ভোলায় স্কুল ছাত্রীকে এ্যাসিডে ঝলসে দিলো দুর্বৃত্তরা

ভোলার তজুমদ্দিনে উপজেলার দড়ি চাঁদপুর গ্রামে বুধবার রাতে সপ্তম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে এ্যাসিডে ঝলসে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। এসিড আক্রান্ত স্কুল ছাত্রীর নাম বিথিকা রানী দাস (১৩)। বিথিকা একই গ্রামের চৌপল্লী হরিমন্দির সংলগ্ন এলাকার ঘোষ বাড়ির বাবুল চন্দ্র দাসের মেয়ে। পরে তাকে স্থানীয়রা আশংকা জনক অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। এসিড আক্রান্ত ছাত্রীর বাবা বাবুল চন্দ্র দাস জানান, ৪জুলাই বুধবার রাত ৯ টায় তজুমদ্দিন ফজিলুতুন্নেছা সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী বিথিকা রানী দাসকে পড়ার টেবিলে বসিয়ে সে এবং তার স্ত্রী পাশের বাড়ি যায়। এই সুযোগে অজ্ঞাত দূর্বৃত্তরা ঘরের জানালা দিয়ে বিথিকার উপর এ্যাসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। এসময় বিথিকার চিৎকারে স্থানীয়রা ও তার পাশের বাড়ি থেকে ছুটে এসে বিথিকাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বিথিকার অবস্থার অবনতি হলে রাত ১২টায় তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এব্যাপারে কর্তব্যরত তজুমদ্দিন উপজেলা মেডিকেলে অফিসার ডাঃ নঈম ইকবাল এ্যাসিড নিক্ষেপের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলছেন, ভিকটিমের অবস্থা আশঙ্খাজনক। তার মুখের বাম পাশ, চোখ, গলা ও শরীরের একাধিক অংশ এ্যাসিডে ঝলছে গেছে। আপাতত প্রয়োজনীয় চিকিৎসা চলছে তবে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। তজুমদ্দিন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওহাব সরকার জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল ও হাসপাতাল পরিদর্শন করেছে। সর্ম্পূন বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে , এর সাথে জড়িতদের গ্রপ্তোরের চেষ্টা চলছে।

-অচিন্ত্য মজুমদার॥

http://www.statenewsbd.com

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 1 (টি রেটিং)

যতদিন না ইসলামী অনুশাসন অনুযায়ী দেশ পরিচালিত হবে, অথবা অন্তত ইসলামী নৈতিক শিক্ষায় জাতিকে শিক্ষিত করার প্রচেষ্টা চালানো হবে না, ততদিন বিথিকা রাণীদের কান্না থামবে না।

আর এর জন্য দায়ী দেশের সরকার এবং দায়ী তারা যারা দেশের সরকারকে নির্বাচিত করে থাকেন।

সুন্দর বলেছেন!! আসলেই তাই!! আপনি ঠিকই বলেছেন!! যেদিন একথা গুলো বাস্তব হবে সেদিন সত্যিই এদেশের এই সমস্যার সমাধান হবে।

আপনাকে ধন্যবাদ

''সাদামেঘ''

সালাম

 

যারা  এসিড অবৈধভাবে   বিক্রি  করে ও    যারা  তরল আগুনে মানুষকে   পুড়িয়ে  দিচ্ছে   , তাদেরকে প্রকাশ্যে   কঠিন   শাস্তি   দেয়া   হোক ।      তাহলে  এসিড  ছোড়ার  আগে   অপরাধীরা  হয়তো   দশবার ভাববে  ।

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 1 (টি রেটিং)