ব্লগসমূহ

এরশাদের দাম নাই

এরশাদের কথা শুনলে হাসমু না কাদমু না জঙ্গলে বনবাসে যামু বোঝতে পারিনা।মানুষের চরিত্রের মধ্যে মুখের মধ্যে এত দ্বিমুখী নীতি থাকে এরশাদ তার উদাহরন।এরশাদের মেয়ে ভাগ্য দেখলে নিচের চুল উপরে যায় আর উপরের চুল নিচে যায়।কি কারনে যে মেয়েরা এরশাদের খপ্পড়ে পড়ে আর কেমনে যে এরশাদ মেয়ে পটায় তা গবেষনার বিষয়।এই ভরা যৌবন বয়সেও একটা মেয়েও পছন্দ করে না আর ৮৫ বছরের বুইড়া এরশাদ তার চেয়েও অনেক কম বয়সী মেয়েদের প্রেমে ফেলে নিত্যদিন।সরকারের দেওয়া চাপার জোড়ে এরশাদ বিএনপিকে বলছে ভাইরা আপনারা জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ুন।এখনো সময় আছে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যেতে চাইলে জাতীয় পার্টিতে যোগদিন।এরশাদ ও তার বউ হাপানি রোগী রওশন এরশাদ নিজ দলের নেতা কর্মীদের বহিষ্কার করতে করতে প্রায় দল খালি করে ফালায়ছে আর এখন বলছে বিএনপির লোক জাতিয় পার্টিতে যোগ দিতে।

আপনার রেটিং: None

ভারত বন্যা দেয়

উজানে গজলডোবা ব্যারেঞ্জের সব গেট খুলে দিয়েছে ভারত।এখন বর্ষাকাল তার ফলে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেয়ে তিস্তা পাড়ের গ্রামের পর গ্রাম পানিতে তলিয়ে গেছে।প্রতি বর্ষাকালে গজলডোবা ব্যারেঞ্জের সব গেট খুলে দেওয়ার ফলে অতিরিক্ত পানিতে অস্বাভাবিক বন্যা সৃষ্টি হয়।বন্যার পানিতে ফসল ঘড়বাড়ি ধ্বংস হয় গবাদি পশু নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়।কৃষক ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হয়।শুষ্ক মৌসুমে পানি দরকার তখন আমরা ফসল উত্‍পাদন করতে পানি পাই না।আমাদের পানি দেয় ভারত বর্ষাকালে।বর্ষাকালে নদীতে এমনিতেই প্রচুর পানি থাকে।ভারতের চক্রান্ত হচ্ছে বর্ষাকালে সকল ব্যারেঞ্জের গেট খুলে দিয়ে বাংলাদেশে বন্যা তৈরী করে ফসল ঘড়বাড়ি মানুষ পশুপাখির ব্যাপক ক্ষতি করা।অন্যদিকে শুষ্ক মৌসুমে সকল ব্যারেঞ্জের গেট বন্ধ করে বাংলাদেশের ফসল উত্‍পাদন বন্ধ করা।ভারত ইচ্ছাকৃত ভাবে আগাম পূর্বাভাস না দিয়ে সকল ব্যারেঞ্জের গেট খুলে দেয় যাতে আরো বেশি ক্ষতি হয়।বাংলাদেশের মিডিয়া বুদ্ধিজীবি সমাজ রাজনীতিবিদ সহ আমরা সবাই শুধু শুষ্ক মৌসুমে ভারতের পানি বন্ধ করার কথা বলি যখন বর্ষাকালে ভারত ইচ্ছাকৃত ভাবে সব গেট খুলে দিয়ে বাংলাদেশে বন্যা তৈরী করে সে ব্যাপারে আমরা সবাই ন

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

"অতীত স্মৃতি থেকে একটিদিন"

"অতীত স্মৃতি থেকে একটিদিন"

পড়ন্ত বিকেল! সূর্য ডুবতে আরো কিছুক্ষন বাকি! সকালেই জানানো হয়েছে ছেলে পক্ষ তোমাকে বিকেলে দেখতে আসবে! তুমি রেডি থেকো! সেদিন সবাই খুব চোখে চোখে রাখছে আমাকে! আমার মুখে একটু দাঁগ লাগাটাও যেন সবাই খেয়াল করছে! ফুফুরা জানতে চাইছে থ্রী পিজ কোনটা পরবো? চাচি এনে গয়না সাধছে পরার জন্য! আমি মাকে বলেছি! ওরা নতুন লোক নয়! আর ওরা এখনো আমার মাহরাম হয়নি! বারটি ছিল বুধবার! আগেই জানানো হয়েছিল ছেলের আপন কোন বোন নেই তবে পালিত বোন একজন আছে তিনি আসবেন তার দুই ছেলে আর ছেলের মা! ছেলের মা-ই সবকিছুর হর্তা কর্তা! ছেলের বাবা চুপচাপ মহিলা যা বলে তাই মেনে নেয় বিনা বাক্যে! এটা জানা হয়েছে আরো কয়েকবার এসেছিল সেভাবেই!

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3.7 (3টি রেটিং)

ইনকিলাবের চরিত্র

ইনকিলাব পত্রিকা দাবি করছে জামায়াত দ্বিমুখী নীতিতে চলছে বিরোধীদল ও সরকার দুই দিকেই ভালো সম্পর্ক রাখছে।জামায়াতকে সুবিধাবাদী ধুরন্ধর বলছে ইনকিলাব।এবার আসুন দেখি কে সুবিধাবাদী ধুরন্ধর স্বভাবের তখন প্রথমেই বলতে হয় ইনকিলাব পত্রিকা বাংলাদেশের সবচেয়ে সুবিধাবাদী ধুরন্ধর তারা সরকারের সাথে সুসম্পর্ক রাখছে ও সুযোগ সুবিধা নিচ্ছে দির্ঘদিন ধরে অন্যদিকে বিরোধী দল সর্ম্পকে অনেক মিথ্যা তথ্য দিয়েও কৌশলে তাদের কাছে আনার চেস্টা করে চলেছে।দেওয়ানবাগী রাজারবাগী মাইজভান্ডারী আটরশির পীরদের কাজ থেকে টাকা নিয়ে পত্রিকা চালাচ্ছে আর তাদের সব ভন্ডামিকে জায়েজ করছে।ইনকিলাবের এই বহুগামি চরিত্রের জন্য তারা আজ আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত।পত্রিকার বিক্রি কমে গেছে ইনকিলাবের বহুগামি সম্পর্কের কারনে।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

৪০ বছর ধরে মাকে খুঁজছে কামরুন নাহার

:sl:

৪০ বছর ধরে মাকে খুঁজছে কামরুন নাহার

আপনার রেটিং: None

আমি কিন্তু অমন না

কি মেয়ে
যেচে কথা বলেছি বলে
আর দশটার মতই ভেবে নিলে ?
আমি কিন্তু অমন না।

এই যে
একটু আগ্রহে তাকিয়েছে ঠিক আছে
ভাব ধরে তাই উঠলে তালগাছে ?
আমি কিন্তু কমন না ।

শোন মেয়ে
সৌন্দর্যে অভিভুত হয়ে ছিলাম খানিক চুপ
ভাবলে তুমি মহল্লায় বোধহয় একলাই অপরুপ !
আমি কিন্তু মদন না ।

আচ্ছা ওকে
রিক্সা ডেকে যেচে ভাড়াটা দিলাম মিটিয়ে
দেখলাম তুমি মুখ ঢেকে হাসছো মিটমিটিয়ে!
আমি অত পিচ্চি না ।

ইয়ে মানে
কলেজ গেটে বিকেল বেলায় দাঁড়াই হয়ত কিছুক্ষন
আড় চোখে আগুন গরম দৃষ্টি দাও তখন
মনে কিছু নিচ্ছি না।

গত দুপুরে
কাগজে লিখে নম্বর একটু তোমার ছাদে ছুঁড়েছি
বললে তুমি এরকম আর কতজনের সাথে করেছি
আমি এমন বিশ্রী না ।

বাসলে ভালো বড়ই ভালো
নইলে খবর আছে
প্লিজ এসব কথা ভুলেও কখনো
বলোনা বাপের কাছে !

ওকে, দুরে দাঁড়িয়েই বাসবো ভালো
ডিস্টার্ব আর করবো না
শর্ত, অন্য কোথায় তোমার বিয়ে
এটা কিন্তু মানবো না ।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

"সোনাপরি"

"সোনা পরি"

একটি দু'টি তিনটি করে চারটি বছর হলো
হাসি আর গানের কত স্মৃতি রয়ে গেলো!
যেদিন মোদের ঘরে এলো এইনা ফুলের কলি
সেদিন থেকেই অনেক ব্যথা গেলাম মোরা ভুলি!

আনন্দ আর হাসি গানে দিন যে গেলো চুপে
আমার আঁধার ঘরটা রশ্মি হলো সোনা পরির রুপে!
সোনাপরির কেমন করে চারটি বছর হলো?
হাসি আর আনন্দেতে চারটি বছর গেলো!

পিতা মাতার কত খুশি কেউ তো জানেনা
যেদির মোদের সোনাপরি বললো কালেমা!
পিতা মাতার প্রার্থনা সদাই আল্লাহরই তরে
সোনাপরি হয় যেন এধরাতে বড় আলেমা!

সকাল বিকাল প্রার্থনাতে একটি কথাই বলি
হে আল্লাহ তোমার পথে কবুল করো আমার বুকের কলি!
হয় যেন সে এই ধরাতে অনেক জ্ঞানী গুণি
তোমার খাতায় নাম লিখে দাও মস্ত বড় অলি!

সোনাপরিকে শান্ত করো তোমার কালাম দিয়ে
সে যেন দ্বীনের দায়ী হয় তোমার অনুগ্রহ নিয়ে!
দ্বারে দ্বারে পৌছবে সে তোমার নবী (সঃ) এর দাওয়াত
ভুল করলেও ক্ষমা করে দিও আবার হিদায়াত!

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (3টি রেটিং)

তোমরা যারা অলংকারকে দামী মনে করো

স্বামী স্ত্রীর সম্পর্কঃ- পৃথিবীতে এক একজনের সম্পর্ক একেক রকমের হয়! পিতা মাতার সাথে এক রকম! ভাই বোনের সাথে  একরকম! আর  স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক এমন মধুর যে পৃথিবীর আর কোন কিছুর সাথে তাদের তুলনা হয়না! স্বামী স্ত্রী এমন এক জুটি যাদের সম্পর্কের কাছে, ভালোবাসার কাছে বাকি সব সম্পর্ক তুচ্ছ বা ম্লান! তবে স্বামী স্ত্রী হলেও অনেক সময় বিপরীত সম্পর্ক ও হয়! একজন একজনকে না বুঝার কারনে! মূল্যায়ন না করার কারনে! আমি সেদিকে যাচ্ছিনা! কারন সব বস্তুরই এপিঠ ওপিঠ আছে! ভালো মন্দ আছে! আমরা যদি মন্দটাকে ভালো ব্যবহার আর ভালোবাসা দিয়ে বুঝাতে পারি তবে সেই মন্দও ভালো হয়ে যায়! সুগন্ধী ফুল হয়ে সুবাস ছড়ায়!

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (3টি রেটিং)

জেনে নিন পৃথিবীর grid লাইন ও portal সম্পর্কে বিস্তারিত anti gravity and the world Grid 1987

হুম আমার আগের এক পোস্ট ( ভিন গ্রহে ভ্রমন সত্যিই সম্ভব পৃথিবীর energy grid ও portal ব্যবহার করে কি করবেন নাকি ভ্রমন ) এ পৃথিবীর grid লাইন বা ley লাইন বা cristal লাইন ও
portal সম্পর্কে বলেছিলাম । আজকে বলব এর বিস্তারিত । প্রথম যখন পৃথিবীর
grid লাইন সম্পর্কে জানি তারপর আরো বিস্তারিত জানতে ইচ্ছা হয় । তারপর
google এ খুজতে খুজতে পেয়ে গেলাম এক বই । তাই আজকে শেয়ার করব আপনাদের সাথে ।

বইটিতে পৃথিবীর grid লাইন ও ম্যাগনেটিক energy সম্পর্কে অনেক বিস্তারিত লিখা আছে ।

আপনারা অনেকেই হয়ত জানেননা বা মানেননা যে পৃথিবী হছে একটা ম্যাগনেটিক মেশিন
। আমি বলতে চাচ্ছি পৃথিবীতে রয়েছে ম্যাগনেটিক ফিল্ড । পৃথিবী নিজেই একটি
ম্যাগনেট । বইটি পড়লে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন । আমরা এই পৃথিবী মেশিন
সম্পর্কে কতটুকু জানি ? এই ম্যাগনেটিক পৃথিবীর সাথে রয়েছে মহাবিশ্বের জটিল
সম্পর্ক ।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (2টি রেটিং)

প্রাচীন মহামানবদের মত সাধনা করে আপনিও মহা মানব হয়ে যান Osho The Book Of Secrets

বইটি ইন্ডিয়ার Osho অনলাইন লাইব্রেরি থেকে সংগ্রহ করা । প্রাচীন মহামানবেরা
কিভাবে সাধনা করত তা জানতে পারবেন এই বই থেকে । আমরা মানুষের শরীর
সম্পর্কে অনেক কথাই শুনে থাকি, কখনো এগুলো বুঝার চেষ্টা করেছেন ? আজ হবে
সেই চেষ্টা । এই মহাবিশ্শেয়্ আমাদের অবস্থান কোথায় ?

মানুষের শরীর ও আত্মা কি একই ? আত্মার ক্ষমতা কে কিভাবে জাগ্রত করতে হয় ।
আমদের মন কি, মন ও ব্রেন কি একই সাথে কাজ করে ? প্রাচীন মহামানবেরা যেভাবে
সাধনা করত আমরা কি টা জানি ? নাকি শুধু শুনেই থাকি আর তাদের মহামানব মনে
করি ?

এর পিছনে কি আছে কোনো সাইন্স ? আমরা অনেকেই মেডিটেশন করতে পছন্দ করি কিন্তু
মেডিটেশন কি আমাদের সাফল্য এনে দেয় ? যদি না আমরা নিজেদের কেই চিনতে না
পারি তাহলে মেডিটেশন করব কিভাবে ?

attention : এই বইটি তে এমন কিছু প্রাকটিস আছে যার অনুশীলন বিপদজনক হতে

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (2টি রেটিং)
Syndicate content