হতে হবে সোচ্চার করতে হবে সঠিক ব্যবহার

বর্তমান
মানুষের সবচেয়ে প্রিয় ও প্রধান যোগাযোগ মাধ্যম হচ্ছে ইন্টারনেট। ইন্টারনেট মানুষের জীবনের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। দিনের বেশিরভাগ সময় মানুষ
ইন্টারনেটে থাকতে পছন্দ করে। ফলে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে বাড়ছে ব্যবহারকারী। ইন্টারনেট
ব্যবহার বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এর নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে শঙ্কিত  ব্যবহারকারীরা।
বেশিরভাগ ইউজার ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত থাকেন। কেউ চাইবেন না তার
ব্যক্তিগত বিষয়টি অন্যরা জেনে যাক। সামাজিক ব্যবহার আজকাল যে হারে বেড়েছে, তার সঙ্গে
পাল্লা দিয়ে বেড়েছে প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে খারাপ কাজ করার মানুষের সংখ্যাও। প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে যেমন এই ইন্টারনেট
সাহায্য করছে তেমন বিভিন্ন অপশক্তি এবার নানা ধরনের মিথ্যা সংবাদ এই মাধ্যমে
প্রকাশ করে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। যেমন ।প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশী
কর্মীরা বাংলাদেশের উন্নয়নে বিরাট ভূমিকা রাখছে। সেই প্রবাসী বন্ধুদের সুখ-দুঃখের অংশীদার
হওয়ার জন্য এখন তৈরি হয়েছে প্রবাসবন্ধু কল সেন্টার। প্রবাসে কর্মরত
কর্মীদের সেবা প্রদানে এ কল সেন্টার একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।প্রবাসবন্ধু কল সেন্টারের
মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশী যারা দেশের অর্থনীতিতে সহায়তা করছেন, তারা সরাসরি তাদের
যেকোনো অভিযোগ, মৃতদেহ পরিবহন ও দাফন সংক্রান্ত বিষয়, মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ, মেধাবী
সন্তানদের বৃত্তি, আইনগত তথ্য ও সেবা, অসুস্থ কর্মীদের আর্থিক সহায়তাসহ নানা বিষয়ে
কথা বলতে পারবেন।প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য +৮৮০৯৬৫৪৩৩৩৩৩৩ নম্বরটি বাংলাদেশ
সময় অনুযায়ী সকাল ০৯ টা থেকে সন্ধ্যা ০৬টা পর্যন্ত চালু থাকবে। এছাড়াও প্রবাসীরা ম্যাসেঞ্জার,
ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপে +৮৮০১৬৭৮৬৬৮৮১৩ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারবেন। ফেসবুকে যোগাযোগ
করা যাবে .facebook.com/probashbondhucallcenter -এ ঠিকানায়। আর ই-মেইল করা যাবে [email protected]ঠিকানায়। প্রথম পর্যায়ে
জর্ডান, মালয়েশিয়া ও সৌদিআরব-এ কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীরা এ কল সেন্টারের সুবিধা পাবেন।
পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য দেশে কর্মরত বাংলাদেশী কর্মীরাও এ সুযোগ পাবেন। এটা
সম্ভব হয়েছে শুধু এই ইন্টারনেটের কারনে। এবার কিছু অসৎ মানুষ এই মাধ্যমে প্রচার করছে
রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করলে নাকি সুন্দরবনের ক্ষতি হবে। তাই প্রত্যেক মাধ্যমে
কিছু ভাল ও কিছু খারাপ প্রচার মাধ্যম আছে, আমাদের উচিত ভালগুলো গ্রহন করা আর খারাপগুলোর
থেকে দূরে থাকা। তাহলেই একদিন বাংলাদেশ সোনার বাংলায় পরিণত হবে।বর্তমান
মানুষের সবচেয়ে প্রিয় ও প্রধান যোগাযোগ মাধ্যম হচ্ছে ইন্টারনেট। ইন্টারনেট মানুষের জীবনের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। দিনের বেশিরভাগ সময় মানুষ
ইন্টারনেটে থাকতে পছন্দ করে। ফলে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে বাড়ছে ব্যবহারকারী। ইন্টারনেট
ব্যবহার বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এর নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে শঙ্কিত  ব্যবহারকারীরা।
বেশিরভাগ ইউজার ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত থাকেন। কেউ চাইবেন না তার
ব্যক্তিগত বিষয়টি অন্যরা জেনে যাক। সামাজিক ব্যবহার আজকাল যে হারে বেড়েছে, তার সঙ্গে
পাল্লা দিয়ে বেড়েছে প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে খারাপ কাজ করার মানুষের সংখ্যাও। প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে যেমন এই ইন্টারনেট
সাহায্য করছে তেমন বিভিন্ন অপশক্তি এবার নানা ধরনের মিথ্যা সংবাদ এই মাধ্যমে
প্রকাশ করে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। যেমন ।প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশী
কর্মীরা বাংলাদেশের উন্নয়নে বিরাট ভূমিকা রাখছে। সেই প্রবাসী বন্ধুদের সুখ-দুঃখের অংশীদার
হওয়ার জন্য এখন তৈরি হয়েছে প্রবাসবন্ধু কল সেন্টার। প্রবাসে কর্মরত
কর্মীদের সেবা প্রদানে এ কল সেন্টার একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।প্রবাসবন্ধু কল সেন্টারের
মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশী যারা দেশের অর্থনীতিতে সহায়তা করছেন, তারা সরাসরি তাদের
যেকোনো অভিযোগ, মৃতদেহ পরিবহন ও দাফন সংক্রান্ত বিষয়, মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ, মেধাবী
সন্তানদের বৃত্তি, আইনগত তথ্য ও সেবা, অসুস্থ কর্মীদের আর্থিক সহায়তাসহ নানা বিষয়ে
কথা বলতে পারবেন।প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের জন্য +৮৮০৯৬৫৪৩৩৩৩৩৩ নম্বরটি বাংলাদেশ
সময় অনুযায়ী সকাল ০৯ টা থেকে সন্ধ্যা ০৬টা পর্যন্ত চালু থাকবে। এছাড়াও প্রবাসীরা ম্যাসেঞ্জার,
ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপে +৮৮০১৬৭৮৬৬৮৮১৩ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারবেন। ফেসবুকে যোগাযোগ
করা যাবে .facebook.com/probashbondhucallcenter -এ ঠিকানায়। আর ই-মেইল করা যাবে [email protected]ঠিকানায়। প্রথম পর্যায়ে
জর্ডান, মালয়েশিয়া ও সৌদিআরব-এ কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীরা এ কল সেন্টারের সুবিধা পাবেন।
পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য দেশে কর্মরত বাংলাদেশী কর্মীরাও এ সুযোগ পাবেন। এটা
সম্ভব হয়েছে শুধু এই ইন্টারনেটের কারনে। এবার কিছু অসৎ মানুষ এই মাধ্যমে প্রচার করছে
রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করলে নাকি সুন্দরবনের ক্ষতি হবে। তাই প্রত্যেক মাধ্যমে
কিছু ভাল ও কিছু খারাপ প্রচার মাধ্যম আছে, আমাদের উচিত ভালগুলো গ্রহন করা আর খারাপগুলোর
থেকে দূরে থাকা। তাহলেই একদিন বাংলাদেশ সোনার বাংলায় পরিণত হবে।

  

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None