আওয়ামীলীগের আমলে ইসলামকে নিয়ে কঠুক্তির কিছু নমুনাঃ

1. তথাকথিত আল্লাহর শাসন দিয়ে কিছু হবেনা--সৈয়দ আশরাফ!
2. আগামীতে ক্ষমতায় আসলে রাষ্ট্রধর্ম ইসলামও তুলে দেব-- সুরঞ্জিত (( কালো বিড়াল))
3.কোরআনের তাফসিরের প্রকাশনা বন্ধ করতে হবে --ইফা ডিজি!
4.আগামীতে ক্ষমতায় এলে ধর্মের ছায়াটুকুও মুছে ফেলা হবে-- সাজেদা চৌধুরী!
5.ধর্ম হল নেশার মত--আব্দুল লতিফ (পাট মন্ত্রী)
6.রাসুল (সাঃ)কে কটুক্তি করা স্বাভাবিক বিষয়,এটা নিয়ে হৈচৈ করা ঠিক নয়-- তথ্যমন্ত্রীইনু!
7.রাসুল (সাঃ) হিন্দুদের পূজার জন্য মসজিদের অর্ধেক জায়গা ছেড়ে দিয়েছিলেন--ধর্ম প্রতিমন্ত্রী!
8.রাসুল সাঃ ধর্মনিরপেক্ষ ছিলেন-- আওয়ামী এমপি বাদল!
9.মা দূর্গা গজে চড়ে এসেছিলেন বলে এবার ফলন ভালো হয়েছে-- শেখ হাসিনা!
10.গ্রামগন্জে ইসলামিক জলসা বন্ধকরতে হবে-- পঙ্কজ দেবনাথ!
12.মেয়েদেরকে বোরকার হাতথেকে রক্ষা করতে হলে,তাদের নাচগান শিক্ষা দিতে হবে-- হাসান মাহমুদ (বনমন্ত্রী)
13.বোরকার ব্যবহার ৫০০%বেড়েগেছে,বন ্ধ করতে হবে-- সজিব ওয়াজেদ জয়!
14.সেনাবাহিনীতেকওমী মাদ্রাসারছেলে বেড়ে গেছে,কমানোর আন্দোলন শুরু করে দিয়েছি- সজিব ওয়াজেদ জয়!
15. ২৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশে হিন্দু প্রধানমন্ত্রী চাই-সজিব ওয়াজেদ জয়!
16.সেনাবাহিনী থেকে ইসলামপন্থীদের বিতাড়িত করতে হবে--সজিব ওয়াজেদ জয়!
17.কুৎসিত চেহারা ঢাকতেই মেয়েরা বোরকা পরে-- ডেপুটি স্পীকার!
18.আমি মুসলিমও নই হিন্দুও নই-- সৈয়দ আশরাফ!
19.বঙ্গবন্ধু মদ জুয়া হারাম করেছেন-- নৌমন্ত্রী!
20.কওমী মাদ্রাসার ছেলেরা কিচ্ছুজানেনা,উজবুক,এরা শুধু মুখস্থ করে-- আবুল মাল আব্দুল মুহিত!
21.কওমি মাদ্রাসাগুলো জঙ্গী প্রজনন কেন্দ্র-- আইনমন্ত্রী!
22.ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজি; সে ওলামাগনের সম্মেলনে নাচ- গানের জলসা আয়োজন করে এবং বলে,ইসলামে এত সন্ত্রাসীআছে, যা অন্যধর্মে নেই!
.
এছাড়াও রাতের আধারে আলেমদের উপর নির্মম গণহত্যা চালানো,ইসলাম বিরোধী নারী ও শিক্ষা নীতি আইন পাশ,ইসলামী সভা সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ ও নাস্তিকদের ছত্রছায়া প্রদান করা!..
.
০১. শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৫৫ সালে তাদের দলের নাম আওয়ামী মুসলিম লীগ শব্দ থেকে ‘মুসলিম’ বাদ দিয়ে শুধু আওয়ামী লীগ করে ।
০২. চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোগ্রাম থেকে "ইকরা বিসমি রাব্বিকাল্লাজি খালাক" অর্থঃ"পড় সে প্রভুর নামে, যিনি তোমায় সৃষ্টি করেছেন" কোরআনের এই আয়াত তুলে দেন, ধর্মীয় শব্দ বলে
০৩. শেখ মুজিবুর রহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরমনোগ্রাম থেকে"রাব্বি জিদনী ঈলমা" অর্থ "প্রভু আমায় জ্ঞান দাও" কোরআনের এই আয়াতটিও তিনি তুলে দেন তার প্রচন্ড ক্ষমতা বলে ধর্মীয় শব্দের অযুহাতে
০৪. কবি নজরুল ইসলাম কলেজ থেকে ‘ইসলাম’ বাদ দিয়েকবি নজরুল কলেজ করা হয় অপবাদ দেন ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গির
০৫. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমূল্লাহ মুসলিম হল থেকে ‘মুসলিম’ শব্দ বাদদিয়ে সলিমূল্লাহ হল করা হয়, যা এখনও বিদ্যমানঅপবাদ ইসলাম ধর্মেরঅথচ ভারতের মত কট্টর তথাকথিত ধর্মনিরপেক্ষতাবাদী দেশে ২০০শত বছরের পুরানো বিদ্যাপীঠ আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালেয় নামের সাথে মুসলিম শব্দ আজও টিকে আছে
০৬. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের "আল্লামা ইকবাল হলের" নাম পরিবর্তন করে"সূর্যসেন হল" করা হয়।
০৭. ধর্মনিরেপেক্ষতার অজুহাত তুলে সংবিধান থেকে বিসমিল্লাহর মত ছোট্ট একটি কোরআনের আয়াতকেও সহ্য করতে পারেনি ।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)