জনগণ বিপ্লব বার্ষিকীর বিক্ষোভে আমেরিকার হুমকির জবাব দেবে

জনগণ বিপ্লব বার্ষিকীর বিক্ষোভে আমেরিকার হুমকির জবাব দেবে

ইরানের বিমানবাহিনীর কমান্ডার ও কর্মীদের সাথে এক সাক্ষাতকারে সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা আলী খামেনেয়ী বলেছেন, আমেরিকার সদ্য আগত প্রেসিডেন্ট তার কথা এবং কাজের মাধ্যমে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের ৩৮ বছরের কথা -যা আমেরিকান শাসকের দুর্নীতি সম্পর্কে বলা হয়েছে, তা- জনগণের সামনে স্পষ্ট করেছে। আসন্ন বিপ্লব বার্ষিকীতে ইরানী জনগণ তার হুমকি এবং পদক্ষেপের জবাব দেবে।

বার্তা সংস্থা ইকনা: সর্বোচ্চ নেতা বলেন, "ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছে আমাকে ভয় কর। কিন্তু না, ইরানের জনগণ তার এ বক্তব্যের জবাব দেবে ২২ বাহমান বিপ্লব বার্ষিকীর দিন এবং হুমকির জবাবে ইরানের জনগণ কী ধরনের অবস্থান গ্রহণ করে তা সেদিন দেখিয়ে দেবে।” ফারসি ২২ বাহমান হচ্ছে ইরানের ইসলামি বিপ্লবের বার্ষিকী; ১৯৭৯ সালের এ দিনে ইরানের বিপ্লব চূড়ান্তভাবে সফল হয়। এ দিন উপলক্ষে ইরানের জনগণ সারাদেশে বিপ্লবের প্রতি সমর্থন জানিয়ে আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করে।

কয়েকদিন আগে এক টুইটার বার্তায় ট্রাম্প বলেছে, "আগুন নিয়ে খেলছে ইরান। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তাদের প্রতি কতটা দয়ালু ছিলেন তারা তা মোটেই স্বীকার করে না; আমাকেও তারা মান্য করে না।”

সর্বোচ্চ নেতা বলেন, "ট্রাম্প বলেছে ইরানের জনগণের উচিত সাবেক প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রতি কৃতজ্ঞ হওয়া। কিন্তু কেন? আমাদের কী উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের প্রতি কৃতজ্ঞ হতে হবে? আমরা কী ইরাক ও সিরিয়ার সহিংসতার আগুনের প্রতি কৃতজ্ঞ হব? ২০০৯ সালে ইরানে যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করিয়েছিলেন ওবামা আমরা কী তার প্রতি অন্ধ সমর্থন দেব?”

সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইরানের জনগণের ওপর মারাত্মক নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দিয়েছিল এই ওবামা। অবশ্য তিনি তার লক্ষ্য অর্জন করতে ব্যর্থ হয়েছিলে এবং কোনো শত্রুই ইরানের জনগণকে পঙ্গু করতে পারবে না। সর্বোচ্চ নেতা আরো বলেন, ট্রাম্পকে ধন্যবাদ জানানো উচিত এই কারণে যে, তিনি তার বক্তব্যের মাধ্যমে আমেরিকার সত্যিকার চেহারা দেখিয়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, ট্রাম্পের পাঁচ বছরের শাসনামলে আমেরিকার মানবাধিকার সম্পর্কে আমরা আরো পরিষ্কার হয়ে যাব।
 iqna

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None