ইসলামী ঐক্যের মাধ্যমে মার্কিন ও ইহুদি চক্রান্ত নস্যাৎ করা সম্ভব

ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা ও ইসলামী বিপ্লবের রাহবার
হযরত আয়াতুল্লাহ আল উযমা সাইয়েদ আলী খামেনেয়ী বলেছেন, মার্কিন ও
ইহুদিবাদীরা মুসলমানদের জন্য যে দুর্দশা তৈরি করেছে তা থেকে বাঁচার একমাত্র
উপায় হচ্ছে মুসলিম উম্মাহর মাঝে সুদৃঢ় ঐক্য প্রতিষ্ঠা করা।

ইসলামী ঐক্যের মাধ্যমে মার্কিন ও ইহুদি চক্রান্ত নস্যাৎ করা সম্ভব

বার্তা
সংস্থা ইকনা:
মহানবী হযরত মুহাম্মাদ (স) এর পবিত্র জন্মবার্ষিকী ও ইসলামি
ঐক্য সপ্তাহ উপলক্ষে তেহরানে আয়োজিত আন্তর্জাতিক ইসলামি সম্মেলনে অংশ নেয়া
রাষ্ট্রীয় কর্মকর্তা, কূটনীতিক প্রতিনিধি এবং বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে সাক্ষাৎ
অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ হতে পারি এবং ইসলামি লক্ষ্যের দিকে
এগুতে পরি তাহলে ক্ষতিকর মার্কিন সাম্রাজ্যবাদী ও ইহুদিবাদী শক্তি বিভিন্ন
দেশকে তাদের কব্জায় রাখতে পারবে না।
সর্বোচ্চ নেতা পরিষ্কার করে বলেন,
আজকের দিনে মুসলিম বিশ্ব যে মহা বিপদের মোকাবেলা করছে তার থেকে বেরিয়ে আসার
একমাত্র উপায় হচ্ছে ঐক্য। তিনি বলেন, মিয়ানমার থেকে আফ্রিকা পর্যন্ত আজ
মুসলমানেরা হত্যাকাণ্ডের শিকার হচ্ছে। এরমধ্যে কেউ মারা যাচ্ছে বোকো
হারামের হাতে, কেউ উগ্র বৌদ্ধদের হাতে। তিনি বলেন, শিয়া ইসলামের ব্রিটিশ
ভার্সন এবং সুন্নি ইসলামের মার্কিন ভার্সন তৈরি করে মুসলমানদের একে অপরের
বিরুদ্ধে লাগিয়ে দেয়া হয়েছে এবং এ দুটো হচ্ছে একই ছুরির দুই ধার। সর্বোচ্চ
নেতা জোর দিয়ে বলেন, "ভাগ কর ও শাসন কর”- ব্রিটিশ এই নীতি ইসলামের শত্রুরা
মারাত্মকভাবে অনুসরণ করে চলেছে। আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী বলেন, ফিলিস্তিনি
সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রেও মুসলিম ঐক্য একইভাবে জরুরি।
ব্রিটিশ
প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সাম্প্রতিক ইরান-বিরোধী বক্তব্য সম্পর্কে
সর্বোচ্চ নেতা বলেন, "এই ব্রিটিশ সরকার বিগত ২০০ বছর আমাদের অঞ্চলের
দেশগুলোর জন্য খুবই জঘন্য ও নোংরা নীতি অনুসরণ করে চলেছে। ব্রিটিশ সরকার
ভারত, পাকিস্তান, ইরান, ইরাক এসব দেশকে বিভক্ত করেছে এবং ব্রিটিশ
কর্মকর্তারা এখন বলছেন, ইরান মধ্যপ্রাচ্যের জন্য হুমকি।
বার্তা সংস্থা ইকনা

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None