রোববার ঢাকায় আসছে ভারতীয় গোয়েন্দারা

ঢাকা- বাংলাদেশ সরকার বলেছে,পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলায় একটি
বিস্ফোরণের ঘটনা তদন্তের অংশ হিসেবে ভারতের গোয়েন্দাদের একটি প্রতিনিধি দল
আগামী ১৬ নভেম্বর ঢাকায় আসার সম্ভবনা রয়েছে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেছেন, বাংলাদেশকে দেয়া ভারতের
প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনে বর্ধমান বিস্ফোরণের ঘটনায় বাংলাদেশের নাগরিকের
জড়িত থাকার দাবি করা হয়েছে।

গত ২ অক্টোবর বর্ধমানের খাগড়াগড়ে এক বিস্ফোরণে শাকিল আহমেদ এবং সোবহান মন্ডল নামে দুজন নিহত হয়।

নিহত দুইজনই বাংলাদেশি নাগরিক বলে দাবি ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনআইএর।

ঢাকায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ভারতের এনআইএর
একজন ইন্সপেক্টর জেনারেলের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত দলকে ঢাকায় আসার
অনুমতি দেয়া হয়েছে।

দলটি আগামী ১৬ বা ১৭ নভেম্বর ঢাকায় আসতে পারে। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রগুলোও একই ধরনের তথ্য দিয়েছে।

ভারতের এনআইএর দল যখন বাংলাদেশে আসবে, স্বভাবতই তখন বাংলাদেশ যৌথভাবে
তদন্তের আগ্রহ প্রকাশ করবে। সেই প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশের গোয়েন্দা দলও
ভারতে যেতে পারে বলে প্রতিমন্ত্রী উল্লেখ করেছেন।

শাহরিয়ার আলম বলেছেন, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ঘটনা সম্পর্কে জানতে ভারতকে
চিঠি দেয়ার পর ভারত তাদের প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন বাংলাদেশকে
পাঠিয়েছে।

তিনি আরো উল্লেখ করেন, ভারতের প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনে বাংলাদেশের একজন নাগরিকের নাম-ঠিকানা জানানো হয়।

তার ভিত্তিতে বাংলাদেশের ওই নাগরিকের ভাইকে নারায়ণগঞ্জ থেকে আটক করা হয়েছে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ভারতে অভিযানে উদ্ধার করা কাগজপত্রে
বাংলাদেশে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন হারকাতুল জেহাদ বা জেএমবির নাম থাকার কথা
তারা জানিয়েছে।

তবে প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশের অব্যাহত অভিযানের ফলে জেএমবির বড়
ধরনের নাশকতা করার ক্ষমতা নেই বলে বাংলাদেশ মনে করে, যা ইতোমধ্যে বাংলাদেশ
ভারতকে জানিয়েছে।

এরপরও ভারতের এই তদন্তে বাংলাদেশ তথ্য আদান-প্রদানসহ সব ধরনের সহযোগিতা দেবে। সূত্র: বিবিসি

নিউজনেক্সটবিডি ডটকম/আতে

আপনার রেটিং: None

Rate This

আপনার রেটিং: None