উঠ বন্ধু নায়, চল মোর গাঁয়

এস বন্ধু চল আমার ঐ না গাঁয়ের বাড়ি
চোখ জুড়ানো সে গাঁ আমার মনটা নেয় কাড়ি।
দেখবে তুমি দখিনা হাওয়ায় দোলা সোনালী ধান
শুনবে সেথায় মন মাতানো কুকিলের কুহুতান।
সেথায় দেখবে হৃদয় দোলানো সবুজের ঢেউ
সবুজের এক চাঁদর যেন বিছিয়ে দিল কেউ।
নদীর কল কল রবে, পাখিদের গানে
মনটা তোমার ছুটবে শুধু এখানে সেখানে।

জারি গানের আসর, ভাটিয়ালির মূর্ছনায়
হারিয়ে যাবে তুমি দূর এক অজানায়।
তোমায় নিয়ে বেড়াব আমি সারা গ্রামটি চষে
মুখটা তোমার রাঙিয়ে দেব মধুর ফলের রসে।
চাঁদনি রাতের কিসসার আসরে বসবে যখন তুমি
দেখবে তখন কিসসা শুনতে চাঁদও আসছে নামি!
মাদুর পেতে তোমায় বসাব দাদুর জ্ঞানের আসরে
গোল হয়ে সব বসবে যখন উঠোন-কোণের পরে।
শীতল পাটির বিছানায় যখন শু'তে যাবে তুমি
নকশী কাঁথার কোমল পরশে ঘুম আসবে নামি।
সেগুন বাগিচার ঘন আড়ালে যাবে যখন তুমি
বিস্মিত আঁখি বলবে তোমায় 'কি মহান জগত-স্বামী'!
তুমি দেখবে তোমায় আপন করে নিল মোর বন্ধুরা
তোমার আপ্যায়নে ব্যস্ত তখন গ্রামটি সারা ।

স্রোত আঁচড়ানো সাঁতার যবে দেখবে দামাল ছেলেদের
মনটা তোমার চাইবে শুধু সঙ্গী হতে তাদের।
ইট পাথরের ঠাসাঠাসিতে তোমার দেখা হয়না আকাশ
নেওয়া হয়না তোমার স্বচ্ছ বায়ুর একটু নিঃশ্বাস।
ঝিরঝিরে হিমেল পবনের ছোঁয়া লাগবে যখন
উদ্বেলিত হবে তনু-মন, শান্ত হবে প্রাণ তখন।
হৃদয় থেকেই আমন্ত্রণ তোমায় আমার গরীবালয়ে
উঠ নায়, আমি মাঝি, চল সাথে তুমি যাত্রী হয়ে।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)

অনেক সুন্দর হয়েছে কবিতা। নাম পড়েই জসীম উদ্দীনের কথা মনে পড়ে গেল।

কেমন কাটছে তোমার রমজান? নিয়মিত তোমার লেখা দেখবো আশা করছি।

ধন্যবাদ ভাইয়া। 
আলহামদুলিল্লাহ। কিন্তু আপনার কোন খবর পাচ্ছি না যে!

আসলেই জসীম উদ্দিনের কথা মনে পড়ে যায়, আপনার কবিতার মাধ্যমে।

অফ টপিক: ফজল ভাই কি বেচে আছেন?

-

স্বপ্নই দেখি! বাস্তব হয় না।

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)