জাতিসংঘের বিচারে ভারত হলো মেয়েসন্তানদের জন্য সর্বাপেক্ষা বিপজ্জনক দেশ।


সালাম

ভারত  না হয়ে যদি  এটি  মুসলিমপ্রধান  কোন  দেশ  হতো  , তাহলে   অবশ্যই   নেতিবাচকভাবে ইসলাম ধর্মের  উল্লেখ  করে খবরটি প্রকাশিত হতো ।    অপরাধ  যখন  প্রমাণিত না   অর্থাৎ প্রাথমিক  অভিযুক্তের  বেলায়  যদি সে   মুসলমান হয় , তবে   খবরে  ধর্মের  উল্লেখ  থাকে  । অন্যদিকে  অপরাধী অমুসলিম হলে   ধর্মের  উল্লেখ  করা হয়  না ।  জানি না ,  আমরা  কবে  গণমাধ্যমের  এই  ইসলাম বিরোধী  ভূমিকার  বিরুদ্ধে   প্রতিবাদ করে  মানুষকে  সচেতন করতে পারবো ।

 

ভিন্ন খবর : মেয়েসন্তান কাম্য নয় ভারতে

 

 

ডেস্ক রিপোর্ট


 মেয়েসন্তান জন্মালে রয়েছে তার বিয়ের খরচ। ওদিকে বংশরক্ষার ক্ষেত্রে তার অন্তত বাবার বংশে কোনো ভূমিকা নেই। এই দুটি ধারণা বিজ্ঞান ও আধুনিকতার সব বাধা পেরিয়ে একবিংশ শতাব্দীতেও টিকে গেছে। তাই ভারতে সন্তান কামনা করে অনেকেই; কিন্তু তা অবশ্যই মেয়েসন্তান নয়।


সম্প্রতি ভারতের পাঞ্জাব রাজ্যের অমৃতসর শহরে এক স্বামী তার স্ত্রীকে গলা টিপে মেরে ফেলেন তৃতীয় মেয়েসন্তান জন্ম দেয়ার অপরাধে। তার কয়েকদিন আগে দক্ষিণের ব্যাঙ্গালোর শহরের ঘটনা। ২৫ বছর বয়সের বাবা তার তিন মাসের মেয়েসন্তানকে শারীরিক নিপীড়ন করে মেরে ফেলেছেন শুধু মেয়েসন্তান হওয়ার দোষে। এছাড়া আঁস্তাকুড়ে কিংবা কুয়োয় মেয়েসন্তানের ভ্রূণ, এসব তো আছেই। জাতিসংঘের বিচারে ভারত হলো মেয়েসন্তানদের জন্য সর্বাপেক্ষা বিপজ্জনক দেশ। ২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী ভারতে প্রতি হাজার পুরুষসন্তানের প্রতি মাত্র ৯১৪টি মেয়েসন্তান জন্ম নিয়েছে।


পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য মহিলা কমিশনের সাবেক সহ-সভানেত্রী ড. রমা দাস এই পরিস্থিতির জন্য সবার আগে দেশের বিয়ে পদ্ধতিকে দায়ী করেন। দ্বিতীয়ত, তিনি মনে করেন, নারীরা স্বয়ং প্রতিবাদ না জানালে, শুধু শিক্ষায় বিশেষ কাজ হবে না। অল্পবয়সী, অত্যাচারিত মেয়েরা যখন নিজেরাই প্রশাসনের কাছে গিয়ে তাদের কথা জানাবে, শুধু তখনই কাজ হবে বলে তার ধারণা। সূত্র : ডিডব্লিউ

 

http://www.amardeshonline.com/pages/details/2012/04/20/141639

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (3টি রেটিং)

এর বিকল্প মিডিয়া প্রতিষ্ঠা করা। যা এক সময় ছিল অসম্ভবকে সম্ভব করা। কিন্তু এখন ইন্টারনেট মিডিয়া আসায় অতটা কঠিন নয় ব্যাপারটি। আর তাই অনেকেই ইন্টারনেট মিডিয়ায় একটি অনলাইন পত্রিকা কিংবা চ্যানেলেরও স্বপ্ন দেখছেন।
এছাড়া সামাজিক সাইটগুলো এবং ব্লগ সাইটগুলো তো রয়েছেই। তাই উদ্যোগ বাড়ানো দরকার মুসলিম যুব সমাজকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য।

-

"নির্মাণ ম্যাগাজিন" ©www.nirmanmagazine.com

সালাম

*****

-

▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬
                         স্বপ্নের বাঁধন                      
▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬

যারা এমনটি করে, আমার মনে হয় তাদের বাপ, দাদা, পর দাদা পর্যন্ত অশিক্ষিত ছিল। বিদ্বায় এমন ধারনা পোষন করে আসছে। আসলেই এর প্রতিকার হওয়া উচিৎ, এ ব্যপারে সার্কভুক্ত দেশগুলোর কোন সিদ্ধান্তে আসা উচিৎ

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (3টি রেটিং)