ফিরিয়ে দাও

মেঘের গর্জনে ছেয়ে গেছে গ্রাসী অন্ধকার... 
আমাকে ফিরিয়ে দাও ঝকঝকে নীলাকাশ 

বারুদ আর মৃত শবের গন্ধে অসহ্য এ বাতাস, 
চাই না আমি.... 
আমাকে ফিরিয়ে দাও স্নিগ্ধ সুবিমল ভোরের সমীরণ..... 
প্রাণের উচ্ছ্বলতায় বাসনার সবটুকু উজাড় করে 
আমি একটি প্রশান্তির নি:শ্বাস নিতে চাই 

আমি ভুলে যেতে চাই 
অসুরের হুংকারে নিদ্রাহীন রজনী পার করার দু:সহ স্মৃতি, 
কুয়াশার জালে আবদ্ধ সূর্যালোক বড়োই কষ্টের; 
তাই বলি... 
একটি দিনমণি কি প্রত্যক্ষ করার সৌভাগ্য হবেনা, 
সোনালী দিনের প্রতিচ্ছবি যার কিরণে ভাসবে? 

বজ্রের আক্রোশে অনেক মুষ্ঠি 
আঘাত হেনেছে অন্ধকারের প্রকোষ্ঠে; 
তবু অব্যর্থ হবার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়ার মতোই, 
আমাকে খুলে দাও অনিন্দ্য সুন্দর আগামীর দোরখানি। 

বহুদিন হলো সোনার পাখিগুলো উড়ে গেছে দূরে, 
আজ বড্ড ইচ্ছে হয়... 
ভোরবেলা ঘুম ভাঙাতে মিষ্টি সুরের মূর্ছনায় 

প্রশান্তির ঘুম-চাদরে আবৃত ধরণী, 
আপনার বৈভব লুটে যায় জাগ্রত অমানুষ.. 
তুমি তাদের নিদ্রারসটুকু মুছে দাও দেহ থেকে....

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (2টি রেটিং)

এ আকুতি সাধারণের। এ কবিতা সাধারণের।

শুকরান।

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (2টি রেটিং)