রাজশাহীতে কর্মসংস্থানের নতুন সম্ভাবনা

শিল্পহীন রাজশাহীতে
ক্রমেই বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে বিদেশী বিনিয়োগ। কৃষি নির্ভর রাজশাহীর
অর্থনীতিতে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটছে ক্রমেই। ভারত ও দক্ষিণ
কোরিয়ার বেশ কয়েকটি বড় কোম্পানি রাজশাহীতে ইতোমধ্যে বিনিয়োগ করছে। ইতোমধ্যেই ভারতীয়
একটি কোম্পানি তাদের মোটরযান কারখানা চালু করেছে। আর কোরিয়া কোম্পানিগুলোর
রাজশাহী বিনিয়োগ করার প্রক্রিয়াও অনেক দূর এগিয়ে এখন। এছাড়াও চায়নার
একটি কোম্পানিও রাজশাহীতে বিনিয়োগ করার সম্ভাবনা রয়েছে। গ্যাস সংযোগ আসার
পর এখানে বিনিয়োগ বেড়েছে শিল্প খাতে।রাজশাহীতে অটোকার তৈরির কারখানা স্থাপনে রাজশাহী
বিসিকে ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে দক্ষিণ কোরিয়ার তিনটি মোটরযান নির্মাণ প্রতিষ্ঠান। বিএমজি, কেআরডব্লিউ,
জিনওয়া কোম্পানি লিমিটেড ব্যাটারিচালিত অটোকার তৈরি করবে, যা বাংলাদেশের বাজারের সঙ্গে সঙ্গে ইউরোপ ও আমেরিকায় রফতানি করা হবে। এর আগে গত বছরের
মার্চ মাসে টাটা মোটরসের সহযোগিতায় রাজশাহীতে প্রথম মোটর শিল্প প্রতিষ্ঠানের উদ্বোধন
হয়।
এখান
থেকে বছরে ৪০ হাজার টেম্পো বডি তৈরির সম্ভাব্যতা রয়েছে।  রাজশাহী বিসিক শিল্প এলাকায় সাত বিঘা
এলাকাজুড়ে এই কারখানাটি স্থাপন করেছে নিটল-নিলয় গ্রুপ। আর এর ব্যবস্থাপনায়
থাকছে মিতা কোম্পানি লিমিটেড। দক্ষিণ কোরিয়ার তিনটি মোটরযান নির্মাণ প্রতিষ্ঠান
বিএমজি,
কেআরডব্লিউ, জিনওয়া কোম্পানি রাজশাহীতে এনা গ্রুপের
জমিতে অটোকার তৈরির কারখানা স্থাপন করবে। যার জন্য তারা
১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে। এছাড়া এরই মধ্যে রাজশাহীর দামকুড়ায় ফিশ ফিড কারখানাটি
১৫২ কোটি টাকা বিনিয়োগে গড়ে তোলা হয়। আরও ৫০ কোটি টাকার বিনিয়োগ অপেক্ষায় আছে। এসিআই ও ভারতের
সহযোগী প্রতিষ্ঠান গোদরেজ এই শিল্পপ্রতিষ্ঠানটি গড়ে তুলেছে। নাহার অটো মোবাইল
কারখানা ৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করে এরই মধ্যে উৎপাদনে এসেছে। ফলে কর্মসংস্থানের
নতুন সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে রাজশাহীকে ঘিরে।

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None