অবলা রমণী

ঊষার ভোরে আসে না ছুঁটে চরণে নাই নূপুর ,

শৈলের চুঁড়ে মেলে না দেখা কাঁকনে সুর বিধুর।

গাঙের তীরে বসে না একা পিছনে ছোটে কুকুর,

কোথায় নারী যাবে সে আজ সামনে আছে অসুর।

 

উদলা দুপুরে উঁইধরা মনে উঁকি দেয় উন্মনা।

উথলা দরিয়া বক্ষে ধরে সুর তুলে খঞ্জনা।

কলসি কাঁখে আসমান পানে খুঁজে ফিরে সান্তনা।

অবলা বলে রমণীরা কেন এত পায় বঞ্চনা?

 

সাঁঝের পবনে বাতায়ন পাশে করে শত নিবেদন,

জোনাক আলোয় আউলানো কেশে চেপে যায় কান্দন।

অদূরে পিশাচ কলস্বনে ডাকে দেহ করো সমর্পণ,

উদজ কামিনী অভিমান করে ছুঁড়ে দেয় দর্পণ। 

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None