রাত এগিয়ে গভীর হলে

রাত এগিয়ে গভীর হলে হাওয়া বেতাল হয়
কল্কির গন্ধে দিশেহারা বাউল
দোতারায় এঁকে যায় জীবনের ছবি । তার
নিজস্ব রমণী প্রেম কামনার বহিৃশিখা একা বিছানায়
পুড়ে পুড়ে ছাই হয় বিচ্ছেদ দহনে ।

রাত এগিয়ে গভীর হলে
একদল নেশাখোর যুবক
তড়িঘড়ি ঢুকে পড়ে বাউলের ঘরে
তালে তালে তুলে নেয় একতারা দোতারা
বাউলের জীবন নিজস্ব রমণী ।
    
কামনা কাতর উপবাসী রমণী
ক্ষুধার তাড়নায় কামড়ে দেয় নেশাখোরের কান
ভেসে যায় তার শুকনো চাতাল
প্রেমাক্ত জলে ।

চাতাল জুড়ে পড়ে থাকে ধর্ষিতার শাড়ি
ছিন্নভিন্ন সায়া বাউলের কাংখিত ধন ।

নগররক্ষী  
নগরে কী ছিলো না প্রতিরোধ বেষ্টনী?
{মফিজুল ইসলাম খান)

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None