ফোর্বস ম্যাগাজিনে বিশ্বের সেরা ১০ প্রভাবশালী ব্যক্তি

বিদায়ের দ্বারপ্রান্তে ২০১৪ সাল। আগ্রহী মন নিঃসন্দেহে জানতে চাইবে- এবছরটা কে বা কারা নিজের ছায়াকে ছড়িয়ে দিয়েছেন পুরো বিশ্ব জুড়ে। এক কথায়, কে ছিলেন এবার সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত ম্যাগাজিন ‘ফোর্বস’ সম্প্রতি প্রকাশ করেছে বিশ্বের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের তালিকা। আসুন জেনে নেওয়া যাক ‘ফোর্বস ম্যাগাজিন’ প্রকাশিত তালিকা অনুযায়ী চলতি বছরের সেরা ১০ প্রভাবশালী ব্যক্তির সংক্ষিপ্ত পরিচয়।
১। ভ্লাদিমির পুতিন
রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং অন্যতম রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ভ্লাদিমির পুতিন ‘ফোর্বস’ এর বিচারে বিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব। ৭ অক্টোবর, ১৯৫২ সালে জন্ম হয় ৬২ বছর বয়সী এই প্রভাবশালী এবং সফল রাজনৈতিকের। ২০০০ থেকে ২০০৮ সাল এবং সবশেষে দ্বিতীয় মেয়াদে ৭ মে, ২০১২ তারিখ হতে বর্তমান পর্যন্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে রয়েছেন ভ্লাদিমির পুতিন। এছাড়াও, ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত তিনি একীভূত রাশিয়া দলের সভাপতি এবং রাশিয়া ও বেলারুশের মন্ত্রীসভার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।
২। বারাক ওবামা
বিশ্বের সেরা ১০ প্রভাবশালী ব্যক্তির মধ্যে ২য় অবস্থানে রয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রপ্রধান বারাক ওবামা। ২০১২ সালের নভেম্বর মাস থেকে দ্বিতীয়বারের মতো রাষ্ট্রপতি হিসেবে নির্বাচিত হন ৫৩ বছর বয়সী এই প্রভাবশালী নেতা বারাক ওবামা।২০০৯ সালের অক্টোবর ৯ তারিখে তাঁকে শান্তিতে নোবেল পুরস্কারও প্রদান করা হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্র্যাটিক পার্টির একজন সদস্যও বারাক ওবামা।
৩। শি জিনপিং
চীনের রাষ্ট্রপতি, চীনের রাষ্ট্রীয় কেন্দ্রীয় সামরিক পরিষদের চেয়ারম্যান, কমিউনিস্ট পার্টি অফ চায়নার মহাসচিব এবং কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় সামরিক পরিষদের চেয়ারম্যান শি জিনপিং বর্তমানে সেরা প্রভাবশালী ব্যক্তিদের মধ্যে ৩ নম্বর স্থানে অবস্থান করছেন। ১৫ জুন, ১৯৫৩ সালে জন্ম নেন চীনের অন্যতম এই রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। শি জিনপিং দীর্ঘকাল যাবৎ সক্রিয় ও প্রয়াত সিপিসি নেতা শি জোংশুনের সন্তান।
৪। পোপ ফ্রান্সিস
ক্যাথলিক গির্জার ২৬৬তম এবং বর্তমান পাদ্রি/পোপ ফ্রান্সিস বিশ্বের চতুর্থ প্রভাবশালী ব্যক্তি। এই ধর্মীয় নেতার জন্ম ১৭ ডিসেম্বর, ১৯৩৬ এবং বর্তমান বয়স ৭৭। রোমের বিশপ হিসেবে, পোপ ফ্রান্সিস বিশ্বব্যাপী ক্যাথলিক চার্চ এবং সার্বভৌম ভ্যাটিকান সিটি উভয়েরই প্রধান।
৫। অ্যাঞ্জেলা মরকেল
অ্যাঞ্জেলা ডোরোটেয়া মরকেল হচ্ছেন জার্মানির বর্তমান চ্যন্সেলর। ফোর্বস ম্যাগাজিনের তথ্য অনুযায়ী অ্যাঞ্জেলা মরকেল বিশ্বের পঞ্চম এবং প্রথম নারী প্রভাবশালী ব্যক্তি। তিনি ২০১০ সালের ১০ এপ্রিল জার্মানির মেকলেনবার্গ-ভোরপোমার্ন প্রদেশ থেকে জার্মান সংসদে সর্বাধিক সংখ্যক আসন জয়ের মাধ্যমে চ্যন্সেলর নির্বাচিত হন। মরকেল ক্রিসচিয়ান ডেমোক্রেটিক ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান (CDU) এবং ২০০২ হতে ২০০৫ পর্যন্ত CDU-CSU (ক্রিসচিয়ান সোশ্যাল ইউনিয়ন)-এর সংসদীয় জোটের চেয়ারম্যান ছিলেন।
৬। জানেত ইয়েলেন
জানেত লুইস ইয়েলেন বিশ্বের দ্বিতীয় প্রভাবশালী ক্ষমতাধর নারী। তিনি আমেরিকার একজন বিখ্যাত অর্থনীতিবিদ। আমেরিকার বোর্ড অফ গভর্নরস অফ ফেডারেল রিজার্ভ সিস্টেমের চেয়ারম্যান পদেও রয়েছেন এই ৬৮ বছর বয়সী প্রভাবশালী নারী।
৭। বিল গেটস
বিশ্বের এক নম্বর ধনী, মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা, চেয়ারম্যান, সাবেক সিইও উইলিয়াম হেনরী গেটস (বিল গেটস) প্রভাবশালীর তালিকাতে রয়েছেন ৭ নম্বরে। ১৯৫৫ সালের ২৮ অক্টোবর জন্ম গ্রহন করেন বিল গেটস। টেকনোলোজি ব্যক্তিত্ব হিসেবে তিনি সর্বোচ্চ প্রভাবশালী ব্যক্তি।
৮। মারিও দ্রাঘি
মারিও দ্রাঘি পৃথিবীর ৮ নম্বর প্রভাবশালী ব্যক্তি। তিনি একজন ইতালিয়ান ব্যাংকার এবং অর্থনীতিবিদ। ২০০৬ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত এই ব্যক্তি ব্যাংক অফ ইতালির গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ৩ সেপ্টেম্বর, ১৯৪৭ সালে জন্ম প্রভাবশালী এই ব্যক্তির।
৯। সারজি ব্রিন এবং ল্যারি পেজ
বিশ্ববিখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন গুগলের দুই সহ প্রতিষ্ঠাতা সারজি ব্রিন এবং ল্যারি পেজ যৌথভাবে প্রভাবশালী হিসেবে রয়েছেন ৯ নম্বর অবস্থানে। তাঁরা দুজন অন্যতম ধনী ব্যক্তিত্বও। সারজি ব্রিন এবং ল্যারি পেজের মোট সম্পত্তি মূল্য ২৯ দশমিক ৯ বিলিয়ন এবং ৩০ দশমিক ৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (অক্টোবর, ২০১৪ পর্যন্ত)।
১০। ডেভিড ক্যামেরন
ডেভিড উইলিয়াম ডোনাল্ড ক্যামেরন (জন্ম: ৯ অক্টোবর, ১৯৬৬) লন্ডনে জন্মগ্রহণকারী যুক্তরাজ্যের বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ। যুক্তরাজ্যের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি কনজারভেটিভ পার্টির নেতৃত্বে রয়েছেন। সংসদীয় আসন উইটনি এলাকা থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। বিশ্বের প্রভাবশালী ১০ ব্যক্তির মধ্যে দশম অবস্থানে রয়েছেন ডেভিড ক্যামেরন।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (2টি রেটিং)

লিংকটা যোগ করলে ভালো হতো না? বাকীগুলোও দেখা যেত।

লিঙ্কটা দিতে পারলামনা বলে দুঃখিত। পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

-

^
"দ্রুত চলে রাস্তায় থেমে যাওয়ার চেয়ে ধীরে চলে গন্তব্যে পৌঁছা শ্রেয়।" -শেখ সাদী

জেনে ভালো লাগলো। লিংকটা বোধ হয় এটা:

http://www.forbes.com/powerful-people/

-

"নির্মাণ ম্যাগাজিন" ©www.nirmanmagazine.com

লিঙ্ক দেয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন।

-

^
"দ্রুত চলে রাস্তায় থেমে যাওয়ার চেয়ে ধীরে চলে গন্তব্যে পৌঁছা শ্রেয়।" -শেখ সাদী

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 4 (2টি রেটিং)