মানুষ এত নিষ্ঠুর হয় কিভাবে ? আল্লাহ হেদায়েত করুন

সালাম

মানুষ  এত  নিষ্ঠুর হয়  কিভাবে ?  আল্লাহ  হেদায়েত করুন ।

স্ত্রীর খন্ডিত  লাশসহ স্বামী গ্রেপ্তার

 

যায় যায় দিন 

স্ত্রীকে হত্যার পর চার টুকরা করে কার্টনে ভরে চট্টগ্রাম থেকে বাড়ি ফেরার পথে পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন সাইফুল ইসলাম (৩৪)। শনিবার রাতে ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার পুরাতন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শুভপুর সেতুর পাশে সিএনজিচালিত অটোরিকশা থেকে পুলিশ সাইফুলকে আটক করে।

 

তিনি চট্টগ্রামে জাহাজ ভাঙার (শিপইয়ার্ড) কাজ করেন। পুলিশ জানায়, চট্টগ্রাম বন্দর থানার নিউ মুরিং আবাসিক এলাকায় একটি দোতলা বাড়িতে স্ত্রী ফারজানা ইয়াসমিনকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন সাইফুল। প্রায় তিন বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। কিন্তু বছর খানেক আগে তিনি দ্বিতীয়বার বিয়ে করেন সালমা নামের এক কলেজছাত্রীকে। এ নিয়ে ফারজানার সঙ্গে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। এর জের ধরে গত শুক্রবার রাতে দুজনের মধ্যে প্রচ- ঝগড়া হয়। এরপর ফারজানা ঘুমিয়ে পড়লে ঘুমন্ত স্ত্রীকে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন সাইফুল। পরের দিন শনিবার সারা দিন স্ত্রীর লাশ কী করবে, তা নিয়ে চিন্তাভাবনার পর লাশটিকে মাটিচাপা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

 

কিন্তু গোটা লাশ বহন করা কষ্টকর হবে চিন্তা করে লাশটিকে ছুরি দিয়ে চার টুকরা করেন। এরপর দুই টুকরো বাসার রেফ্রিজারেটরে (ফ্রিজ) রেখে দুই টুকরো মাছ বহনের কার্টনে ভরে বরফ দিয়ে গ্রামের বাড়ি ছাগলনাইয়া উপজেলার দক্ষিণ বল্লভপুরের দিকে রওনা হন। চট্টগ্রাম থেকে বাসে করে মাছের দুটি কার্টন নিয়ে তিনি মিরসরাইয়ের বারইয়ার হাট পেঁৗছেন।

 

সেখান থেকে কার্টনে ইলিশ মাছ আছে বলে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ভাড়া করে ছাগলনাইয়ার পথে রওনা দেন। বিএনপির হরতাল সামনে রেখে এবং মাদকদ্রব্য তল্লাশি অভিযানের অংশ হিসেবে ছাগলনাইয়া থানা পুলিশ শুভপুর সেতুর পাশে একটি চেকপোস্ট বসায়। সেখানে পেঁৗছার পর পুলিশ অটোরিকশা থামিয়ে কার্টনে কী আছে, জানতে চাইলে সাইফুল রুই মাছ আছে বলে জানান।

 

 

পুলিশ কার্টন খুলতে চাইলে তিনি পুলিশকে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে তাকে ছেড়ে দিতে বলেন। পরে পুলিশ ওই কার্টন খুলে এক নারীর খ-িত লাশ উদ্ধার করে ও তাকে গ্রেপ্তার করে। রোববার সকালে ছাগলনাইয়া থানায় গ্রেপ্তার হওয়া সাইফুল পুলিশ ও সাংবাদিকদের কাছে স্ত্রী ফারজানাকে হত্যা করার কথা স্বীকার করে অনুতপ্ত হন। ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাঈনুল আবসার জানান, খ-িত লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত ফারজানার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে লাশটি নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। সাইফুলকে চট্টগ্রামের বন্দরথানা পুলিশের হেফাজতে পাঠিয়ে দেয়া হবে।
 

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)

বড়ই নির্মম এই হত্যা!  উপযুক্ত শাস্তি আশা করছি বর্তমান আদালতে, আর আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ এই সংবাদ দেয়ার জন্য

সালাম

 

খবরটা  পড়ার পর থেকে  মনটা খুব  খারাপ  লাগছে । স্বামী - স্ত্রীর সম্পর্ক  এত  খারাপ হয়ে যায়  কিভাবে  ?   সম্পর্ক  খারাপ  হলে  বন্ধু - আত্মীয়স্বজনদের মধ্যে   কেউ  তাদের  ঝগড়া  মেটাতে এগিয়ে আসে না কেন ?  

 

সম্পর্ক  যখন  চূড়ান্ত খারাপ পর্যায়ে চলে  যায় ,  তখন    বিবাহ  বিচ্ছেদের  পথ বেছে  না  নিয়ে  কেন  এরকম নৃশংসভাবে খুন করা হয় ?    

 

মানুষ  বোধহয়   একেবারে  পাগল হয়ে যাচ্ছে । জাহান্নামের পথে   কিভাবে , কত দ্রুত  যাওয়া যায়  - সেই চেষ্টাতেই    বেশীরভাগ  মানুষ  ব্যস্ত  এখন ।

 

হে  আল্লাহ ,  আমাদেরকে পথ  দেখান ।

বিবাহ বিচ্ছেদ করলে মান-সম্মান যাবে, লোকে মন্দ বলবে, আর খুন করে গুম করে ফেলতে পারলে তো আর তিরস্কারের ভয় থাকে না- এই আর কী!!! রিকশা চালালে লোকে দেখবে, কিন্তু চুরি করলে তো আর কেউ দেখবে না, মান-সম্মানও যাবে না।

স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের ক্ষেত্রে আমি সবসময় পরামর্শ দেই আল্লাহর সেই বাণী উল্লেখ করে যে, "হয় ভালোয় ভালোয় রাখো অথবা ভালোয় ভালোয় বিদায় করে দাও" কিন্তু এ নির্মমতা কেন?
এগুলো আসলেই মানুষের চেহারার ভয়ংকর প্রাণী বিশেষ। এদেরকে প্রকাশ্য শিরোচ্ছেদ করার মাধ্যমে শাস্তি দেয়া উচিত। যাতে এরা উদাহরণ হতে পারে অন্যদের জন্য। তা না করে হত্যা বদলে যাবজ্জীবন, কিংবা গোপনে ফাঁসী দেয়ার মাধ্যমে সমাজে এর তেমন প্রভাব পড়ে না।

সালাম

আপনি ঠিকই বলেছেন এদেরকে জনসম্মুখে এনে শূলে চড়ানো উচিৎ যাতে করে সমগ্র দুনিয়া বাসী ভয়ে সংশোধনে চলে আসে। যে, এই পাপের এই শাস্তি। আড়ালে নিয়ে মোটা অংকের টাকা খেয়ে ছেড়ে দেয়, পরে পালিয়ে বিদেশে চলে যায়। অনেক বছর পরে এসে একে বারে সূফী সেজে থাকে, অথচ ভেতরে ভেতরে এত শয়তানী লুকানো থাকে।

আল্লাহ তা'য়ালা এদেরকে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করে দিন। কারন বান্দার কাজে ফাঁক থাকে, আল্লাহর কাজ হয় নির্ভেজাল।

-

▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬
                         স্বপ্নের বাঁধন                      
▬▬▬▬▬▬▬▬ஜ۩۞۩ஜ▬▬▬▬▬▬▬▬

আল্লাহ হেদায়েত করুন

Rate This

আপনার রেটিং: None গড় রেটিং: 5 (2টি রেটিং)