উল্লেখযোগ্য হারে অস্ট্রেলিয়ায় মাদ্রাসা বৃদ্ধি

গত কয়েক বছরে
অস্ট্রেলিয়ায় উল্লেখযোগ্য হারে মাদ্রাসা এবং মুসলিম শিক্ষার্থীর সংখ্যার বৃদ্ধির
খবর জানিয়েছে এদেশের সরকারী কর্তৃপক্ষ।

 

  

 

 

‘ajib’ ওয়েবসাইটের বরাত দিয়ে কুরআন বিষয়ক বার্তা সংস্থা ইকনা’র রিপোর্ট: অস্ট্রেলিয়ার সরকারী কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, গত কয়েক বছর ধরে এদেশের লক্ষণীয় ভাবে মাদ্রাসা এবং মুসলিম শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পায়েছে।

 

জরিপ অনুযায়ী, অস্ট্রেলিয়ার পূর্বে অবস্থিত ‘নিউ সাউথ ওয়েলস’ শহরে গত ১৫ বছরে মাদ্রাসার সংখ্যা তিন গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।

 

‘আবার্ন’ শহরের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা জানিয়েছেন, গত পাঁচ বছরে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে, শিক্ষার্থীদের সংখ্যা দ্বিগুণ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে এবং উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জায়গা বৃদ্ধি করা সত্ত্বেও জায়গার অভাবে এখনও অনেকই ভর্তি হওয়ার জন্য ওয়েটিং লিস্টের রয়েছে।

 

অস্ট্রেলিয়ার সর্ববৃহৎ মাদ্রাসা ‘Greenacre’ শহরে রয়েছে। এই মাদ্রাসাটি ১৯৮৯ সালে ৮৭ জন শিক্ষার্থীদের নিয়ে চালু হয়েছে এবং ২০১১ সালে ২০২৬ জন শিক্ষার্থীদের গৃহীত করা হয়েছে।

 

অস্ট্রেলিয়ার সরকারী কর্তৃপক্ষ এদেশের বিভিন্ন মাদ্রাসাই শিক্ষার্থীদের ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধির ফলে এদেশের মুসলমানের সংখ্যা বৃদ্ধির আসংখা করছে।

 

ওয়াকিবহাল মহলের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০০৬ সাল থেকে ২০১১ সালের পর্যন্ত এদেশে মুসলমানের সংখ্যা ২০ শতাংশ বৃদ্ধি হওয়ার খবর জানিয়েছে।

 

উল্লেখ্য যে, অস্ট্রেলিয়ায় ইসলাম ধর্মকে চতুর্থতম ধর্ম হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। এশিয়া মহাদেশ থেকে ১৮৬০ সালে সর্বপ্রথম অস্ট্রেলিয়ায় ইসলাম ধর্ম প্রবেশ করে এবং বর্তমানে এদেশের সিডনি, মেলবোর্ন ও মোতামার্কেজ পোর্ট সহকারে অন্যান্য প্রধান শহরে মুসলমানেরা বসবাস করছে।

 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (টি রেটিং)