বেহাল দশা

 

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল
করে আদালতের দেয়া রায় নিয়ে বিএনপি ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার চেষ্টা করছে। তারা
আন্দোলন করার মত কোন ইস্যু না পেয়ে এটাকে ইস্যু বানানোর চেষ্টায় ব্যস্ত। কিন্তু
তাদের এই আশা সফল হবে না। বাংলার মানুষ কোন ষড়যন্ত্রে পা দিবে না। বর্তমান সরকার
দেশের উন্নয়নের যে ধারা অব্যাহত রেখেছে তাতে আর কোন আন্দোলন করে বিএনপি দেশের
ক্ষতি করতে পারবে না। প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বাসায় গিয়ে ছিলেন আওয়ামী লীগের
সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এতে তাদের গাত্র দাহণ শুরু হয়ে গেছে। তারা বলছেন চাপ সৃষ্টি
করে রায় পরিবর্তন করবে সরকার। এতে চাপের কিছুই নেই। আর দিবেই বা কেন এটি একটি আইনি
ব্যপার, আইনগত ভাবে মোকাবেলা করবে সরকার। বিএনপি নেতিবাচক কথা বলে  মাঠ গরম করার ব্যার্থ চেষ্টায় ব্যস্ত। দেশের
জনগণ কখনও বিএনপির অন্যায় আন্দোলনে যাবে না। দেশের জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল
দুঃশাসনকে পরাজিত করেছে ভবিষ্যতেও উন্নয়নের সরকারের পক্ষেই থাকবে। জ্বালাও পোড়াও এবং জনগণের
জানমালের ক্ষতি করে আর ক্ষমতায় আসা যাবে না। বিএনপি নেতারা আরও বলছেন খালেদা জিয়ার
লন্ডন সফর নিয়ে সরকার নেতিবাচক সংবাদ প্রচার করছে। এটি একটি হাস্যকর ব্যপার। সরকার
কেন নেতিবাচক সংবাদ প্রচার করবে? বিএনপি নেত্রীসহ দলের যে অবস্থা তাতে সবাই জেনে
গেছে বিএনপি শেষ তাদের আর করার কিছুই নেই। বিএনপি এখন বাংলাদেশের নামমাত্র দল,
নেতাদের না আছে কোন রাজনৈতিক কর্মসুচী না আছে সভা সমাবেশ, মিছিল মিটিং তারা
শুধুমাত্র কিছু বিবৃতি নির্ভর দল। বিএনপির জন্য একটি উপদেশ আপনারা সহিংসতার পথ
ছেড়ে জনগণের কল্যাণে আসুন, তবেই আপনাদের ডাকে সাড়া দিবে জনগণ।

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None