♦♦ক্ষেতে ক্ষেতে পুইরা মরি,রে ভাই পাছায় জোটেনা ত্যান্যা বৌ-এর পৈছা বিকায় তবু ছেইলা পায়না দানা ♦♦♦

♦♦♦ক্ষেতে ক্ষেতে পুইরা মরি,রে ভাই
পাছায় জোটেনা ত্যানা
বৌ-এর পৈছা বিকায় তবু
ছেইলা পায়না দানা ♦♦♦
২১.০৫.২০১৫ | ১৪:৫২:২৩
আবু সায়েম শান্ত :
কৃষকের পাছায় ত্যানা না জোটারই কথা। কেননা,বর্তমান সময়ে কৃষকদের পরিশ্রমের কোন মূল্য নেই।
তিন মাস আগে যখন কৃষকেরা স্বপ্ন বুনেছিলেন তাদের সোনালী ধানের ফসল নিয়ে। ঠিক তিন মাস পরে বর্তমান সময়ে ফসলের মাঠ কৃষকদের কাছে বিশফোড়া হয়ে উঠেছে।
আবার যারা বর্গা চাষ করেছিলেন তাদের আরও দূরাবস্থা। লাভের আসায় ঋন করে অনেকেই ধান চাষ করেছিলেন। বর্তমান ধানের মূল্য বেশি না থাকায় অনেকে ফসলের মাঠ বন্দক রেখে ঋন পর্যন্ত শোধ করছেন।
এক কৃষকের সাথে আলাপকালে জানা যায়,তিনি বিঘা তিনেক জমি চাষ করেছিলেন। প্রতি বিঘা জমির ধান কাঁটতে ও মাড়াই করতে কৃষি শ্রমিকদের দিতে হয় ২৩০০-২৫০০ টাকা। আবার বর্তমানে ধানের মূল্য ৪০০-৪৩০ টাকা। প্রতি বিঘা জমি চাষ করতে মোট খরচ হয় ৭-৮ হাজার টাকা। এক বিঘা জমিতে ধান হয় ১৫-২০ মণ। সেই হিসাবে প্রতি বিঘা জমিতে ধানের বর্তমান বাজারমূল্য ৫-৬ হাজার টাকা। এ হিসাবে প্রতি বিঘা জমিতে লোকসান ১-২ হাজার টাকা। ধান চাষ করার সময় আশা করেছিলেন,নিজের আর্থিক অবস্থা স্বচ্ছল করবেন ফসল কাটার মাধ্যমে। কিন্তু সে আসায় গুড়েবালি।
তিন মাস ঝড়,রোদ-বৃষ্টি উপেক্ষা করে কৃষকদের যখন এই অবস্থা।
তখন কৃষকের পাছায় ত্যানা না জোটারই কথা।

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (টি রেটিং)

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (টি রেটিং)