সেইতো মল খসালি, তবে কেন লোক হাসালি?

বাংলাদেশ সরকার ব্যাপক সমালোচনার মুখে অবশেষে সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট
ফেসবুক খুলে দিয়েছে। ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেটওয়ে প্রতিষ্ঠান ম্যাঙ্গো
টেলিকম সার্ভিসেস-এর ব্যবস্থাপনা পরিচারক মীর মাসুদ কবীর গতরাতে
জানিয়েছেন, বিটিআরসির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল জিয়া আহমেদের নির্দেশে রাত
১১টা ৩৮ মিনিটে সাইটটি খুলে দেয়া হয়েছে।
গত ২৯ মে রাতে ফেসবুক
সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয় সরকার। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন
(বিটিআরসি), বাংলাদেশ টেলিকমিনিউকেশনস কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) ও
ম্যাঙ্গো টেলি সার্ভিসেসকে চিঠি দিয়ে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত
ফেসবুক বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়। ফেসবুক বন্ধ করার যুক্তি হিসেবে ঐ সময়
বিটিআরসি'র চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল জিয়া আহমেদ বলেছিলেন,‘ধর্মীয়
অনুভূতিতে আঘাত হানতে পারে এমন কিছু ব্যঙ্গচিত্র ও ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করা
হচ্ছিল। এসব ব্যঙ্গচিত্র যাতে প্রকাশ না হতে পারে, সে কারণে বিটিআরসি এর
শাখা লিঙ্কগুলো বন্ধ করার চেষ্টা করছিল। কিন্তু এটা করতে না পারায় সরাসরি
ফেসবুকই বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।' কিন্তু মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশিত হয়
যে,প্রধানমন্ত্রীর ব্যঙ্গচিত্র ফেসবুকে প্রকাশিত হওয়ার কারণেই এটি বন্ধ
করা হয়েছে। তবে ফেসবুক বন্ধ করার পর সরকার তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে।

সমালোচনার মুখে সরকার এক সপ্তাহের মাথায়  ফেসবুক খুলে দেয়ায় অনেকেই বলছেন, ''সেইতো মল খসালি, তবে কেন লোক হাসালি?'' 

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (6টি রেটিং)

মেজর জেনারেল জিয়া আহমেদ আমাকে হাসালেন। ফেসবুকের যে পেজটির জন্য বিশ্বে এত তোলপাড় হলো এবং পাকিস্তানের আদালত সরকারকে ফেসবুক ব্যান করার নির্দেশ দিল, সেটির ওউনারগণ বাংলাদেশ ব্যান করার আগেই পেজটি নামিয়ে দিয়েছিলেন।

সরকার হাসির খোরাক হল

কয়েকদিন পর দেখবেন, আমার দেশও পুনঃপ্রকাশ হচ্ছে।

শিরোনামটা দেখে অনেকক্ষণ হাসলাম। Smiling
আওয়ামী সরকারের সরকারের জন্য যথার্থ একটা শিরোনাম নির্বাচন করেছেন।

কাষ্টার দাদা। কি চটকদার শিরোনাম দিলেন। হাঃ হাঃ

বেকায়দায় পড়া ডিজিটাল সরকারের জন্য সুযোগ্য হেডিং।

-

আড্ডার দাওয়াত রইল।

> > > প্রতি শুক্রবার আড্ডা নতুন বিষয়ে আড্ডা শুরু হবে।

হুমম

ডিজিটাল সরকারের কর্মকান্ড দিন দিন ডিজি-টাল হয়ে পড়েছে।

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (6টি রেটিং)