হেলথ্ তথ্য: হেঁচকি বন্ধ করার উপায়

হেঁচকি উঠলে দাদী নানীরা নানা কারণ বললেও সমবয়সীরা তেড়ে এসে বলতো- নিশ্চয়ই চুরি করে কিছু খেয়েছিস্। ব্যাপারটি আমারো জানা ছিল না আসলে হেঁচকি উঠলে কি করা উচিত। কখনো কখনো কারো হেঁচকি দেখলে পানি খাওয়ার পরামর্শ দিতাম। কাজ হতো আবার হতো না। আজ একটি হেলথ্ টিপস্ নজরে পড়লো তাই শেয়ার করলাম।

হঠাৎ করে হেঁচকি ওঠা প্রায়ই খুব বিব্রতকর। অথচ একবার হেঁচকি উঠলে তা যেন কোনোভাবেই বন্ধ হতে চায় না। তখন বিরক্তি লাগে। কিন্তু কিছু নিয়ম মেনে চললেই আপনা-আপনি হেঁচকি বন্ধ হয়ে যায়। নিয়মগুলো হলো­ কাগজ অথবা পলিথিন ব্যাগ মুখের সামনে এনে এর ভেতর আস্তে মুখটা ঢুকিয়ে দিন। এতে আপনার রক্তে কার্বন-ডাই অক্সাইডের মাত্রা বেড়ে যাবে। রক্তে কার্বন-ডাই অক্সাইডের পরিমাণ কমে যাওয়ার কারণেই সাধারণত হেঁচকি ওঠে। এরপর আরেকটা উপায় হচ্ছে খুব জোরে নিঃশ্বাস নিয়ে কমপক্ষে ১০ মিনিট মুখ বন্ধ করে রাখুন। এরপর নিঃশ্বাস না ছেড়ে আবার শ্বাস গ্রহণ শুরু করুন। এতে হেঁচকি বন্ধ হয়ে যাবে। কারণ নিঃশ্বাস না ছেড়ে আবার গ্রহণ করলে ফুসফুসে কার্বন-ডাই অক্সাইডের মাত্রা বেড়ে যায়।

সূতা: নয়াদিগন্ত

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3.3 (4টি রেটিং)

সত্যি মিথ্যা জানিনা তবে, চমকে দিতে পারলে নাকি  হেচকি বন্ধ হয়ে যায় Tongue out

ধন্যবাদ তথ্যের জন্য।

তবে চমকে দিয়েও ট্রাই করতে পারি Smiling যদি কাজ হয়ে যায়। আবার হার্টফেল করবে না তো?

-

সূর আসে না তবু বাজে চিরন্তন এ বাঁশী!

ধন্যবাদ।

-

"নির্মাণ ম্যাগাজিন" ©www.nirmanmagazine.com

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3.3 (4টি রেটিং)