সু-শাসন প্রতিষ্ঠায় ইসলাম

ইসলামের বুনিয়াদ
৫টি। এর প্রথমটি হচ্ছে আল্লাহ ও রাসূলের প্রতি ঈমান। আল্লাহ একমাত্র ইলাহ ও
মুহাম্মদ (সা:) তার রাসূল এই সাক্ষ্য দেয়াই হলো ঈমান।এটা কোন মন্ত্র পাঠ নয়। এটা
হলো পলিসি স্টেটম্যান্ট।ঈমানের পর রয়েছে আরো ৪টি বুনিয়াদ। তাহলো নামায, যাকাত, রোযা
ও হজ্জ।সাক্ষ্য দানের পর ৪টি বুনিয়াদকে ৪টি মৌলিক ইবাদত বলা যায়। এটা নিছক কোন
আনুষ্ঠানিকতা নয়, মানুষের জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত।নামাজ শুধুমাত্র পূর্ব
পশ্চিমে মুখ করে উঠা বসা করা নয়। এর মধ্য দিয়ে যেমন আল্লাহর সাথে গভীর সম্পর্ক হয়,
তেমনি আল্লাহর বান্দার প্রতি দায়িত্ব পালনের অনুভূতি তৈরি হয়।যাকাত একটি আর্থিক
ইবাদত।এটা ভিক্ষা বা ট্যাক্স নয়। ধনীর ধনে গরীবের জন্য আল্লাহর পক্ষ থেকে নির্ধারিত
অধিকার।৪টি মৌলিক ইবাদতের মধ্যে নামাজ ও রোযা সবার সাথে সম্পৃক্ত। আর হজ্জ ও যাকাত
ধনী ব্যক্তির সাথে সম্পৃক্ত। শেষ ২টি ইবাদতের মাধ্যমে ধনী ব্যক্তিদের সমাজের প্রতি
দায়িত্ব পালনে উদ্বুদ্ধ করে তুলে।ইসলামে দু’টি দিক রয়েছে। একটি হচ্ছে হক্কুল্লাহ
অপরটি হচ্ছে হক্কুল ইবাদ। হক্কুল্লাহ হচ্ছে, আল্লাহর সাথে সম্পৃক্ত।তিনি নিরংকুশ
ক্ষমতা প্রতিপত্তির মালিক। তার সাথে কাউকে শরীক করা যায় না। আর হক্কুল ইবাদ হচ্ছে,
মানুষের খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্খান, মৌলিক অধিকার, জানমাল, ইজ্জত, আবরু রক্ষা করা
সবগুলো সম্পৃক্ত।রোযা সামষ্টিক ইবাদত। ভৌগোলিক অবস্খানগত পার্থক্যের কারণে সময়ের
তারতম্য হতে পারে কিন্তু সবাই মাসব্যাপি অভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। তিনি রোযাকে
একটি ওয়ার্কশপ।এর মাধ্যমে মানুষ পুরো মাস নিয়ন্ত্রিত জীবন যাপন করে। যার বাস্তব ফল
হচ্ছে, মানুষের বিবেককে নিয়ন্ত্রিত করা। যার ফলে মানুষের ব্যক্তি জীবন হয় সংযত ও
নিয়ন্ত্রিত।ব্যক্তিগতভাবে মানুষ সংযমী হলে, এমন লোকের সমষ্টিতে যে সমাজ হবে, সেটি
হবে সংযত, সুনিয়ন্ত্রিত, সুশৃখল ও পরিচ্ছন্ন।

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)

আপনার পোষ্ট দেখছি না, তাই আপনাকে স্বাগতমও জানাতে পারছি না।

মাশাআল্লাহ্ শুরুতেই ছোট্ট হলেও গুরুত্বপূর্ণ লেখা নিয়ে হাজির হলেন। আশা করছি নিয়মিত থাকবেন।

আপনাকে বিসর্গে স্বাগতম।

-

"নির্মাণ ম্যাগাজিন" ©www.nirmanmagazine.com

বিসর্গে আপনাকে স্বাগতম।

এবারের ঈদ-আনন্দে আমার সঙ্গী হবেন?
http://www.bishorgo.com/user/122/post/960

-

আমার প্রিয় একটি ওয়েবসাইট: www.islam.net.bd

অাল অামীন ভাই অনেক ধন্যবাদ। একটি সুন্দর পোস্ট উপহার দেয়ার জন্য।

লোকমান ভাই সম্ভবতঃ বিজয়ের পুরোনো ভার্সনে লেখার ট্রাই করছেন। ইউনিজয়-এ কিছুটা পরিবর্তন আছে। এখানে আগে অক্ষর পরে মাত্রা। যেমন- আ=অ+া (Shift+F=অ, F=া, একত্রে G+F=আ)

-

আমার প্রিয় একটি ওয়েবসাইট: www.islam.net.bd

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)