অতীত শুধুই কাঁদায়


সারা্টা সপ্তাহ অপেক্ষার প্রহর গুনতাম কবে আসবে শুক্রবার থাকবেনা স্কুলে
যাওয়ার চিন্তা।অনেক প্রতিক্ষার পর যখন আসতো সেই কাংখিত শুক্রবার ৫/জন বন্ধু
মিলে থালাবাটি জানালা দিয়ে বাহিরে দিয়ে চুপিসারে চলে যেতাম মাছ ধরতে।দুপুর
ঘরিয়ে সন্ধ্যা নেমে আসতো তবু শেষ হতোনা মাছ ধরা।কাদা মাখা শরীর নিয়ে বাড়ি
ফিরতাম মায়ের হাতের মার খাওয়া নিশ্চিত জেনে।অনেক সময় গোসলখানাতেই একসাথে
হতো মাইর আর গোসল।সেই দিন আর ফিরে আসবেনা আসার কথাও নয়।অতীত শুধু স্মৃতি।

কাদা মাটিতে মাছ ধরতে ধরতে নিজেকে মিশিয়ে দিতাম কাদার সাথে।তখন নিজেকে নিজে
চেনায় মুশকিল হয়ে যেতো। কাদা থেকে এসে গোসল করার পর শরীরে বেশী করে শরিষার
তেল মাখতে হতো না হয় গাঁয়ে ভেসে উঠতো কাদা মাটির ছাপ।


এখনো মনে আছে অগ্রাহায়ন মাসে ধান কাটার লোকদের নাস্তা নিয়ে ক্ষেতে গেলে
পাড়ার ছেলেদের সাথে জড়িয়ে যেতাম ধানের শীষ কুড়ানোয়।বাবা কিংবা বড়ভাইকে
দেখলে ধানের শীষগুলো নিচে ফেলে দিয়ে বসে যেতাম আলতো করে।

জীবনের এই ক্ষনে এসে কেনো জানি মনে হচ্ছে সেই অতীতটাই ভালো ছিলো আমার
জন্য।ছিলো কোনো দায়িত্ব তাই খুজতামনা দায়িত্ব এড়ানোর সুযোগ।তাইতো অতীত
শুধুই কাঁদায়।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4.7 (3টি রেটিং)

সালাম

যায় দিন ভাল, আসে দিন খারাপ। বাংলাতে আছে এমন একটি প্রবাদ

আপনার লেখায় সত্যিই অতীতের স্মৃতি মনে পড়ে গেল।

ভাল লেগেছে।

-

▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬
                         স্বপ্নের বাঁধন                      
▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬

অনেক ধন্যবাদ আপনাকে

সালাম

ছোটবেলার সুখের দিনের কথা মনে করিয়ে দেয়ায় ধন্যবাদ ।

****

পুকুর সেঁচার খবর শুনে আগেভাগে পাতিল নিয়ে পাড়ে বসে থাকা তারপর কাদা‍য় কাদায় ভুত সেজে মাছে ভরা পাতিল নিয়ে বাড়ী ফেরা -আহা! কি যে মধুর লাগে এখন ভাবতে গিয়ে।

-

আড্ডার দাওয়াত রইল।

> > > প্রতি শুক্রবার আড্ডা নতুন বিষয়ে আড্ডা শুরু হবে।

নস্টালজিকে ফেলে দিলেন। ধন্যবাদ ছবিগুলোর জন্য।

-

আমার প্রিয় একটি ওয়েবসাইট: www.islam.net.bd

অনেক ধন্যবাদ
এটি আমারো প্রিয় ওয়েবসাইট

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4.7 (3টি রেটিং)