বিনোদন শুধু গুনাহ নয় (ছবি ব্লগ)

ইয়ানবো
শহরের সাগরের বেলাভূমিতে দাড়িয়ে আমি আমরা! প্রভাতে উদিত খুব কাংখিত
সূর্যেরদ্বয়ের অস্তমিত হবার মনোরম দৃশ্য যেন হৃদয়কে মুগ্ধ করে দেয়! হৃদয়কে
আন্দোলিত করে তুলো সাগরের ঢেউয়ের স্রোত গুলো! সুবহানাল্লাহ-আলহামদুলিল্লাহ!
মহান আল্লাহর কি অপরুপ সৃষ্টি! যা না দেখলে বিশ্বাস হবেনা! আমরা এখন
দাড়িয়ে আছি সৌদি আরবের লৌহিত সাগরের তীরে! বর্তমানের অনুভূতি বাস্তবে ভাষায়
প্রকাশ করতে পারবো কিনা জানিনা!

সাগর পরিচিতিঃ লোহিত সাগর
(ইংরেজিতে: Red Sea) ভারত মহাসাগরের একটি অংশ এটি! যা আফ্রিকা ও এশিয়া
মহাদেশকে পৃথক করেছে। সাগরটি দক্ষিণে বাব এল মান্দেব প্রণালী ও এডেন
উপ-সাগরের মাধ্যমে ভারত মহাসাগরের সাথে যুক্ত। সাগরটির উত্তরাংশে সিনাই
উপদ্বীপ, আকাবা উপ-সাগর এবং সুয়েজ উপ-সাগর অবস্থিত।

সাগরের আয়তনঃ
লোহিত সাগরের পৃষ্ঠদেশের ক্ষেত্রফল প্রায় ১,৭৪,০০০ বর্গকিলোমিটার। সাগরটি
প্রায় ১,৯০০ কিলোমিটার দীর্ঘ এবং সর্বাধিক ৩০০ কিলোমিটার প্রশস্ত। এটি
মধ্যভাগে সর্বোচ্চ ২,৫০০ মিটার গভীর; এর গড় গভীরতা প্রায় ৫০০ মিটার। তবে
সাগরটিতে প্রশস্ত মহীসোপান আছে, যাতে বসবাসকারী জলজ জীব ও প্রবালগুলি
বিখ্যাত। এই সাগরে প্রায় ১,০০০ প্রজাতির অমেরুদন্ডী প্রাণী ও ২০০ রকমের
নরম ও শক্ত প্রবালের বাস।বাষ্পীভবন ও বায়ুপ্রবাহের ফলে উদ্ভূত জলপ্রবাহের
বিন্যাসজনিত কারণে লোহিত সাগর বিশ্বের সবচেয়ে লবণাক্ত সাগরগুলির একটি। এই
সাগরের লবণাক্ততা ৩.৬% থেকে ৩.৮%।

মদিনা সফর জীবনের একটি বড়
প্রাপ্তি আলহামদুলিল্লাহ! এরপর মক্কা সফর যেন জীবনের আরেক বড় প্রাপ্তি
আলহামদুলিল্লাহ! এবার এসেছি আমরা ইয়ানবো শহরের রয়েল কমিশনে! সৌদিতে
বিনোদনের সবচেয়ে সৌন্দর্যপূর্ণ স্থান হলো জেদ্দায় সাগর তীরে! যাকে সাগরের
কর্ণিশ ও বলে থাকে! বিনোদন মূলক আরেকটি জায়গা হলো মদিনায় (হাদিকায়ে মালেক
ফাহাদ) বা মালেক ফাহাদ পার্ক! আরেক বিনোদন পূর্ণ জায়গা হলো ইয়ানবো'তে রয়েল
কমিশন পার্ক ও ইয়ানবো সাগর তীরে! দুর-দুরান্ত ও বিভিন্ন উপ-মহাদেশ থেকেও
এখানে অনেকে আসেন সাগর ভ্রমণে! আলহামদুলিল্লাহঃ আমরা এখন অবস্থা করছি সেই
লৌহিত সাগরের তীরে!

ইয়ানবো ভ্রমণের আরেকটি মজার বিষয় হচ্ছে, সাগরের
তাজা মাছ ভাজা ও লাল ভাত! এটা সৌদি সহ সকল পর্যটকদের আকাংখার খাবার!
মক্কা-মদিনা ও ইয়ানবো সহ সৌদিতে মাছ ভাজার জন্য দোকান আছে কিলো প্রতি হিসাব
করে মাছ ভেজে দেয়। টাটকা মাছ ভাজা ও ভাত সাগর তীরে বসে খাওয়ার অনুভূতিই
ভিন্ন। যারা সৌদিতে ব্যাচেলর হিসেবে থাকেন বা যাদের পরিবার সহ এখানে আছেন
তারা স্থানে ভ্রমণে আসতে পারেন! আল্লাহর প্রতি প্রশংসা সহ বিনোদনও পাবেন
ইনশা-আল্লাহ!

শো'র মাছ ভাজা!

এই
মাছ গরম গরম ভাজা খেতে খুব মজা! যারা মাছ ভেজে দেন মাছ ভাজার পর মাছের
উপরে ভাজা জিরার গুড়ো ছিটিয়ে দেন তাতে করে মাছের স্বাদ আরো বেড়ে যায়!

এই
সাগর তীরে অনেকে এসে গোসল করেন! মহিলারা ও এর থেকে বাদ নেই! পাশেই
মহিলাদের কাপড় পরিবর্তনের ব্যবস্থা আছে। বসার জন্য আছে ছোট ছোট ঘরের
ব্যবস্থা! যার চারিদিকে জানালার মত ফাঁকা গ্রীল দেয়া। তবে রোদ থেকে বাঁচার
জন্য ছাদ দেয়া আছে! অনেকে এই গ্রীলের উপর বিছানার চাদর দিয়ে আড়াল করে বসেন!
পর্যটকগণ এখানে বসে আরাম করেন! তীরে বাচ্চাদের খেলা-ধূলার জন্য খেলনার
ব্যবস্থা আছে! কোথাও কোথাও আছে ঘাসের বিছানা পাতানো তবে সেটা খুবই
কমস্থানে! সেখানে কিছুটা আরাম করে বসা যায় তবে বেশীর ভাগই মরুভূমির
উত্তপ্তায় ঘেরা! গরমের উত্তপ্ততাকে ঠেলে ফেলে দেয় সাগর তীরে অফুরন্ত
বাতাস! এটা আল্লাহর আরেক অনুগ্রহ! এত গরমেও মানুষ সাগর তীরের ভ্রমণে বিরতি
করেনা! বরং সময় করে এখানে আসে আর সাথে করে নিয়ে যায় মোবাইল ক্যামেরা বা
ছবির তোলার ক্যামেরা দিয়ে ক্যামেরা বন্দি করে নিয়ে যান সাগর তীরের অপরুপ
দৃশাবলী!

সাগরের তীরে যেখানে গভীরতা বেশী সেখানে এভাবেই বেড়ীকেট দেয়া! যাতে কেউ সেখানে পড়ে না যায়!

লৌহিত
সাগরের হাজার হাজার মাছের মধ্যে সবচেয়ে সু-স্বাদু মাছ হলো শো'র মাছ! এই
মাছে লবন দিতে হয়না! শুধু মাছের আঁশ আর পেট ফেলে সাগরের পানি ধুইয়ে ডুবা
তেলে দিয়ে দেবেন! ব্যস ভাজা হলে মাছের লেজ ধরে খেতে শুরু করবেন মাথা
পর্যন্ত! আমরা মাছ ভাজা আর লাল ভাত খেয়েছি রাতের খাবার হিসেবে! আর অনেক রাত
পর্যন্ত সেখানে ছিলাম! আমি, আমার সাথি আমার এক ভাইয়া (দেবর) আমার মেয়ে!
খুবই ভালো লেগেছিলো সেদিন! যা লিখে শেষ করা যাবেনা! কয়েকটা ছবি দিতে চেষ্টা
করবো ইনশা-আল্লাহ! এখানে না আসলে কেউ প্রকৃত বিনোদন পাবেনা! তবুও দুধের
স্বাদ ঘোলে মিটানোর সামান্য প্রয়াসমাত্র! মহান আল্লাহ সকল মানুষকে তার
সৃষ্টির দেখার সৌভাগ্য দান করুন সাথে সাথে তার প্রশংসা করার ও তৌফিক দান
করুন! আলহামদুলিল্লাহ আমাদের ভ্রমণ নিরাপদ ও বিনোদনপূর্ণ হয়েছে! ইয়ানবো
দুইরাত তিনদিন থেকে তৃতীয় দিনের বিকেলে আমরা মদিনার পথে! চলছে আমাদের
গাড়ি.............।

বিষয়: বিবিধ

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None