ভারতীয় অধিবাসীর নিকট ৫০০ বছরের প্রাচীন স্বর্ণের কুরআন

প্রায় ৫০০ বছর পূর্বে অটোমান সাম্রাজ্যের সময় সোনার পৃষ্ঠায় পবিত্র
কুরআনের এক খণ্ড পাণ্ডুলিপি নির্মাণ করা হয়েছে। বর্তমানে কুরআন শরিফের এই
পাণ্ডুলিপিটি ভারতের এক মুসলিম ব্যক্তির নিকটে রয়েছে।

ভারতীয় অধিবাসীর নিকট ৫০০ বছরের প্রাচীন স্বর্ণের কুরআন

বার্তা
সংস্থা ইকনা:
৩০ বছর বয়সী ভারতের অধিবাসী ব্যাংকার 'মুহাম্মাদ হারেস'
বর্তমানে মালয়েশিয়ায় জীবন যাপন করছে। এ ব্যাপারে তিনি বলেন: আমার নিকটে
কুরআন শরিফের এই পাণ্ডুলিপিটি ৫ বছর ধরে রয়েছে। এই কুরআন শরিফটি আমাদের
পরিবারে সুখ ও শান্তি বয়ে এনেছে।   
কুরআন শরিফের এই পাণ্ডুলিপির
ব্যাপারে তিনি বলেন: কুরআন শরিফের স্বর্ণের এই পাণ্ডুলিপিটি মোট ২৮টি অংশে
ভাগ করা হয়েছে। প্রত্যেক অংশে ১৯ থেকে ২০টি পৃষ্ঠা রয়েছে এবং প্রতিটি
পৃষ্ঠায় পবিত্র কুরআনের আয়াত ক্যালিগ্রাফি করা রয়েছে। স্বর্ণের পাণ্ডুলিপির
২৮টি অংশ ১৪টি স্বর্ণের বাক্সে রাখা হয়েছে। এই ১৪টি বাক্সের মধ্যে আমার
নিকটি মাত্র একটি বাক্স রয়েছে।
মুহাম্মাদ হারেস বলেন: বাকী ১৩টি বাক্স আমার স্ত্রীর ভাই ইসমাইল কাযেমের নিকটে রয়েছে।
তিনি বলেন: মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী 'মাহাথির মোহাম্মদ' ২০০৯ সালে পবিত্র কুরআন শরিফের এই পাণ্ডুলিপিকে স্বীকৃতি দিয়েছে।
হারেস আরও বলেন: অতি শীঘ্রই কুরআন শরিফের এই পাণ্ডুলিপিটিকে একটি জুয়েলারির দোকানে প্রদর্শন করা হবে।
মূল্যবান এই পাণ্ডুলিপির মূল্য এখনও নির্ধারণ করা হয়নি, তবে ধারণা করা হচ্ছে এই পাণ্ডুলিপিটির মূল্য প্রায় ৫৯ মিলিয়ন ডলার হবে।
হারেস
বলেন: আমার ইচ্ছা স্বর্ণের এই পাণ্ডুলিপিটি বিক্রয় করে ইসলাম প্রচার করার
জন্য একটি ইসলামিক স্টাডিজ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য কেন্দ্র নির্মাণ
করব।
iqna

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None