IELTS নিয়ে কিছু টিপস

আমরা তো
হাবিজাবি কত কাজেই না সময় এবং পয়সা দুটোই নষ্ট করি । কিন্তু এই সময় এবং অর্থের
সঠিক ব্যবহার জীবন বদলে দিতে পারে । তেমন একটি বিষয় হল IELTS । আপনি যদি IELTS নিয়ে খুব বেশি কিছু জেনে না থাকেন, তাহলে একটি ব্যাপার জেনে রাখুন, IELTS এর একটি ভালো স্কোর যেকোন স্থানে আপনার গ্রহনযোগ্যতা হাজারগুণে বাড়িয়ে
দিতে পারে । 

ইংরেজিতে আমরা
কমবেশি সবাই একটু দুর্বল । IELTS পরীক্ষার দ্বারা আপনি একদিক দিয়ে আপনার ইংরেজির উপর দক্ষতা প্রমাপ
করতে পারেন, অপরদিকে সফল প্রস্তুতির মাধ্যমে দুর্বলতা দূর করতে পারেন । যদিও
বিষয়টি খুব সহজ নয় । কিন্তু ইংরেজি শেখার আগ্রহ এবং ভালো স্কোর করার তীব্র ইচ্ছা আপনাকে
ইংরেজি ভাষা নিয়ে ভবিষ্যতে দুঃশ্চিন্তা মুক্ত রাখবে ।

তবে সত্যি
বলতে, IELTS পরীক্ষায় অনেক সময় ভালো স্কোর
চাইলেও পাওয়া যায় না ।এর একমাত্র কারণ হল অতিরিক্ত মানসিক চাপ । আমি এটা আমার
নিজের ক্ষেত্রে তো দেখেছিই এবং অনেক বন্ধু কেও দেখেছি এই সমস্যায় পরতে । অনেক মডেল
টেস্ট দিলেও IELTS এর মূল পরীক্ষার একটু টেনশন অনুভূত হয়ই
। খুব স্বাভাবিক কেননা এই পরীক্ষার কোন সিলেবাস নেই । তাই প্রথমবার খুব বেশি কিছু
আশা না করাই ভালো । আমার অনেক বন্ধু আছে যারা খুব ভালো পড়াশুনায় কিন্তু IELTS এর স্কোর ভালো হয়নি প্রথমবার । কারণ মাত্রাতিরিক্ত চাপ এবং অধিক
চিন্তা । প্রথমবার খারাপ হতেই পারে তবে পরবর্তীতে আপনি পুনঃপরীক্ষার মাধ্যমে এই
চাপ কাঁটিয়ে উঠতে পারবেন ভালোভাবেই ।

কাঙ্ক্ষিত ফলাফলের জন্য কিছু কথাঃ

·       
IELTS পরীক্ষার সবার প্রথমে হলো Listening
। এই অংশে ভালো স্কোর করতে
হলে আপনাকে একটু বুদ্ধির পরিচয় দিতে হয় । যদি কোন প্রশ্নের উত্তর মিস হয়ে যায়, তাহলে ওটার জন্য না চিন্তা
করে পরের উত্তরে চলে যাবেন । নাহলে সময় চলে যাবে আর আপনি বাকি উত্তর গুলোও ঠিক মত
দিতে পারবেন না ।

·       
IELTS পরীক্ষার দ্বিতীয় অংশ Reading
যা কিনা একটু জটিল । এখানে ৬০ মিনিটে ৩টি প্যাসেজ থাকে আর ৪০ টি
প্রশ্নের উত্তর দিতে হয় । ব্রিটিশ কাউন্সিল সূত্রমতে, এই বিভাগে বাংলাদেশিদের
অবস্থা খুব করুন এবং গড় স্কোর ৪.৫ । তাই খেয়াল করবেন যেনো এই অংশে মনোনিবেশ না
হারায় ।

·       
পরের অংশটি হলো Writing । এখানে আপনার প্রথম
প্রশ্নে যেকোন বিষয়ের উপর লিখতে দেয়া হয় ১৫০ শব্দের মধ্যে । আর
দ্বিতীয় অংশে ২৫০ শব্দের মধ্যে একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর আপনার নিজস্ব
চিন্তাভাবনা প্রকাশ করতে হয় । বানান, শব্দ সম্ভার এবং বাক্য ঠিক মত থাকলে সহজেই ৬
বা ৬+ পাওয়া সম্ভব ।

·       
সর্বশেষে Speaking । এখানে খানে ভাল কারা সহজ । একটু ভাল করে বলতে পারলে 6.0 পাওয়া সম্ভব । এর জন্য প্রচুর চর্চা করতে হবে, নিজে নিজে ইংরেজি বলার প্র্যাকটিস
করতে হবে । অ্য অ্য এমন করলে আবশ্যই
স্কোর কমবে । সবসময় স্পষ্ট ভাবে কথা বলবেন ।

মাথা ঠাণ্ডা রেখে এগুলো করতে পারলে IELTS পরীক্ষায় ৬+ স্কোর খুব সহজেই পাওয়া যাবে ।

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None