সত্য বলা, চলা ও প্রচারই হোক বিসর্গের ভাষা...

অষ্ট্রেলিয়ার ভিসা, স্বপ্ন পুরনের আরো এক ধাপ

বাঙ্গালীদের ঘর কুনো
স্বভাবের একটা পরিচয় প্রায় সবাই জানে, তাই তো ফেলুদা, কাকাবাবুদের এদেশ সেদেশে
অভিযান শুধু গল্পেই সীমাবদ্ধ। বাস্তবে বাঙ্গালীদের মধ্যে খুব কম মানুষই অভিযাত্রী
বা যুগশ্রষ্ঠা হিসেবে নিজেদের পরিচয়কে উদ্ভাসিত করতে পেরেছেন। তাইতো আমাদেরকে
যুগশ্রষ্ঠা কবি কাজী নজরুল ইসলাম তার ‘সংকল্প’ কবিতায় লিখেছেনঃ

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

আমারও নাস্তিক হতে মন চাই,কিন্তু পারিনা!!!

এ পৃথিবীতে যে আসবো সেটা কখনো কল্পনা করিনি,আসতে হবে সেটাও ভাবিনি!তবে কোথথেকে যে এসেছি সেটা জানি না,শুধু শুনেছি মায়ের পেট থেকে এসেছি,তবে কীভাবে মায়ের পেটে ছিলাম,সেটা জানিনা৷শুধু অবাক হই কে পাঠিয়েছে মায়ের পেটের ভিতর!কীভাবে ছিলাম ওখানে?ঐ অল্প জায়গায়,ভেবে শুধু হাঁফিয়ে উঠি৷পেটের ভিতর কীভাবে থাকতাম সেটা জানিনা,তবে কিছু ধর্ম এবং বিজ্ঞান এ বিষয়ে কিছুটা বলেছে,সেটা কিছুটা লক্ষণীয়৷
তবে আমরা প্রকৃতই যে কোথা থেকে এসেছি বা আসছি,কে পাঠাচ্ছে বা কার হুকুমে চলে যাচ্ছি সেটাই আজ পর্যন্ত আবিষ্কার হয়নি৷এটাই এখন চিন্তার বিষয়৷যেদিন থেকে একটু বুঝ শক্তি পেয়েছি,সেদিন থেকে জীব বা প্রাণীর মধ্যে একটা জিনিস লক্ষ করেছি,সেটা হলো ঐ আসা যাওয়া; মানে জন্মমৃত্যু৷এক জাতি চলে যাচ্ছে বিনিময়ে আরেক জাতি বা প্রজাতি আসছে,শুধু মাঝ খানে সময়টা কিছুটা আপডাউন হচ্ছে;সময়ের এই আবর্তনে পড়ে আমরা কিছু জীবকূল বিলীন হয়ে যাচ্ছি,আবার কিছু নতুন জীবকুল উদয় হচ্ছি৷

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

প্রবাসীর বউ (তিন পর্বের গল্পের ২য় পর্ব)

লোপা নিজের মা বাবার সাথে এক রকমের কঠিন কথা বলে থেকে গেল শশুরালয়ে!
লোপার শশুর কিছুটা নমনীয় ব্যবহার করেছে লোপার সাথে আর বাকিরা সবাই ওকে এমন
কষ্ট দিচ্ছে যে, সংসার ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়! যেই মানুষটা লোপার প্রতি
মমতার ব্যবহার করেছে সেই মানুষটা হঠাৎ করেই চলে গেলো না ফেরার দেশে! লোপা
আরো একাকি হয়ে গেলো! আর এই পরিবারে কোন চাহিদার কথা প্রকাশ করা তো দুরের
কথা একটি মাত্র কন্যা সন্তান তার জন্যেও কোন আবদার করতে পারেনা! কাকে বলবে
মনের কষ্টের কথা গুলো? সব কষ্ট বুকে নিয়ে থেকে গেলেও থাকতে পারবেনা হয়তো
এখানে! কারন সবকিছুর কষ্ট করা যায় কিন্তু স্বামী নামক সেই সম্মানিত
ব্যক্তির সম্মানের দিকে যদি কেউ হাত বাড়ায় তো সেখানে কিছুতেই থাকা যায়না!
আত্ম সম্মান বাচিঁয়ে থাকা বড়ই কঠিন আর যেখানে লোপার স্বামীই ঠিকমত খোজ খবর
রাখেনা! সেখানে বাকি সবার কথা তো বাদই! লোপাকে যখন ভাতে, কাপড়ে, তেলে,
সাবানে কষ্ট দিয়েও তাড়াতে পারলো না! তখন ননদের জামাইরা সুযোগ খুজে তাকে
মানুষের চোখে অপমানিত করার চেষ্টা করে! দুই ভাসুরের মধ্যে বড়জন মোটামুটি

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

রক্ত কেন লাল হয়?

ছোট বেলায় শুনেছি টিকটিকির রক্ত নাকি সাদা,আমি কখনো পরীক্ষা করে দেখেনি।যাই
মানূষ এবং অন্য প্রানীদের রক্ত কেন লাল হয়,আসুন জানার চেস্টা করি।আমাদের
শরীরের মধ্যে প্রতিটি ধমনী,শিরা ও রক্ত জালিকার মধ্যে দিয়ে সারাক্ষন যে
রক্ত প্রবাহিত হয়, তার 45%কোষ ও বাকী 55% রক্তরস (Plasma)।

এই রক্তরস তিন রকমের হয়-লোহিত রক্ত কনিকা (Red blood corpuscle) শেত রক্ত কনিকা (Wbc corpuscle) ও অনুচক্রিকা (Platelets)।

আপনার রেটিং: None

প্রবাসীর বউ! (তিন পর্বের ছোট গল্পের ১ম পর্ব)

হাঁটি হাঁটি পা পা করে চলা শিশুর মত মানুষের জীবনের শৈশবকালটাও এক
সময় পা রাখে যৌবনে! ঢেউয়ের তালে তালে গড়িয়ে যাওয়া সময় একসময় যৌবন এনে দেয়
জীবনে! এনে দেয় যৌবন বসন্তকাল! ঋতুর পূর্ণতা যেমন বসন্তে জীবনের পূর্ণতা
তেমনী যৌবনে! একটা সময় সামান্য কিছু জানার বা পাওয়ার জন্য প্রত্যেকটা
মানুষই ব্যকুল থাকে বা মানুষের মাঝে থাকে আকুল আকর্শন! বয়ষের চাপে কখনো
কখনো সেটাতে আর আকর্শন থাকেনা! কারন হাতিয়ে দেখলে পাওয়া যাবে আবেগের জন্যই
একসময় সবকিছু ভালোলাগে পেতে ইচ্ছে করে! বয়ষ বাড়ার সাথে সাথে বিবেগটাও যখন
বুঝতে শিখে তখন আর সেই আবেগের মূল্যায়ন থাকেনা! সজাগ বিবেগ আবেগকে শোধরিয়ে
নেয়! যারাই আবেগের আবেগী থেকে সময়মত বাঁচতে পেরেছে তারাই জীবনে সুখের খোজ
পেয়েছে! আবেগ ক্ষনিকের এবং বিবেগের কাছে আবেগ সবসময়ই মূল্যহীন! অনেকেই
বিবেগকে মূল্যায়ন করে আবেগকে বশ করে জীবনে সত্যিকারের ভালোবাসা পেয়েছেন! আর
যারাই আবেগের বর্শবর্তী হয়ে বিবেগকে বোকা বানিয়ে সামনে যেতে চেয়েছেন বা
গিয়েছেন তারাই ধরা খেয়েছেন!

লোপা পূর্ণ বয়ষে বাবা মায়ের সম্মতিতেই

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

"আসমাউল হুসনা প্রদর্শনী" মদীনা সফরকারীদের জন্য এক বিশেষ আকর্ষণ

معرض اسماء الله الحسنى - المدينه المنورة

মহান আল্লাহর নামসমূহ নিয়ে Exhibition বা প্রদর্শনী।

মসজিদুন্ নববীর পশ্চিমের লোহার সীমানা ঘেঁষে একটি দালান উঠি উঠি করছে বিগত বেশ ক'বছর থেকে। কিন্তু তার উঠাই শেষ হচ্ছে না। এমনটি অবশ্য এদেশে নতুন নয়; বিভিন্ন স্থানে এরকম আরো স্থাপনা দেখা যায় যেগুলো শেষ হয় না অথবা শেষ না হতেই তাদের ভেঙ্গে পড়তে হয় আঁতুড়েই। 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)

হিন্দু সন্ত্রাসবাদী

হিন্দু সন্ত্রাসবাদীরা রিতু সহ সারাদেশে মুসলিম মেয়েদের ধর্ষন করা শুরু করছে।মুসলিম মেয়েরা সস্মান বাচাতে পড়ালেখা বন্ধ করাসহ অনেকে আত্নহত্যা করছে।এত সাহস তারা কোথায় পায় সাহসের রহস্য কি সাহসের উত্‍স কোথায় বাংলাদেশের মানুষ জানে না??।আমরা জানি সাহসের উত্‍স কোথায় সেকুলার আর কমিউনিস্টরা হিন্দুদের ধর্ষনের সাহসের উত্‍স।সর্বস্তরে হিন্দুরা প্রভাব বিস্তার করে আছে প্রশাসন আদালত ব্যাংক বীমা শিক্ষকতা পুলিশ সবখানে যোগ্যতা না থাকা সত্তেও শুধু ভোট পাওয়ার লোভে তাদের বড় বড় পদ দেওয়া হয়েছে।হিন্দুদের এত সাহস বাড়ছে যে মুসলিম মেয়েদের ধর্ষন করা কর্তব্য মনে করে।হিন্দুরা সংখ্যালঘু হওয়ার পরও সংখ্যাগরিষ্ঠের মত ক্ষমতা ভোগ করছে আর মুসলিমদের নির্যাতন করছে ক্ষমতাহীন অবস্থায় রাখছে।মুসলিম রিতু হিন্দুর প্ররোচনায় আত্নহত্যা করছে এই জন্যই মানবাধিকার সংগঠন গুলো চুপ হয়ে আছে আজ যদি কোন মুসলিম এই ঘটনা ঘটাতো তখন তাদের লাফালাফির কারনে থাকা কঠিন হতো।

আপনার রেটিং: None

দিন-কালের দরজায় ঠক্ ঠক্ ঠক্

আসসালামু আলাইকুম।

কেমন আছেন সবাই? অনেক দিন ব্লগে আসা হয়নি। মাঝে
অনেক পানি গড়িয়েছে গঙ্গা-মেঘনা-যমুনা-পদ্মায়। লোহিত সাগরেও নেচেছে অনেক
ঢেউ। কিন্তু ওরা কেউ নাচাতে পারেনি অন্তর। মোহে মোহে কেটে গেছে অনেকটা কাল।
ভুলে থেকেছি, তা কখনো হয়নি। ব্লগ না লিখলেও নযরকে বুলিয়ে যেতে ভুলিনি।

পুরোনো
অনেক নাম খুঁজে খুঁজে দেখি। লেখাগুলো পড়ার চেষ্টা করি। একটা টান অনুভব
করি। নতুনদের সাথে পরিচয় হয়নি, তাই খোঁজা হয়না। নিয়মিত হতে পারলে ধীরে ধীরে
সবাই পুরোনো হয়ে যাবে। ভালো লাগে নতুন প্রতিভা দেখতে। তবে আনন্দ অনুভব করি
যখন দেখি, সত্যের পক্ষে তাদের কীবোর্ডে ঝড় উঠে। আফসোস হয় অনন্য
প্রতিভাগুলোকে যখন দেখি, জেনে বুঝে অথবা নিছক মোহের বশে মিথ্যা পক্ষাবলম্বন
করে নর্তন কুর্দন করে যায়। আহাঃ কি অসাধারণ মেধাগুলো রীতিমত ডাস্টবিনে
নিক্ষিপ্ত হচ্ছে প্রতিদিন একটু একটু করে।

একটি ব্যাপার ভেবে আজো
হাসি। শুরুর দিকে যখন ব্লগ লেখা শুরু করি, তখন ভাবতাম, ব্লগ ছেড়ে বাঁচবো কি
করে। আজো সেসব অনুভূতি নাড়া দেয় অন্তরে। অথচ জীবনের টুকরো টুকরো কাজগুলো

আপনার রেটিং: None

ঈদ বা পূজার কেনাকাটার বিকল্প সমাধান হতে পারে অনলাইন শপিং। কেনাকাটা করুন ঘরে বসে পণ্যের মূল্য যাচাই করে।

Eid and Puja Collection

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

আমি যে শুধু !!!

Smiling আমি যে শুধু,,
তোমাকেই ভালোবাসি,,
তোমাকেই চাই,,
তোমার চেহারা দেখে,,
আমি বলিনি,,
ভালোবাসি তোমায় !
আমি যে মন দিয়ে,,
তোমাকে চিনেছি,,
আমার জীবনের সবটুকু পাওয়া
আমি তোমার মাঝেই পেয়েছি ।

আপনার রেটিং: None
Syndicate content