তিন বছরের শিশু কুরআন হেফজ করে বিশ্বকে অবাক করল

নাইজেরিয়ার 'যারিয়া' শহরের তিন বছরে শিশু সম্পূর্ণ কুরআন হেফজ করতে সক্ষম হয়েছেন।

বার্তা
সংস্থা ইকনা: নাইজেরিয়ার "ডেইল ট্রাস্ট" সংবাদপত্র লিখেছে: নাইজেরিয়ার
'যারিয়া' শহরের অসাধারণ ক্ষমতার অধিকারী তিন বছরে একটি শিশু সম্পূর্ণ কুরআন
হেফজ করতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি যারিয়া শহরে আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায়
অংশগ্রহণ করে সকলের মন জয় করেছেন।
প্রতিবেদন অনুযায়ী, তিন বছরের শিশু
'মোহাম্মাদ শামসুদ্দীন আলী' তার দেড় বছর বয়স চলাকালীন সময় যারিয়ার 'শেখ
আঞ্জু আব্দুল্লাহ' নামক আন্তর্জাতিক কুরআন প্রশিক্ষণ স্কুলে ভর্তি হন এবং
মাত্র দেড় বছরের মধ্যে অর্থাৎ তার তিন বছর বয়সে সম্পূর্ণ কুরআন মুখস্থ করতে
সক্ষম হয়েছে।
'শেখ আঞ্জু আব্দুল্লাহ' আন্তর্জাতিক কুরআন প্রশিক্ষণ
স্কুলে শিশুদের জন্য নির্দিষ্ট নিতিমালার মাধ্যমে শিশুদেরকে কুরআন
প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। যে সকল শিশুদের বয়স এক বছরের ঊর্ধ্বে তাদের জন্য এই
প্রকল্প চালু করেছে শেখ আঞ্জু আব্দুল্লাহ' আন্তর্জাতিক কুরআন প্রশিক্ষণ
স্কুল।
'মোহাম্মাদ শামসুদ্দীন আলী'র পিতা 'আলী শামসুদ্দীনে'র
তত্ত্বাবধায়নে শেখ আঞ্জু আব্দুল্লাহ' আন্তর্জাতিক কুরআন প্রশিক্ষণ স্কুল
পরিচালিত হয়ে আসছে। তিনি বিশ্বাস করতেন কুরআন মুখস্থ করার জন্য তার
সন্তানের ব্রেইন প্রস্তুত রয়েছে।
তিনি বলেন: মোহাম্মাদ শামসুদ্দীন আলীর
পাশাপাশি অন্যান্য শিশুরাও এই শিক্ষাকেন্দ্রে কুরআন মুখস্থ করছে।  তবে
মোহাম্মাদের জন্য প্লাস পয়েন্ট হচ্ছে তিনি আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায়
অংশগ্রহণ করেছেন এবং সেখানে সফল হয়েছে।

কুরআন হেফজ ছাড়াও এই শিশু আরবি ও ইংরেজী ভাষায় কথা বলতে
পারে।

বলাবাহুল্য যারিয়া শহরে নাইজেরিয়ার অন্যতম শিয়া অধ্যুষিত
শহর। নাইজেরিয়ায় ইসলামী আন্দোলনের নেতার সদর দপ্তরও এই
শহরেই অবস্থিত।

iqna

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)