মুনশি আলিমের ছোটগল্প 'সুইটি'

সাত সকালেই দরজায় কড়া নাড়ার শব্দ। আমার ঘুম ভেঙ্গে গেল। আমি চোখ কচলাতে থাকলাম, কিন্তু উঠলাম না। শীতের দিন হওয়ায় বিছানা থেকে যেন উঠতেই মন সায় দেয় না। মাঝে মাঝে অলসতার কারণে মনে হয় এভাবে যদি শতাব্দীর পর শতাব্দী ঘুমিয়ে কাটাতে পারতাম! প্রতিটি দিনই যদি শীতের মত এমন আলসে কুড়ে হত কী মজাই না হত! দরজায় আবারও টোকা পড়ল- চয়ন ভাইজান... ।

কণ্ঠটি বেশ পরিচিত। তাহেরা তাবাসসুম সুইটি ডাকছে। ও আমাদের বাসার গৃহকর্মী। ওর নাম নিয়েও প্রায়শই ওকে টিজের শিকার হতে হয়। বিভিন্ন খানে তো বটেই এমনকি আমাদের বাসায়ও হয়। কাজ করার সময় একটু পান থেকে চুন খসলে আমার খালামণি শায়লা তো জিরাফের মত গলা বাড়িয়ে বলেই চলে-  যেনা আমার চেহারা, আবার নাম লাগাইছে তাহেরা...! দেখে শুনে কাজ করতে পারিস না? বলি এসব জিনিসপত্র কি তোর বাপ কিনে দিয়েছে? খালামণির কথার সাথে আমার আম্মুও এসে জোট বাঁধে। আমার খালামণি আরও শক্তি ও সাহস পায়। এ যেন দ্বি দলীয় ঐক্যজোট!

সুইটির বয়স বার ছুইছুই করছে। বছর চারেক আগে সুইটি যখন আমাদের বাসায় কাজ করতে আসে তখন তার বয়স ছিল আট। চেহারাও ছিল বেশ সুইট। কথাবার্তায় ছিল শিশুসুলভ প্রগলভতা। ওর এই প্রগলভতা আমার ভাল লাগতো। এই কারণে আমি তার নাম পরিবর্তন কর রাখি তাহেরা তাবাসসুম সুইটি। আমি সেদিন খেয়াল করলাম, নতুন নামকরণের পর তার চোখে মুখে সেকি আনন্দের ঝিলিক! ড. ইউনুস নোবেল পাওয়ার পরে যেমনটি হয়েছিল তেমনি আর  কি!

ওর আচার আচরণে আমি মুগ্ধ হয়ে একসময় তাকে ...কর্মমুখী শিক্ষা স্কুলে ভর্তি করে দেই। তাকে স্কুলে ভর্তি করানোর পরে বাসায় আমাকে যে কী পরিমান যে বেগ পেতে হয়েছিল, কী পরিমান যে মায়ের চক্ষুশূল হয়েছিলাম তা কেবল মাত্র শুধু আমিই জানি। এরপর সে স্কুলে ভর্তিও হয়েছিল এবং এখন পর্যন্তও সে পড়ছে। স্কুলে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই সে আমার প্রতি একটু বেশি দেখভাল করার চেষ্টা করে। আজ হয়ত সে আমাকে সকাল সকাল জাগিয়ে দেওয়ার জন্যই দরজায় এসে কড়া নাড়ছে। আমি দরজা খুলতেই দেখি সুইটির বড় বোন সাহারা। আমি ভ্যাবাচেকা খেয়ে গেলাম। ওদের দুজনের কণ্ঠেই প্রায় এক। আমি কিছু বলার আগেই সে ঈষৎ নত হয়ে কানাজড়িত স্বরে বলল- ভাইজান! সুইটি গতরাতে এক বখাটে পোলার লগে পলাইয়া গেছে।

আমার চোখ যেন তখন কপালে ওঠার মতো অবস্থা। আমি তখন রুম থেকে একটু বাহিরে আসি। বাহিরে তখন বেশ ঘন কুয়াসা। আমি দূর আকাশের পানে তাকাই। যতদূর দৃষ্টি যায় শুধু দেখি ঘন কুয়াসা আর কুয়াসা। ঘন কুয়াসার দিকে তাকিয়ে অস্ফুট স্বরে বলি-যেখানেই থাকিস, ভাল থাকিস রে সুইটি!

..............................

২২.০৯.২০১৪

মুনশি আলিম

টিলাগড়, সিলেট

ছবি: 
আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (টি রেটিং)

আস-সালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু! ভালো লাগলো!

-

▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬
                         স্বপ্নের বাঁধন                      
▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬

ওয়ারাইকুম আস সালালাম।

ধন্যবাদ ও শুভ কামনা।

-

মুনশি  আলিম

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 3 (টি রেটিং)