'অর্ণব' -এর ব্লগ

অর্থ বানিজ্যের রহস্য ফাঁস

আগামীকাল
শেষ হচ্ছে বিএনপির দুই মাস জুড়ে নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসুচী নাটক। তাদের
লক্ষ্যমাত্রা ছিলো এক কোটি সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন। মাত্র দুই মাসে ১০ টাকা করে

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (টি রেটিং)

ফিরে পাচ্ছে পাটের সোনালী সত্ত্বা

দেশের অর্থনীতিতে একসময় পাটের
অবস্থান ছিল প্রাণ ভোমরার মতো। স্বাধীনতার আগে বৈদেশিক মুদ্রার সিংহভাগ
আসত পাট ও পাটজাত পণ্য রপ্তানি থেকে। দেশের শিল্প খাতও ছিল অনেকটাই পাট

আপনার রেটিং: None

বিদ্যুতের চাহিদা পুরনে বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ

ক্রমবর্ধমান চাহিদার সাথে
সাথে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন বেড়েছে। মানুষের চলার ক্ষেত্রে, উন্নয়নের ক্ষেত্রে
বিদ্যুতের বিকল্প নেই। বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নের জন্য প্রতিটা সেক্টরে কাজ করে
যাচ্ছে। মাত্র কয়েক বছরের ব্যবধানে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন বেড়েছে কয়েক গুন,
তবুও চাহিদা মেটানো সম্ভব হয়নি। দেশের মানুষের বিদ্যুতের চাহিদা পুরণে সরকার
নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সে লক্ষ্যে পরিকল্পনাও গ্রহন করেছে ইতোমধ্যে। আগামী ৯ মাসের মধ্যে তিন হাজার মেগাওয়াট নতুন
বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করতে চায় সরকার। নির্বাচন এবং আগামী গ্রীষ্মকে সামনে রেখে
নতুন এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। নতুন এসব বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণকে
অগ্রাধিকার তালিকায় রেখে পরিকল্পনা সাজানো হচ্ছে। দেশীয় উৎস থেকে তেলচালিত এসব
বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য অর্থ সংগ্রহ করা হবে। ইতোমধ্যে এসব বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য
প্রস্তাব জমা নেয়া শুরু হয়েছে। বিনা দরপত্রে দরকষাকষির মাধ্যমে এসব বিদ্যুৎ
কেন্দ্রের ইউনিটপ্রতি দাম নির্ধারণ করা হবে। সম্প্রতি দেশের সরকারী-বেসরকারী
ব্যাংকগুলোকে এসব প্রকল্পে বিনিয়োগের জন্য আহ্বান জানিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। আগামী

আপনার রেটিং: None

জনগণের পক্ষের ও বিপক্ষের সরকার

রাষ্ট্রপরিচালনার
দায়িত্বে থাকা গণরায়ে নির্বাচিত বর্তমান গণতান্ত্রিক সরকার একটি জন ও উন্নয়ন
বান্ধব সরকার। অপর দিকে সাবেক বিএনপি সরকার ছিল ব্যক্তিবান্ধব ও উন্নয়ন বিরোধী
সরকার। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসায় পরপরই দেশের স্বার্থ রক্ষার্থে নাইকো নামের
বহুজাগতিক কোম্পানীটির কোনো দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেয়নি আর বিএনপি সরকার নাইকোর
দুর্নীতিকে সাদরে গ্রহণ করেছিল নিদিষ্ট কিছু ব্যক্তির স্বার্থে। এটাই বর্তমান
সরকার এবং বিএনপি সরকারের মধ্যে পার্থক্য। দুর্নীতি, অস্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় চুক্তি এবং
অদক্ষতার কারণে সুনামগঞ্জের টেংরাটিলায় দুই দফা দুর্ঘটনায় বিপুল পরিমাণ গ্যাস পুড়ে
যাওয়াসহ নানা অভিযোগে বাংলাদেশে কানাডীয় প্রতিষ্ঠান নাইকো রিসোর্সেসের কর্মকাণ্ড
অনেক দিন ধরেই প্রশ্নবিদ্ধ। কানাডার আদালতেও বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠানটির দুর্নীতি
প্রমাণিত হয়েছে এবং বিপুল অঙ্কের জরিমানা করা হয়েছে। এবার বাংলাদেশের উচ্চ আদালতেও

আপনার রেটিং: None

জালনোট প্রতিরোধে নানামুখী সরকারি উদ্যোগ

কোরবানির
ঈদকে সামনে রেখে সক্রিয় হয়ে উঠছে দেশের জাল টাকার কারিগররা। তাই কোরবানির ঈদ যত
ঘনিয়ে আসছে সাধারণ মানুষের মধ্যে জাল টাকার আতঙ্কও বাড়ছে। এ ধরনের ভোগান্তি থেকে
সাধারণ মানুষকে রক্ষা করতে জাল নোট শনাক্তকারী মেশিন সরবরাহসহ বেশকিছু উদ্যোগ
গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। রাজধানী ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরের পশুর হাটগুলোতে জাল
নোট শনাক্তকারী মেশিন সরবরাহ করা হবে। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে
জোরালো মনিটরিং করা হবে। পাশাপাশি আসল নোট চেনার উপায় সংবলিত বিজ্ঞাপন সংবাদপত্র
এবং টিভি চ্যানেলগুলোতে প্রচারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া এ ধরনের অপরাধের সঙ্গে
জড়িতদের ধরতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরাও তৎপর রয়েছে। জালনোট প্রতিরোধে দেশের
বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে পোস্টারিং করাসহ বেশ কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে
এটিএম মেশিনে টাকা ঢোকানোর আগে তা পরীক্ষা করার জন্য ব্যাংকগুলোকে পরামর্শ দেয়া

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে গর্বিত মেধাবী শিক্ষার্থীরা

দেশের শিক্ষিত মেধাবিরা
অত্যন্ত  গর্বিত যে, লেখাপড়া শেষ করে
নিজের দেশের পাওয়ার প্ল্যান্টে কাজ করার সুযোগ পাবে। ঈশ্বরদীর রূপপুরে
নির্মাণাধীন পারমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্প পরিদর্শনে এসে রাশিয়ায় নিউক্লিয়ার বিষয়ে
অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা এই অভিব্যক্তি ব্যক্ত করেছেন।  বর্তমান সরকার রাশিয়ায় শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার
সুযোগ করে দিয়ে আমাদের আত্মবিশ্বাসী হতে সহযোগিতা করেছে। এজন্য  শিক্ষার্থীরা রাশিয়ান শিক্ষকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (2টি রেটিং)

উন্নয়নের পথে একধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ

অবকাঠামোগত
উন্নয়নের মধ্য দিয়ে বর্তমান বিশ্বে একটি দেশ ক্রমাগত অপর একটি দেশকে ছাড়িয়ে
যাচ্ছে।  কেননা যে  দেশ অবকাঠামোগত দিক  থেকে যত  বেশি আধুনিক ও উন্নত, সে  দেশ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ঠিক ততটাই এগিয়ে। এদিক থেকে উন্নত দেশগুলোর থেকে 
বেশ পিছিয়ে থাকলেও, বর্তমান সরকার বিভিন্ন
প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শক্ত অবস্থানে নিয়ে

আপনার রেটিং: None

কোরবানির পশুর হাট

প্রতিবছরের মতো এবারও রাজধানী ঢাকায় পর্যাপ্তসংখ্যক পশুর
হাট প্রস্তুত করা হয়েছে। দুই সিটি করপোরেশনের মধ্যে দক্ষিণে ১৩টি ও উত্তরে আটটি পশুর
হাট বসছে। রাজধানীর পশুর হাটগুলোর একটি বাদে সব কটিই স্থায়ী। এসব হাটে পশু আসতে শুরু
করেছে। উৎসাহী ক্রেতাদের অনেকেই হাটে গিয়ে কোরবানির পশু দেখে আসছেন। মূল কেনাবেচা এখনো
শুরু হয়নি। দুই সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে হাসিল নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। রাজধানীতে
এবার ৯টি হাট বেড়েছে। এতে কোরবানির পশু কেনার ব্যাপারে নগরবাসীর ভোগান্তি অনেক কমবে।
তবে এবার হাটে সিসি ক্যামেরা ও জাল নোট শনাক্তকরণ যন্ত্রসহ আনুষঙ্গিক সুবিধা নিশ্চিত
করার দায়িত্ব ইজারাদারদের। রাজধানীর পশুর হাটগুলোয় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে কোরবানির
পশু আসে। দেখা যায় কোরবানির ঈদ সামনে রেখে কিছু মহল প্রতিবছর সক্রিয় হয়ে ওঠে। একটি
চক্র হাটে জাল টাকা ছড়িয়ে দেয়। এই জাল টাকা চিনতে না পেরে ক্রেতা-বিক্রেতা উভয় পক্ষই

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

বিএনপি সরকারের ব্যর্থতা (১৯৯১-১৯৯৬)- ২/২

খালেদা জিয়া সরকারের সূচনালগ্নে এ দেশের জনগণের
প্রত্যাশা ছিল বাংলাদেশ এবার হয়তো স্থায়ীভাবে রাজনৈতিক সংকট থেকে মুক্তি পাবে। দেশে
সামরিক শাসনামলের সমাপ্তি ঘটায় এবার সত্যিকারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে। কিন্তু
অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার ফলে দেশে পুনরায় রাজনৈতিক অচলাবস্থাসহ বিভিন্ন ধরনের
সমস্যা দেখা দেয়। ঐ সব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার উদ্ভব খালেদা জিয়া সরকারের ব্যর্থতারই
পরিচয় বহন করে।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

বিএনপি সরকারের ব্যর্থতা (১৯৯১-১৯৯৬)- ১/২

খালেদা জিয়া সরকারের সূচনালগ্নে জনগণের প্রত্যাশা
ছিল বাংলাদেশ এবার স্থায়ীভাবে রাজনৈতিক সংকট থেকে মুক্তি পাবে। সামরিক শাসনামলের সমাপ্তি ঘটবে এবং সত্যিকারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত
হবে। কিন্তু অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার ফলে পুনরায় দেশে রাজনৈতিক অচলাবস্থাসহ
বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা যায়। এসব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার উদ্ভব খালেদা জিয়া সরকারের
ব্যর্থতার পরিচয় বহন করে।

 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)
Syndicate content