রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা ভাষায় ব্যক্ত করার মত নয়

জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিদর্শন বিভাগের চার সদস্যের এক টিমের প্রধান বলেছেন: রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যে সহিংসতা চালানো হচ্ছে, তা ভাষায় ব্যক্ত করার মত নয়।

বার্তা সংস্থা ইকনা: জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাই কমিশনার ৩ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে সেদেশের সরকারের আগ্রাসন এবং গণহত্যার এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে বলা হয়েছে, এসকল আগ্রাসন এবং গণহত্যার ২২০ জন প্রত্যক্ষদর্শী পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

 জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিদর্শন বিভাগের চার সদস্যের টিমের প্রধান "লিনি উরভিডাসুন" বলেন: আমরা যখন প্রত্যক্ষদর্শীর নিকট হতে রিপোর্ট সংগ্রহ করছিলাম তখন তাদের কথা শুনে আমরা অনেক মন:ক্ষুণ্ণ হয়েছি।

তিনি বলেন: হিউম্যান রাইটস হাইকমিশনার জাইদ রাদ আল হুসাইনের সাথে 'অং সান সুচি'র ফোনালাপ হয়েছে। এসময় সুচি প্রতিশ্রুত দিয়েছে, অতি শীঘ্রই এই বিষয়ে সুষ্ঠু পর্যবেক্ষণ করবে।

উরভিডাসুন আশাবাদী মিয়ানমারে গণহত্যা এবং সহিংসতা বন্ধের জন্য সুচি চেষ্টা ফলশ্রুতি হবে।

জাতিসংঘের প্রতিবেদন উল্লেখ করা হয়েছে, সত্য অনুসন্ধানের জন্য ২২০ জন রোহিঙ্গা মুসলমানের নিকট হতে প্রতিবেদন সংগ্রহ করা হয়েছে। এরমধ্যে ৯৬ জনের স্ব-পরিবার থেকে কমপক্ষে ১ জন করে নিহত হয়েছেন।

এই প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, এছাড়াও বাকীদের উপর শারীরিক অত্যাচার, তাদের বাড়িতে আগুন লাগানো অথবা ধ্বংস করা হয়েছে। তাদের পরিবারের কমপক্ষে একজন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তাদেরকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। এছাড়াও তাদেরকে গুলি করে অথবা ছুরি দিয়ে আঘাত করে আহত করা হয়েছে এবং নারীদের জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়েছে।

iqna

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None