সোনালী ব্যাঙের গল্প

যদি কাউকে প্রশ্ন করা হয় পৃথিবীর সবচেয়ে বিষাক্ত (বিষের তীব্রতায়) প্রাণী কোনটি?

সবাই হয়তো বিভিন্ন সাপের নাম বলবেন। কিন্তু পৃথিবীর সবচেয়ে বিষাক্ত প্রাণীটি হলো, অত্যন্ত সুন্দর দেখতে সোনালী রঙয়ের এক প্রকার ব্যাঙ। যার নাম বিষাক্ত সোনালী বাণ ব্যাঙ বা Golden Poison Dart Frog বৈজ্ঞানিক নাম Phyllobates terribilis
এটি Dendrobatidae গোত্রের এক প্রকার উভচর প্রাণী এবং কলম্বিয়ার রেইন ফরেস্টে এদের বসবাস।

এই ব্যাঙয়ের বিষ এত তীব্র যে এক মিলিগ্রাম বিষ দশ হাজার (১০,০০০) ইঁদুর বা বিশ জন ২০ জন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ অথবা ২ টা হাতী মারার জন্য যথেষ্ট। এবং একগ্রাম বিষ দিয়ে পনের হাজার (১৫,০০০) মানুষ মারা যাবে।
আদিবাসীরা এই ব্যাঙয়ের বিষ তীরের ফলায় ব্যবহার করে শিকার করে থাকে। তাই এর নাম দেওয়া হয়েছে বাণ ব্যাঙ বা Dart Frog.
অবাক হলেও সত্য যে, এই বিষ কিন্তু ব্যাঙ নিজে তৈরি করে না বরং প্রকৃতিতে বিভিন্ন বিষাক্ত পোকামাকড় খাওয়ার ফলে এবং ত্বকের গ্রন্থি দিয়ে নিঃসৃত হওয়ার ফলে তার ত্বকে এই বিষ জমা হয়।
বিষ এত মারাত্মক হলেও এই ব্যাঙ কিন্তু অন্য প্রাণী শিকারে এর ব্যাবহার করে না বরং আত্মরক্ষায় ব্যাবহার করে। তার দেহের উজ্জ্বল সোনালী রঙ শত্রুকে জানান দেয় যে আমার কাছে এসো না আমি কিন্তু বিষাক্ত।
অপ্রাপ্ত বয়স্ক অবস্থায় এদের শরীরে কোন বিষ থাকে না এবং দেহের রঙও উজ্জ্বল সোনালী হয় না। এমনিভাবে এদেরকে বন্দী অবস্থায় রাখলে এবং প্রকৃতির স্বাভাবিক খাবার থেকে দূরে রাখলেও শরীরে বিষ তৈরি হয়না।
এরা অত্যন্ত সামাজিক জীব এবং বন্য জীবনে দলবদ্ধ হয়ে বাস করে। সন্তানদের যত্নে এরা অত্যন্ত মহৎ ভূমিকাও পালন করে থাকে। খুব সুরক্ষিত লুকানো জায়গায় ডিম পাড়ে, অপ্রাপ্ত বয়স্ক লার্ভাকে পিঠে বহন করে বেড়ায় ও খাবার সংগ্রহ করে খাওয়ায় ও বড় করে তুলে।

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None