যাকাত ফরজ হওয়ার শর্তাবলী ও নিসাব

যাকাত ফরজ হওয়ার কিছু শর্ত রয়েছে যেগুলো পূর্ণ হলেই যাকাত ফরজ
হবে
,
শর্তগুলো নিম্নরূপঃ

ইসলাম, অতএব অমুসলিমের পক্ষ থেকে যাকাত প্রদান
শুদ্ধ হবে না।

স্বাধীনতা, অতএব দাসের ওপর যাকাত ফরজ হবে না।

নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক হওয়া। নিসাব হলোঃ সুনির্দিষ্ট পরিমাণ   সম্পদ যা অর্জিত হলে যাকাত ফরজ হয়।

নিসাবের শর্তাবলী

ক. নিসাব পরিমাণ সম্পদ ব্যক্তির অবশ্য প্রয়োজনীয় সম্পদের বাইরে
হতে হবে
,
যেমন খাদ্য, পরিধেয় পোশাক, থাকার ঘর ইত্যাদি; কেননা যাকাত ফরজ হয় গরীবদের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশের উদ্দেশে।
তাই সম্পদের মালিককে অবশ্যই অমুখাপেক্ষী হতে হবে।

খ. নিসাব পরিমাণ সম্পদ ব্যক্তিমালিকানাধীন হতে হবে, অতএব এমন সম্পদে যাকাত ফরজ হবে না যা সুনির্দিষ্ট কোনো ব্যক্তির
মালিকানাধীন নয়
, যেমন মসজিদের জন্য জমাকৃত টাকা অথবা
জনস্বার্থে ব্যয়ের জন্য বরাদ্দকৃত টাকা অথবা যে সম্পদ সেবামূলক সংস্থার ফান্ডে জমা
রয়েছে।

সম্পদের উপর এক বছর অতিক্রান্ত হওয়া। এক বছর অর্থঃ হিজরী বর্ষের পূর্ণ এক বছর।
অর্থাৎ নিসাব পরিমাণ সম্পদ ব্যক্তির মালিকানায় চান্দ্রমাস হিসাবে বারো মাস অতিক্রান্ত
হতে হবে। (চান্দ্রমাস সাধারণত ৩৫৫ দিনে হয়) অবশ্য এ শর্ত সোনা-রুপা
, ব্যবসায়িক সম্পদ, গবাদিপশুর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। পক্ষান্তরে ফসল, ফলফলাদি, খনিজদ্রব্য ও গুপ্তধনের ক্ষেত্রে এক
বছর অতিক্রান্ত হওয়া শর্ত নয়।

উৎস ও বিস্তারিত:  bn.islamkingdom.com/s2/46730

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None