'অর্ণব' -এর ব্লগ

কোরবানির পশুর হাট

প্রতিবছরের মতো এবারও রাজধানী ঢাকায় পর্যাপ্তসংখ্যক পশুর
হাট প্রস্তুত করা হয়েছে। দুই সিটি করপোরেশনের মধ্যে দক্ষিণে ১৩টি ও উত্তরে আটটি পশুর
হাট বসছে। রাজধানীর পশুর হাটগুলোর একটি বাদে সব কটিই স্থায়ী। এসব হাটে পশু আসতে শুরু
করেছে। উৎসাহী ক্রেতাদের অনেকেই হাটে গিয়ে কোরবানির পশু দেখে আসছেন। মূল কেনাবেচা এখনো
শুরু হয়নি। দুই সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে হাসিল নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। রাজধানীতে
এবার ৯টি হাট বেড়েছে। এতে কোরবানির পশু কেনার ব্যাপারে নগরবাসীর ভোগান্তি অনেক কমবে।
তবে এবার হাটে সিসি ক্যামেরা ও জাল নোট শনাক্তকরণ যন্ত্রসহ আনুষঙ্গিক সুবিধা নিশ্চিত
করার দায়িত্ব ইজারাদারদের। রাজধানীর পশুর হাটগুলোয় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে কোরবানির
পশু আসে। দেখা যায় কোরবানির ঈদ সামনে রেখে কিছু মহল প্রতিবছর সক্রিয় হয়ে ওঠে। একটি
চক্র হাটে জাল টাকা ছড়িয়ে দেয়। এই জাল টাকা চিনতে না পেরে ক্রেতা-বিক্রেতা উভয় পক্ষই

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

বিএনপি সরকারের ব্যর্থতা (১৯৯১-১৯৯৬)- ২/২

খালেদা জিয়া সরকারের সূচনালগ্নে এ দেশের জনগণের
প্রত্যাশা ছিল বাংলাদেশ এবার হয়তো স্থায়ীভাবে রাজনৈতিক সংকট থেকে মুক্তি পাবে। দেশে
সামরিক শাসনামলের সমাপ্তি ঘটায় এবার সত্যিকারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে। কিন্তু
অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার ফলে দেশে পুনরায় রাজনৈতিক অচলাবস্থাসহ বিভিন্ন ধরনের
সমস্যা দেখা দেয়। ঐ সব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার উদ্ভব খালেদা জিয়া সরকারের ব্যর্থতারই
পরিচয় বহন করে।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

বিএনপি সরকারের ব্যর্থতা (১৯৯১-১৯৯৬)- ১/২

খালেদা জিয়া সরকারের সূচনালগ্নে জনগণের প্রত্যাশা
ছিল বাংলাদেশ এবার স্থায়ীভাবে রাজনৈতিক সংকট থেকে মুক্তি পাবে। সামরিক শাসনামলের সমাপ্তি ঘটবে এবং সত্যিকারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত
হবে। কিন্তু অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার ফলে পুনরায় দেশে রাজনৈতিক অচলাবস্থাসহ
বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা যায়। এসব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার উদ্ভব খালেদা জিয়া সরকারের
ব্যর্থতার পরিচয় বহন করে।

 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

নেশামুক্ত থাকুক তরুণ প্রজন্ম

মাদক ও নেশামুক্ত তরুন সমাজ দেশ ও জাতি গঠনের জন্য খুবই প্রয়োজন। সমাজ
মাদক মুক্ত হলে অনেক অপরাধ থাকবে না। তাই মাদকের বিরুদ্ধে সকলকে সোচ্চার হতে হবে।
মাদক দেশের চলমান উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করছে এবং আমাদের তরুণ প্রজন্মকে ধ্বংসের পথে
নিয়ে যাচ্ছে। তামাক থেকে দেশে যে পরিমাণ রাজস্ব আদায় হচ্ছে, ক্ষতির পরিমাণ তার
থেকে অনেক বেশি। তাই শুধুমাত্র আইন করে, ট্যাক্স বৃদ্ধি করে তামাকের ব্যবহার বন্ধ করা যাবে না। এজন্য চাই

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

আশ্রয়কেন্দ্রে ব্যতিক্রমী কর্মব্যস্ততা

 

আপনার রেটিং: None

আশ্রয়কেন্দ্রে ব্যতিক্রমী কর্মব্যস্ততা

বন্যায় ডুবেছে গ্রাম, গ্রামের বাসিন্দারা আশ্রয় নিয়েছেন আশ্রয়কেন্দ্রে।
তবুও জীবন থেমে নেই। তাঁরা নেইবসে,
কারও সাহায্যের আশায়। আশ্রয়কেন্দ্রে বসেই তাঁরা বাঁশ দিয়ে বিভিন্ন জিনিসপত্র
তৈরি করে দুবেলাপেটভরে খাবার খাচ্ছেন। ব্যতিক্রমী এই দৃশ্য রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার ঘনিরামপুর বড়গোলা উচ্চবিদ্যালয়

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

রিজার্ভ ফের ৩৩ বিলিয়ন ডলার

অর্থবছরের শুরুতে রেমিটেন্স ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে
ভর করে ১৭ বছরের মাথায় বাংলাদেশ ব্যাংকের বিদেশি মুদ্রার ভাণ্ডার ফের তিন হাজার
৩০০ কোটি (৩৩ বিলিয়ন) ডলার ছাড়িয়েছে। চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে
রেমিটেন্স ১১ শতাংশ বেড়েছে। গত অর্থবছরে রপ্তানি আয়ে কম প্রবৃদ্ধি হলেও (১.১৬
শতাংশ) জুলাই মাসে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২৬ শতাংশের বেশি। গত কয়েক বছর ধরে
ধারাবাহিকভাবে বাড়ছে রিজার্ভ। গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর অর্থনীতির অন্যতম প্রধান এই
সূচক ৩১ বিলিয়ন ডলার ছাড়ায়। ৪ নভেম্বর ছাড়ায় ৩২ বিলিয়ন ডলার। গত ২২ জুন অতীতের সব
রেকর্ড ছাপিয়ে রিজার্ভ ৩৩ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করে। নতুন অর্থবছরে রেমিটেন্স ও
রপ্তানি আয় বাড়ার কারণেই বাড়ছে রিজার্ভ।

আপনার রেটিং: None

মনপুরায় স্বাস্থ্য সেবায় নৌ এ্যাম্বুলেন্স

 

 

আপনার রেটিং: None

বেহাল দশা

 

আপনার রেটিং: None

দেশেই তৈরি হচ্ছে যাত্রীবাহী রেল কোচ

 

আপনার রেটিং: None
Syndicate content