হঠাৎ স্বপন হঠাৎ ভাঙান!! (খ)

(খ)

আস্তে আস্তে যেন মেসেজের ভাল লাগায় নিজেকে হারাতে বসেছে, মেসেজে পড়েই এই অবস্থা লোকটাকে দেখলে যেন কি অবস্থা হয়। এভাবে মনিরার এমন অবস্থা হল যে, মেসেজ আসার সাথে সাথেই পড়ার জন্য ব্যকুলতা শুরু হয়ে যায় এ যেন কোন প্রিয়র জন্য অপেক্ষার মতই হয়ে গেছে। এবার মাহমুদ মিস দিলে পাল্টা মিস আসে মাহমুদ তো আরো সুযোগ পেয়ে এবার যেন প্রান খুলে মেসেজ পাঠাতে থাকে,

কয়েকদিনে যেন কয়েকশত মেসেজ এসে জমা হয় মনিরার মোবাইল ইনবক্সে। আর মনিরাও তা পড়ে কিছু কিছু মুছে দেয় আর কিছু রেখে দেয়। আর কিছু কিছু ডায়রীর পাতায় লিখে জমা করে রাখে। এভাবে মাত্র কয়েকদিন অতিবাহিত হতে না হতেই মোবাইলের মেসেজ পেতে পেতে একদিন মনিরাও মেসেজ দিল  call back me! আর দেরি নেই মাহমুদ তো সাথে সাথেই কল করে।


প্রথমে পরিচয় নাম জানা শুনা এরপর থেকে মনিরা দেখে যে, লোকটার কন্ঠ খুবই চমৎকার এবং খুবই সুন্দর ভাষায় কথা বলে আর বলবে না বা কেন লোকটা যে দুষ্টো প্রকৃতির, কথায় বলে দুষ্টো লোকের মিষ্টি কথা আসে কোলের কাছে! মনের কথা কেড়ে নিয়ে প্রানে মারে শেষে! কথা শুরু হল উভয়ের মাঝে কে কোথায় থাকে তাও মুটামুটি বলা হয়ে গেছে, মেয়েটা তাঁর ঠিকানা সত্য সত্যই বলেছে কিন্তু ছেলেটা মিথ্যাকে সত্য রুপে প্রকাশ করে চালিয়ে গেল কথা।


ওদের মাঝে ভালই ভাব হয়ে গেল। যেন কত চেনা একে অপরের। তবে কেউ কাউকে ভালবাসি একথাটি বলেনি, তবে প্রকাশ পেয়েছে ভাল লাগা। ছেলেটা তো মহা চালাক সে মনিরাকে বলে যে আমরা একে অপরের বন্ধু হই। যেই কথা সেই কাজ। কথা বলা প্রায় মাস খানিক হতে না হতেই ছেলেটা উভয়ের সম্পর্কটা এত গভীর হলো যে, মনে কয়েকযুগের চেনা জানা।


হঠাৎ একদিন মাহমুদ খুবই জিদ ধরে দেখা করতে হবে কখন কোথায় দেখা করবে জানতে চায় মনিরার কাছে এবং শর্ত দেয় কোন বান্ধবী বা বোন কাউকে সাথে আনতে পারবেন। মনিরা এই কথা শুনে তো এবার ভয় পেয়ে যায়। কেন বান্ধবীকে সাথে আনলে কি সমস্যা জানতে চায় মাহমুদের কাছে? কিন্তু মাহমুদ এককথার লোক সে বলেছে নয়তো দেখা করা লাগবে না।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (3টি রেটিং)

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (3টি রেটিং)