চালু হচ্ছেবৈদ্যুতিক ট্রেন

v\:* {behavior:url(#default#VML);}
o\:* {behavior:url(#default#VML);}
w\:* {behavior:url(#default#VML);}
.shape {behavior:url(#default#VML);}

বাংলাদেশ রেলওয়েতে চালু হচ্ছেবৈদ্যুতিক
ট্রেন। বৈদ্যুতিক
ট্রেন চালুর জন্য নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকা হয়ে চট্টগ্রাম পর্যন্ত ইলেকট্রিক ট্র্যাকশন লাইন বসানো
হচ্ছে। বর্তমানে রেলওয়ের ১ হাজার ৪৭১টি যাত্রীবাহী বগি রয়েছে। প্রয়োজনের তুলনায় এই সংখ্যা যথেষ্ট নয়। চাহিদা পূরণের জন্য পর্যায়ক্রমে নতুন বগি সংগ্রহের কাজ চলমান রয়েছে। বর্তমানে রেলওয়ের ২৮২টি লোকোমোটিভ ইঞ্জিন রয়েছে। এর মধ্যে ১৮৬টি মিটার গেজ ও ৯৬টি ব্রডগেজ। এই সব লোকোমোটিভ
ইঞ্জিন এর দক্ষতা বাড়াতে সকল পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার। সরকার লাভ-লোকসান বিবেচনায় নিয়ে ট্রেন পরিচালনা করে না। ট্রেনে মানুষ সাশ্রয়ী ভাড়ায় যাতায়াতের সুযোগ পায়। রেলে প্রতিবছর জ্বালানি তেল ও যন্ত্রপাতির দাম বাড়ে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বাড়াতে হয়। কিন্তু ট্রেনের ভাড়া প্রতিবছর বাড়ে না। মুলত
সরকার জনগণের নিরাপত্তা ও স্বল্প ব্যয়ে যাতায়াতের জন্য সরকার এই যোগাযোগ চালু
রেখেছে। বৈদ্যুতিক ট্রেন চালু
হলে যাত্রীরা আরও আরামদায়ক ও বিলাসবহুল ভ্রমণ করতে পারবেন। সেজন্য সরকার এই
ডিজিটাল বৈদ্যুতিক ট্রেন চালুর জন্য সকল
ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার।

Normal
0
false

false
false
false

EN-US
X-NONE
X-NONE

/* Style Definitions */
table.MsoNormalTable
{mso-style-name:"Table Normal";
mso-tstyle-rowband-size:0;
mso-tstyle-colband-size:0;
mso-style-noshow:yes;
mso-style-priority:99;
mso-style-qformat:yes;
mso-style-parent:"";
mso-padding-alt:0in 5.4pt 0in 5.4pt;
mso-para-margin-top:0in;
mso-para-margin-right:0in;
mso-para-margin-bottom:10.0pt;
mso-para-margin-left:0in;
line-height:115%;
mso-pagination:widow-orphan;
font-size:11.0pt;
font-family:"Calibri","sans-serif";
mso-ascii-font-family:Calibri;
mso-ascii-theme-font:minor-latin;
mso-hansi-font-family:Calibri;
mso-hansi-theme-font:minor-latin;
mso-bidi-font-family:"Times New Roman";
mso-bidi-theme-font:minor-bidi;}

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)