আল্লাহ তাআলার সুন্দর নামসমূহের প্রতি ঈমান

আল্লাহ তাআলার
রয়েছে সুন্দরতম নামসমগ্র।
আল্লাহ তাআলা বলেন: আল্লাহর রয়েছে সুন্দর সুন্দর
নাম। অতএব তোমরা তাঁকে তা দিয়েই ডাক
(আল আরাফ: ১৮০)।

আল্লাহর নামসমগ্রের
ক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয়ে আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে। কেননা এক্ষেত্রে ভুল করার অর্থ ঈমান
ও বিশ্বাসের ক্ষেত্রে ভুল করা।

এক. আল্লাহর নামগুলো
কেবল কুরআন সুন্নাহ থেকে আহরণ করতে হবে। এক্ষেত্রে নিজের বিবেক-বুদ্ধি প্রয়োগ করে নতুন
কোনো নাম আল্লাহর উপর আরোপ করা কখনো সঙ্গত হবে না। কুরআন হাদীসে যতটুকু পাওয়া যায় ততটুকুতেই
সীমিত থাকতে হবে। বাড়ানোও যাবে না
, কমানোও যাবে না।

দুই. আল্লাহর
নামসমূহ
 সুনির্দিষ্ট কোনো সংখ্যায় সীমিত নয়। প্রসিদ্ধ একটি হাদীসে এসেছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া
সাল্লাম বলেছেন
, আমি আপনার কাছে প্রর্থনা করছি প্রত্যেক নামের
উসিলায় যা কেবল আপনার
, যে নাম আপনি নিজেকে দিয়েছেন, অথবা আপনার কিতাবে নাযিল করেছেন, অথবা আপনার সৃষ্টিকুলের
মধ্যে কাউকে শিখিয়েছেন
, অথবা আপনার ইলমে গায়েবে রেখে দিয়েছেন
(আহমদ ও হাকেম)।

আর আল্লাহ তাআলা তার ইলমে গায়েবে
যা সংরক্ষিত করে রেখে দিয়েছেন তা জানা অথবা আয়ত্তে আনা কোনো মানুষের পক্ষেই সম্ভব নয়।

সহীহ বুখারী ও
মুসলিমে 
আল্লাহর নিরানব্বইটি নামের কথা রয়েছে যেগুলো কেউ সংরক্ষণ করলে, ভালোভাবে বুঝলে, সে নামগুলো উল্লেখ করে দুআ করলে জান্নাতে প্রবেশের ঘোষণা
রয়েছে। তবে এর অর্থ এটা নয় যে
, আল্লাহর নাম কেবল এই নিরানব্বইটিতেই সীমিত। বুখারী ও মুসলিমের
হাদীসের অর্থ হল
, কেউ যদি কেবল নিরানব্বইটি নাম উল্লিখিতভাবে সংরক্ষণ করতে পারে তবে তার জন্য জান্নাতের
ঘোষণা রয়েছে।

তিন. আল্লাহর
নাম
 সবগুলোই সুন্দরতম, মাধুর্যমণ্ডিত।

প্রবন্ধটি বিস্তারিত
পড়ার জন্য: 
••►   bn.islamkingdom.com/s2/46690

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None