প্রাতিষ্ঠানিক সততার নব দৃষ্টান্ত

v\:* {behavior:url(#default#VML);}
o\:* {behavior:url(#default#VML);}
w\:* {behavior:url(#default#VML);}
.shape {behavior:url(#default#VML);}

 
 

নিরলস
সংগ্রামে রত। অতীতের রাষ্ট্র পরিচালনায় স্বেচ্ছাচারিতার অপসংস্কৃতিকে পেছনে ফেলে
তাই দেশে আজ প্রাতিষ্ঠানিক সততার নতুন নতুন উদাহরণ সৃষ্টি হচ্ছে। এরই
ধারাবাহিকতায় গত ১৮ই আগস্ট এক প্রজ্ঞাপন জারি করে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরকে আনুষ্ঠানিকভাবে
দুর্নীতিমুক্ত কার্যালয় ঘোষণা করেছে সরকার। একই সঙ্গে অধিদপ্তরের সামগ্রিক
কার্যক্রমকে দুর্নীতিমুক্ত রাখতে সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করে শুরু হয়েছে
দুর্নীতিমুক্ত অভিযান। ইতোমধ্যে দুর্নীতির অভিযোগে অধ্যক্ষকে পর্যন্ত
সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক স্বাক্ষরিত ওই
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে অধিদপ্তরের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীর সততা, স্বচ্ছতা, ন্যায়নিষ্ঠা
ও স্বতঃস্ফূর্ত অঙ্গীকারের ভিত্তিতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষা
মন্ত্রণালয়ের এই প্রতিষ্ঠানটিকে
প্রথম দুর্নীতিমুক্ত ঘোষণা করা হলো। প্রজ্ঞাপনে অধিদপ্তরের আওতাধীন
সেবার তালিকায় রয়েছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে এমপিও প্রদান,সিনিয়র
স্কেল

 

ও টাইম
স্কেল প্রদান, নিয়োগ ও বদলি।
বিভিন্ন প্রকার ছুটি মঞ্জুর, বহিঃবাংলাদেশ গমনের অনুমতি, বেতন-ভাতাদি, পদোন্নতি, শ্রান্তি বিনোদন ছুটি ও ভাতা মঞ্জুর, দেশ-বিদেশে প্রশিক্ষণার্থী মনোনয়ন, পেনশন ও আনুতোষিক মঞ্জুরি, ডিজি
প্রতিনিধি মনোনয়ন, পাসপোর্ট
করার অনুমতি, জিপিএফ
অগ্রিম মঞ্জুর, বাজেট
বরাদ্দ ও ক্রয় বিক্রয় প্রক্রিয়া ইত্যাদি। উল্লিখিত সেবা প্র্রদানে
কোন আর্থিক লেনদেন, অবৈধ
সুবিধা গ্রহণ বা এ জাতীয় কোনো তথ্য যা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীদের
পরিপূর্ণ সততা, স্বচ্ছতা ও আন্তরিকতার
পরিপন্থি পাওয়া মাত্র মহাপরিচালক বা পরিচালকবৃন্দকে অবহিত করতে বিশেষভাবে
অনুরোধ করা হয়েছে ওই প্রজ্ঞাপনে।এই প্রজ্ঞাপন জারির পরপরই এর

আওতায় গত ২০শে
সেপ্টেম্বর হোসেনাবাদ টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ মো. মোশারফ হোসেন
এরবিরুদ্ধে একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজে অদক্ষতা, কোচিং বাণিজ্য, আর্থিক
অনিয়ম ও অসঙ্গতি, স্বেচ্ছাচারিতা
এবং দুর্নীতিসহ নিয়মিত অফিসে উপস্থিত না থাকার গুরুতর অভিযোগ প্রাথমিকভাবে
প্রমাণিত হওয়ায় সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ১৯৮৫ এর ১১(১)বিধি
অনুযায়ী  সাময়িক  বরখাস্ত  করা  হয়। প্রাথমিক  তদন্তে  অসদাচরণ ও দুর্নীতির
অভিযোগে অভিযুক্ত হিসাবে

 

 

জনস্বার্থে তার বিরুদ্ধে সরকারি কর্মচারী
বিধিমালা ১৯৮৫ এ ৩(বি) ও ৩(ডি) অনুযায়ী অসদাচরণ ও দুর্নীতির
অভিযোগে বিভাগীয় মোকদ্দমা রুজু করার সিদ্ধান্ত নেয়া
হয়। সরকারের আন্তরিকতায় স্থাপিত হয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক সততার নব দৃষ্টান্ত, প্রত্যাশা অচিরেই এই দৃষ্টান্ত
ছড়িয়ে যাবে দেশব্যাপী, প্রতিষ্ঠিত হবে জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা।

Normal
0
false

false
false
false

EN-US
X-NONE
BN

/* Style Definitions */
table.MsoNormalTable
{mso-style-name:"Table Normal";
mso-tstyle-rowband-size:0;
mso-tstyle-colband-size:0;
mso-style-noshow:yes;
mso-style-priority:99;
mso-style-qformat:yes;
mso-style-parent:"";
mso-padding-alt:0in 5.4pt 0in 5.4pt;
mso-para-margin-top:0in;
mso-para-margin-right:0in;
mso-para-margin-bottom:10.0pt;
mso-para-margin-left:0in;
line-height:115%;
mso-pagination:widow-orphan;
font-size:11.0pt;
mso-bidi-font-size:14.0pt;
font-family:"Calibri","sans-serif";
mso-ascii-font-family:Calibri;
mso-ascii-theme-font:minor-latin;
mso-hansi-font-family:Calibri;
mso-hansi-theme-font:minor-latin;
mso-bidi-font-family:Vrinda;
mso-bidi-theme-font:minor-bidi;}
table.MsoTableGrid
{mso-style-name:"Table Grid";
mso-tstyle-rowband-size:0;
mso-tstyle-colband-size:0;
mso-style-priority:59;
mso-style-unhide:no;
border:solid black 1.0pt;
mso-border-themecolor:text1;
mso-border-alt:solid black .5pt;
mso-border-themecolor:text1;
mso-padding-alt:0in 5.4pt 0in 5.4pt;
mso-border-insideh:.5pt solid black;
mso-border-insideh-themecolor:text1;
mso-border-insidev:.5pt solid black;
mso-border-insidev-themecolor:text1;
mso-para-margin:0in;
mso-para-margin-bottom:.0001pt;
mso-pagination:widow-orphan;
font-size:11.0pt;
font-family:"Calibri","sans-serif";
mso-ascii-font-family:Calibri;
mso-ascii-theme-font:minor-latin;
mso-hansi-font-family:Calibri;
mso-hansi-theme-font:minor-latin;
mso-bidi-font-family:Vrinda;
mso-bidi-theme-font:minor-bidi;
mso-bidi-language:AR-SA;}

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None