয়ে মারছে ইসলামী সন্ত্রাসীরা। এখন কোনও আস্তিককে মেরে ফেলা হলেও বলা হবে, ও ব্যাটা নির্ঘাত নাস্তিক ছিল। হাসিনার ছেলে জয়কেও যদি এখন কুপিয়ে মেরে ফেলা হয়, হাসিনা বলবেন, ‘জয়ও ভেতরে ভেতরে হয়তো নাস্তিক ছিল। আমরা জানতাম না। নাস্তিক না হলে বা মুক্তমনা না হলে সন্ত্রাসীরা ওকে মারবে কেন’। সন্ত্রাসীদের বিচারের প্রতি আস্থা দেশের প্রধানমন্ত্রীরও আছে। আস্থা আছে বলেই প্রধানমন্ত্রী খুনীদের শাস্তি দেওয়ার পক্ষে নন। তিনি বরং মুক্তমনাদের উপদেশ দিচ্ছেন মনকে মুক্ত না করে বদ্ধ করতে। জটিল লেখালেখি বন্ধ করতে।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

শ্রমিক ছন্দ |||| প্রশান্ত মন্ডল

আঠার বছর, কমেই শিশু।
কে বলেছে, ছাঁই?
অাট-আঠারোয় নেইকো বাঁধা,
বলুক যতটাই..!

শিশু কারা জানেন নাকি,
আজকে লাফান যারা!
এক-আঠারো নয়কো শিশু,
নিজের সন্তান ছাড়া!

মন্দ নাতো ভালোই করে,
বড়োর কাছাকাছি।
তাইতো বলি কিসের এত,
করেন বাছাবাছি!

ধর্ষণেরও যোগ্য হবে-
বয়স? --প্রবলেম নাই!
মারতে পারবেন ইচ্ছে মতো,
বেঁধে দু'হাত-টাই!

আরও কত কিছুই পারেন,
রাখলে স্লোগান বন্ধ!
শিশু শ্রম চলবে চলুক-
এমন বানান ছন্দ!

আপনার রেটিং: None

আমার পরিচয় রফিকুল ইসলাম জসিম এর কবিতা

আমার পরিচয়

---------------------------------------------

রফিকুল ইসলাম (জসিম)

আমি মনিপুরী মুসলিম, 

আমার ডাক নাম  পাঙান 

আমি আদিবাসী,

আমার প্রিয় দেশ বাংলাদেশে

আমি মুসলমান, 

আমার ধর্ম পবিত্র ইসলাম । 

আমি অবাঙালি,

আমার জাতি মনিপুরী মুসলিম। 

আমি  নাগরিক,

আমার স্বাধীনতার বাংলাদেশে। 

আমি বাংলাদেশি,

আমার জন্মভূমি প্রিয় বাংলাদেশ।  

আমি মুসলিম 

আমার নবী মহম্মদ (স:) উম্মত।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None
Syndicate content