আইসিসি’র বর্ষ সেরা ক্রিকেটার জনসন

অস্ট্রেলিয়ান পেসার মিচেল জনসনকে শুক্রবার ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট
কাউন্সিল (আইসিসি)-এর বর্ষ সেরা ক্রিকেটার ঘোষনা করা হয়েছে। দ্বিতীয় বার
তিনি বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থার এ পুরস্কার পেলেন। এর আগে স্বদেশী
রিকি পন্টিংও ক্যারিয়ারে দুই বার আইসিসি’র বর্ষ সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত
হয়েছিলেন।

২০১৩ সালের আগষ্ট থেকে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে গত বছর
অ্যাশেজ সিরিজে ইংল্যান্ডকে ৫-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করার পর দক্ষিণ
আফ্রিকার বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয়ে ৫৯ উইকেট শিকার করে অস্ট্রেলিয়া
দলের পেস আক্রমনে অসাধারন ভুমিকা পালন করেন ৩৩ বছর বয়সী জনসন। এই কৃতিত্বের
জন্য বাঁ-হাতি জনসন দ্বিতীয়বার গ্যারি সোবার্স ট্রফি হাতে তুললেন। ওয়েস্ট
ইন্ডিজের সাবেক গ্রেটের নামে প্রচলিত এই ট্রফি ২০০৯ সালে হাতে তুলেছিলেন
জনসন।
অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিংও পর পর দুই বার ২০০৬ ও ২০০৭ সালে সম্মানজনক এ পুরস্কার লাভ করেছিলেন।

আইসিসি’র দেয়া বিবৃতিতে জনসন বলেন, দলের জন্য অবদান রাখার সক্ষমতা থাকা
এবং রাখা আমার কাছে অত্যন্ত আনন্দের। সব সময়ই আমার মনে হয়েছে- এ সক্ষমতা
আমার আছে। এটা এমন একটা কিছু যা আমার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যাওয়ার পর পিছনে
ফিরে তাকিয়ে বিশেষ গৌরব বোধ করতে পারব।

এছাড়া আইসিসি’র ওয়ানডে বর্ষ সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার লাভ করেন ডি
ভিলিয়ার্স, বর্ষ সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের স্বীকৃতি পান ইংল্যান্ডের গ্যারি
ব্যালেন্স।

আইসিসি বর্ষ সেরা পারফরম্যান্সের পুরস্কার পান অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার
অ্যারন ফিঞ্চ। ২০১৩ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৬৩ বলে ১৫৬ রান করে এ
পুরস্কার জেতেন তিনি।

আইসিসির এসোসিয়েট এন্ড এফিলিয়েটেড ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার পুরস্কার পান স্কটল্যান্ডের প্রেসটন মোমসেন।

আইসিসি’র বর্ষ সেরা ওয়ানডে মহিলা ক্রিকেটারের পুরস্কার পান ইংল্যান্ডের উইকেটরক্ষক সারাহ টেলর।

সেরা আম্পয়ার নির্বাচিত হন ইংল্যান্ডের রিচার্ড কেটেলব্রো। নিউজনেক্সটবিডি /এসডি

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None