'আফরিন' -এর ব্লগ

ইন্টারনেট বেলুন আকাশে উড়ল

ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগল বিশ্বের প্রত্যন্ত স্থানে ইন্টারনেট সংযোগ নিশ্চিত
করতে অভিনব পদ্ধতি চালু করেছে।এজন্য প্রতিষ্ঠানটি মহাকাশে বেলুন উড়িয়েছে ।
গুগল নিউজিল্যান্ড থেকে পরীক্ষামূলকভাবে প্রায় ৩০টি সুপারপ্রেসার বেলুন
উড়িয়েছে । বেলুনগুলো নিয়ন্ত্রিত পথে উড়ে বেড়াবে এবং নির্দিষ্ট দেশে
থ্রি-জির মতো ইন্টারনেটে গতি দেবে। গুগল আরও জানায়, প্রতিটি বেলুন ১৫ মিটার
ব্যাসের এবং সেগুলো হিলিয়াম গ্যাসে পূর্ণ। বেলুনের নিচে সংযুক্ত রয়েছে
রেডিও অ্যান্টেনা, ভাসমান একটি কম্পিউটার, উচ্চতা নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা ও
বিদ্যুৎ তৈরিকারী সোলার প্যানেলসহ বৈদ্যুতিক..বিস্তারিত

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

দু'জনেই যেন এক

দুই ব্যারিস্টার দু'প্রান্তের রানৈতিক নেতা হলেও দুজনের কর্মকাণ্ড যেন
প্রায় একই রকম। শুধু কর্মকাণ্ড একই নাই, দু'জনই আছেন একটি জোটের
রাজনিতিতে। তারা সময়ের আলোচিত মুখ হিসেবে বেশ শুক্ষেতিও অর্জন করেছেন।
জনাব আন্দালিব রহমান পার্থ রিতিমত সরকারের সমালোচনা করে ইতিমধ্যে বেশ
একধরনের জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন বলেই যেন মনে হয়।
সময়ের এ দুই আলোচিত
রাজনীতিক মওদুদ আহমেদ ও আন্দালিব পার্থের কথাই বলছি। দুজনের মধ্যে রয়েছে
অদ্ভ‍ুত রকমের সাদৃশ্য। কি ব্যক্তি জীবনে, কি তাদের কর্মজীবনে। ইদানীং
দুজনের আচরণে-কথাবার্তায় আশ্চর্য সাদৃশ্য পরিলক্ষিত হচ্ছে-যেন একজন
আরেকজনের কার্বন কপি!!
মওদুদ ও পার্থ দুজনেই রাজনীতিতে প্রত্যক্ষভাবে
জড়িত। দুজনেই বাংলাদেশের অত্যন্ত পরিচিত মুখ। ক্যাটাগরির দিক থেকে দুজনেই
বেশ প্রভাবশালী রাজনীতিবিদও। দুজনেই ক্ষমতাসীন দলের বাইরে রয়েছেন।
অর্থ্যাৎ বিরোধীদলে।
দুজনেই নামের পূর্বে ‘ব্যারিস্টার’ ডেজিগনেশন
ব্যবহার করেন। উইকিপিডিয়ার তথ্যানুসারে মওদুদ ঢাকা ইউনিভার্সিটি থেকে 
থেকে সম্মান পাশ করে লন্ডনের লিঙ্কনস ইন থেকে বার-অ্যাট-ল’ ডিগ্রি অর্জন

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

এড়িয়ে চলুন হিটস্ট্রোকে

বছরের মাঝামাঝি সময়ে
এসে গ্রীষ্মের রোদের  তীব্রতা দেখতে
শুরু করেছে সবাই।
দুপুরে মাথার উপর গনগনে সূর্যটা
যেন আগুনের গোলা
হয়ে তাড়িয়ে বেরাচ্ছে রোজ। আকাশ যেন আগুন ঢালতে
শুরু করে মাথার
উপর। এসময়ে অত্যধিক
গরমে অনেকেই হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হন। এই হিটস্ট্রোক থেকে
বেঁচে থাকাটা খুব বেশি কঠিন
কিছু নয়। কিছু
নিয়ম  জেনে রাখলেই
নিজেকে নিরাপদে রাখতে
পারবেন এ হিটস্ট্রোক থেকে।
শরীরে পানিশূণ্যতা যেন না হয় সেদিকে খেয়ার
রাখবেন। হিটস্ট্রোকের অন্যতম
কারণ হচ্ছে শরীর
থেকে পানি বেরিয়ে
যাওয়া। শরীরে যথেষ্ট
পরিমাণ পানি না থাকলে তাপ জেঁকে বসে শরীরে। আর গরমের দিনে
শরীর থেকে পানি
বেরিয়ে যাবার অন্যতম
কারণ হচ্ছে ঘন ঘন ঘাম হওয়া। তাই গরমে পানি
পান করার পরিমাণটা বাড়াতে হবে। তবে অবশ্যই অতিরিক্ত নয়, বরং সময়ে
সময়ে অল্প অল্প
করে পানি পান করুন। পানীয়ও
চলতে পারে এই গরমে। তবে সেটা অ্যালকোহল বা ক্যাফেইনসমৃদ্ধ পানীয়
নয়। ছাতু বা লেবুর শরবত
শরীরে..বিস্তারিত

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

স্ত্রীর চেয়ে বান্ধবীর গুরুত্ব বেশি

দুই হাজার পুরুষের ওপর পরিচালিত এক জরিপে দেখা যায়, পুরুষরা বিভিন্ন উৎসবে
বান্ধবীর জন্য গড়ে ১২৪ পাউন্ড স্টার্লিং খরচ করলেও স্ত্রীর জন্য উপহার
কিনতে ব্যয় করে ১০৯ পাউন্ড। ওয়েবসাইট ইলিসিট অ্যানকাউন্টার পরিচালিত এক
জরিপে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে। এ জরিপে ৯৯ শতাংশ পুরুষ স্বীকার করেছেন, তাঁরা
বান্ধবীর জন্য অভিনব, চমকে দেওয়া, ব্যতিক্রমধর্মী উপহার কিনতে চান। আর এটি
কিনতে তাঁরা প্রচুর সময় ব্যয় করেন।বান্ধবীর মন রক্ষা করতে হন্যে হয়ে
খুঁজে বেড়ান তাঁর পছন্দের উপহার। কিন্তু স্ত্রীর জন্য যে উপহার কেনেন, তা
হয় দায়সারা। সাধারণত পুরুষ স্ত্রীকে এমন উপহার দেন, যা সংসারেরও...বিস্তারিত

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

স্মার্টফোন এখন শরীরের উত্তাপেই চার্জ হবে!

শরীরের সাথে কোনো কিছু ঠেসে লেগে থাকলে খুবই খারাপ লাগে। এখন অন্তত
স্মার্টফোন ব্যবহারীরা এই খারাপ লাগাটা অনুভব করবেন না। কারণ, স্মার্টফোন
এখন শরীরের উত্তাপেই চার্জ হবে। এমন খবরই দিয়েছেন গবেষকগণ।
নিত্যদিনের
প্রযুক্তিকেন্দ্রীক জীবনকে আরও আধুনিক করে তুলতে গবেষক খাটছেন দিনরাত,
অন্তহীন। আর তাতে সামান্য বিরতিতেই আসছে সুফল। এবারে তাই শরীরেই উৎপাদিত
উত্তাপকেই ব্যাটারি শক্তিতে রূপান্তরের সফল ঘোষণা দিলেন বিজ্ঞানীরা।
সংবাদমাধ্যম সূত্র এ তথ্য দিয়েছে।
শরীরে পরিধানযোগ্য ঘড়ি, চশমা কিংবা
ব্রেসলেট থেকেই এখন সরাসরি মোবাইল ফোনের ব্যাটারি চার্জ নিতে পারবে। শরীরের
অভ্যন্তরীণ উত্তাপকে যান্ত্রিক শক্তিতে বদলে দিতে এখানে ফ্যাবরিক পর্দাথের
ব্যবহার করা হবে। একে ‘ইলেকট্রিক্যাল পাওয়ার’ বলে অভিহিত করছেন
বিজ্ঞানীরা।
এ ধরনের শক্তি সঞ্চয় পদ্ধতিতে একবার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন পুরো ৪ ঘণ্টার জন্য চার্জ..বিস্তারিত

ছবি: 
আপনার রেটিং: None

মানব চিকিৎসায় হলুদের ব্যবহার

রান্নার একটি অপরিহার্য উপাদান হলো হলুদ। হলুদ রান্নাঘরের ভীষণ সহজলভ্য
একটি উপাদান। হলুদ ছাড়া বাঙালির রান্না এ যেন কল্পনাই করা যায়না। আর এ মসলা
সেই প্রাচীন কাল থেকেই নানান রকম চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়ে আসছে, তবে আধুনিক
চিকিৎসা বিজ্ঞানের সামনে যেন হারাতে বসেছে সেই চর্চা। আবার অনেকেই আছেন
যারা জানেন হলুদের ঔষধি গুণ সম্পর্কে, কিন্তু কি করে ব্যবহার করতে হবে সেটা
ঠিক জানেন না। তাই সকলের সুবিধার্থে ঘরোয়া চিকিৎসায় হলুদের ব্যবহার
সম্পর্কে আজ জেনে নিন।
হলুদ
হলুদ
হচ্ছে আদা গোত্রীয় এক গুল্ম জাতীয় উদ্ভিদের শিকড় বা মূল। হলুদ গাছের
শিকড়কে কয়েক ঘণ্টা সিদ্ধ করা হয়, তার পর গরম চুলায় অথবা কঁড়া রোদে শুকানো
হয়। এরপর এই শিকড়কে চূর্ণ করে গাঢ় হলুদ বর্ণের গুঁড়া পাওয়া যায়, যা আমরা
ব্যবহার করে থাকি। আবার শুকনো হলুদ ছিলে নিয়ে পানিতে ভিজিয়েও ব্যবহার করা
হয়। অন্যদিকে কাঁচা অবস্থায়ও হলুদের ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
গবেষনায় হলুদের

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (টি রেটিং)

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নয়াত্তি

কথায় বলে, আগে দর্শন ধারী পের গুনবিচারী ,সুন্দর মুখের জয় সর্বত্র। তাই
আমাদের প্রত্যেকেরই জানা উচিত কীভাবে নিজেকে সুন্দর রাখা যায়। সব মানুষ
সুন্দর হয়ে না জন্মালেও সঠিক পরিচর্চার মাধ্যমে যেকেউ তার রুপ লাবন্য
বহুদিন ধরে রাখতে পারে। আমরা অনেকেই মনে করি গায়ের রং ফর্সা হলেই বুঝি সে
সুন্দর। আসলে তা নয়। রং আপনার যা-ই হোক না কেন, যদি তাতে গ্ল্যামার বা
লাবণ্য থাকে তাকেই আজকাল সুন্দর বলে। ঘোলাটে, নির্জীব, দাগযুক্ত ত্বক যেমন
নিজের কাছে খারাপ লাগবে তেমনি অন্যের কাছেও খারাপ লাগবে। আল্লাহ আপনাকে
যেমনই তৈরি করুকনা কেন, একটু চেষ্টা করলেই আপনি অনেকখানি আকর্ষণীয় হতে
পারেন সবার কাছে। তার জন্যে শুধু দরকার ধৈর্য ও নিয়ম মাফিক পরিচর্যা।
মেয়েদের
২০/২১ বছর বয়স থেকেই বিশেষভাবে ত্বকের যত্ন, খাওয়া-দাওয়া, ব্যায়াম
ইত্যাদির দিকে নজর দেয়া উচিত। তাহলে ৫০ বছর বয়সেও নিজের রূপ ও সৌন্দর্য ধরে
রাখা সম্ভব। সঠিক পদ্ধতি জেনে নিয়ে ধৈর্য ধরে নিজের পরিচর্যা করতে হবে।
ত্বককে
সুন্দর ও সতেজ রাখার জন্যে আপনাকে জানতে হবে আপনার মুখমন্ডলের ত্বক কী

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 1 (টি রেটিং)

মঙ্গলে যেতে চায় প্রায় ৭৮ হাজার মানুষ

হাজার হাজার মানুষ মৃত্যু নিশ্চিত জেনেও বসতি গড়তে মঙ্গল
গ্রহে যেতে চায় । লোহিত এই গ্রহে যেতে পাড়ি দিতে হবে চার কোটি মাইল । মেইল অনলাইন জানিয়েছে,
গ্রহটির বাতাসে কার্বন ডাইঅক্সাইড ৯৫ শতাংশ। তাপমাত্রা মাইনাস ১৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস
থেকে ৩৫ ডিগ্রি পর্যন্ত। আবেদনকারীরা এমন পরিবেশে কীভাবে, কত দিন বাঁচা যাবে, তার ব্যাখ্যা
খুঁজছেন না । গ্রহটিতে পৌঁছতে সময় লাগবে প্রায় সাত মাস। এ সময়ে বিভিন্ন স্তরে মহাকর্ষ
বলের পরিবর্তনের কারণে শরীরের ওপর যে ধকল যাবে, তাও কি মোকাবেলা করা সম্ভব? এ প্রশ্নের
সঠিক উত্তর পাওয়া কঠিন। যারা যাবেন, তাদের সেখান থেকে আর ফিরিয়ে আনা হবে না- এটি জানানো
হয়েছে আগেই। তারপরও হল্যান্ডের কোম্পানি মার্স ওয়ানের প্রকল্পে নির্বাচিত হয়ে মঙ্গলে যেতে
দুই সপ্তাহের মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন প্রাপ্ত থেকে আবেদন পড়েছে ৭৮ হাজারের বেশি। উদ্যোক্তাদের
ধারণা, সর্বশেষ তারিখ আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে আবেদন পড়বে পাঁচ লাখের মতো। তাদের মধ্য
থেকে রিয়েলিটি টিভি শোর মাধ্যমে চূড়ান্তভাবে বাছাই করা হবে চারজনকে। ২০২২ সালে তাদের
পাঠানো হবে মঙ্গলে। ২০২৩ সালে তারা সেখানে পৌঁছে শুরু করবেন কলোনি গড়ে তোলার কাজ। এমন

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 2 (টি রেটিং)

বাদাম খান ওজন কমান

বিভিন্ন ধরনের বাদাম উৎসবের খাবারে একটি পরিচিত নাম। আমরা বাদামকে ক্ষীর,
পায়েস, সেমাইয়ের সঙ্গেই দেখতে অভ্যস্ত। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে
ক্যালসিয়াম। যেকোনো বড় অস্ত্রোপচারের পর বা দেহের কোনো হাড় ভেঙে গেলে,
বাদাম খেলে হাড় পুষ্টি পাবে দ্রুত।
লম্বা আকারের বাদাম, খোসা (পাতলা
আবরণ) ছাড়িয়ে খেতে হয়। কাঁচা খেতে পারলে খুব ভালো। কাঁচা হজম করতে না পারলে
পানিতে ভিজিয়ে খাবেন। বাদামের ওপর পাতলা বাদামি বা খয়েরি রঙের আবরণ থাকে।
পানিতে ১০ থেকে ২০ মিনিট ভিজিয়ে রাখলেই খোসাটা উঠে যায়। চিবিয়ে বা খাবারের
সঙ্গে মিশিয়ে সেদ্ধ করে খাওয়া যায়।
গর্ভবতী মহিলা, বাড়ন্ত শিশু ও
মেনোপোজ (চিরতরে ঋতুস্রাব বন্ধ হয়ে যাওয়া) হয়ে গেছে এমন নারীদের জন্যও
কাঠবাদাম ভীষণ জরুরি। কারণ, এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম। আবার
বয়স্ক নারী ও পুরুষের জন্যও এই বাদাম ভীষণ জরুরি। কারণ, বয়স বাড়ার সঙ্গে
সঙ্গে, বিশেষ করে আমাদের দেশে ৪০ বছরের পর বেশির ভাগ মানুষের অসটিওপোরেসিস
হয়, এই অসুখে হাড় দুর্বল হয়ে যায়, যা পুরো শরীরের ওপর ফেলে ক্ষতিকর

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 2 (টি রেটিং)

রাজধানীর ব্যাচেলার মেসে ২ খুন

রাজধানীর
শ্যাওড়াপাড়া এলাকায় ব্যাচেলর মেসে দুই রুমমেটকে খুন করে কাঁথা দিয়ে ঢেকে
পালিয়েছে পাঁচ ঘাতক। নিহতরা হলেন গ্রিন ইউনিভার্সিটির বিবিএ শিক্ষার্থী
রাজীব (২৮) ও কাজী ফার্মার কর্মকর্তা আবুল বাশার।

 

শুক্রবার
বিকাল তিনটার দিকে রাজধানীর শেরে বাংলানগর থানাধীন শ্যাওড়াপাড়ার ৫৫২ নম্বর
ভবনের তৃতীয় তলা থেকে তাদের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশের ময়না
তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

ছবি: 
আপনার রেটিং: None
Syndicate content